ঢাকা, শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭

বৈচিত্র্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:১০, ৫ জুলাই ২০২০

আজ একইসঙ্গে দেখা মিলবে ‘ব্লাড মুন’ ও চন্দ্রগ্রহণ

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সূর্য ও চন্দ্রগ্রহণ মিলিয়ে চলতি বছর এরইমধ্য তিনটি গ্রহণ হয়ে গেছে। এর মধ্যে দুটি চন্দ্রগ্রহণ এবং একটি সূর্যগ্রহণ। বছরের চতুর্থ গ্রহণটি হবে আজ রোববার। এটিকে উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ বলছেন বিশেষজ্ঞরা। এমনকি এই দিনটিতে সুপারমুনেরও দেখা মিলবে। এটাকে বিজ্ঞানীরা বলছেন ‘ব্লাড মুন’।

আংশিক চন্দ্রগ্রহণের ফলে তেমন কোনো প্রভাব দৃশ্যমান হবে না। কারণ, পৃথিবীর শেষের দিকের আংশিক ছায়া গিয়ে পড়বে চাঁদের উপর। খালি চোখে যা দেখা সম্ভব না। বাকি গ্রহণের মতো প্রকটও হবে না।

আবহাওয়া অফিসের তথ্য অনুযায়ী, উপচ্ছায়া গ্রহণ শুরু হবে ৫ জুলাই (বাংলাদেশ মান সময়) ৯টা ৪ মিনিট ৩০ সেকেন্ডে, সর্বোচ্চ গ্রহণ হবে ১০টা ৩০ মিনিটে এবং শেষ হবে ১১টা ৫৫ মিনিট ৩০ সেকেন্ডে।

গ্রহণটির কেন্দ্রীয় গতিপথের বিবরণ দিয়ে আবহাওয়া অফিস আরো জানিয়েছে, ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরো শহরে উপচ্ছায়া গ্রহণ শুরু হবে, সর্বোচ্চ গ্রহণ হবে প্যারাগুয়ের আসুনশিওন শহরে এবং গ্রহণ শেষে হবে পেরুর লিমা শহরে। তবে বাংলাদেশ থেকে এই চন্দ্রগ্রহণটি দেখা যাবে না। এদিকে উত্তর আমেরিকা এবং দক্ষিণ আমেরিকা থেকে সুপারমুনটি দেখা যাবে।

চাঁদ এবং পৃথিবী নিজ নিজ কক্ষপথে চলার সময় সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ যখন একই সরলরেখায় আসে এবং সূর্য ও চাঁদের মাঝখানে পৃথিবীর অবস্থান হয় তখন পৃথিবীর ছায়া গিয়ে পড়ে চাঁদের ওপর। পৃথিবী থেকে দেখলে কিছু সময়ের জন্য আংশিক অদৃশ্য হয়ে যায় চাঁদ। এই ঘটনাকেই চন্দ্রগ্রহণ বলা হয়।

এই বছর প্রথম উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ হয়েছিল ১০ জানুয়ারি। পরের চন্দ্রগ্রহণটি হয় ৫-৬ জুন।

আইনিউজ/এইচ

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়