ঢাকা, মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭

জুবেদ আহমেদ

প্রকাশিত: ০৪:৫৮, ৩ মে ২০২০
আপডেট: ০৫:০৯, ৩ মে ২০২০

পিগমি মারমোসেট

দক্ষিণ আমেরিকার রেইনফরেস্টে পিগমি মারমোসেট নামের পৃখিবীর সবচেয়ে ছোট প্রজাতির বানর দেখা যায়এগুলো আকারে এতোই ছোট যে,একেকটা বানরকে আপনার হাতের মুঠোয় ধরতে পারবেন।এরা লম্বায় . থেকে . ইঞ্চি বা ১২ থেকে ১৬ সেন্টিমিটার এবং ওজনে থেকে আউন্স বা ৮৫ থেকে ১৪০ গ্রামদক্ষিণ আমেরিকার অ্যামাজনের গভীর জঙ্গলে এদের বেশি দেখা যায়।

পিগমি মারমোসেটের দেহ অন্যান্য বানরের মতোই নরম কোমল পশমে আবৃত। আর অনেকের মাথার দুই পাশেই অনেকটা বড় ঘন পশম থাকে যা দেখতে অনেকটা গোছা সদৃশ। মারমোসেটদের গায়ের রঙ্গেও দেখা যায় বিচিত্রতা। তবে সাধারণত কালো, বাদামী, রূপালি, কমলা ইত্যাদি রঙের মারমোসেটই বেশি দেখা। গাছের সবচেয়ে উঁচু ডালে এরা থাকতেই পছন্দ করে।

তাদের লেজ তাদের দেহের চাইতেও লম্বা হয়ে থাকে।  ডালপালা দিয়ে লাফালাফি করার সময় তারা লেজকে ভারসাম্য রক্ষা করার জন্য ব্যবহার করেআকারে ছোট হলেও এরা এক লাফে ১০ থেকে ১৫ ফুট দূরে যেতে পারে।এরা ছোট ছোট দলে বসবাস করে।এদের গড় আয়ু ৫ থেকে ১৬ বছর।পিগমি মারমোসেটরা সাধারণত যমজ বাচ্চা জন্মদান করে।কখনও কখনও তিনটি বাচ্চাও জন্মদান করে।প্রধানত পুরুষ মারমোসেটই সন্তানদের প্রতি যত্নশীল হয়।তরুণরা শিশুদের যত্নে সাহায্য করে।

প্রায় মানুষের আঙ্গুলের সমান দৈর্ঘের পিগমি মারমোসেট দেখতে খুবই সুন্দর।

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়