ঢাকা, সোমবার   ১৫ আগস্ট ২০২২,   শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

পাভেল পার্থ

প্রকাশিত: ০৯:৫৭, ৩ মার্চ ২০২২
আপডেট: ১০:১৯, ৩ মার্চ ২০২২

বন্যপ্রাণীরা পৃথিবীকে বাঁচিয়ে রাখছে

পাভেল পার্থ,  গবেষক, প্রতিবেশ ও প্রাণবৈচিত্র্য সংরক্ষণ।

পাভেল পার্থ, গবেষক, প্রতিবেশ ও প্রাণবৈচিত্র্য সংরক্ষণ।

প্রকৃতিতে টিকে থাকার জন্য প্রজাতি হিসেবে লড়াই একটা মৌমাছিও করে, মানুষও করে। কিন্তু মৌমাছিরা নিজের খাবার ফলানোর নামে মানুষদের বিষ দিয়ে হত্যা করে না, কিংবা হাতিরা মানুষদের গ্রাম দখল করে উচ্ছেদ করে না।

‘সারভাইভ্যাল অব দ্য ফিটেস্ট’ বা ‘যোগ্যতমের টিকে থাকা’ এই বৈজ্ঞানিক তত্ত্বখানি অধিকাংশরাই না জেনে, আংশিক জেনে, অস্পষ্ট জেনে বা না বোঝে হরহামেশা ব্যবহার করেন। কৃষিজমিন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের দালান এমন অনেক মানুষের সাথে কথা হয়েছে যাদের অনেকের ধারণা নেই এই তত্ত¡খানি মূলত প্রাকৃতিক নির্বাচন, প্রাণজগতের বিবর্তন এবং বাস্তুতন্ত্রের জটিল সম্পর্কের সাথে জড়িত। এমনকি তাদের অধিকাংশই ডারউইনের মূল লেখা বা তাঁর কোনো বইও কোনোদিন ঘেঁটে দেখার দায় অনুভব করেননি। অধিকাংশরাই অন্যের কাছে এটি শুনেছেন, অনেকটাই বানর থেকে মানুষ এসেছে এমন ‘অল্পবিদ্যা ভয়ংকরী’ গোছের। এভাবেই কানকথা হতে হতে একটা লম্বা সময় জুড়ে এর মানে পাল্টেছে। কাল ও দেশের গন্ডিতে কেবল নয়, মনোজগতেও। আর তাই এই বিশ্বনিখিলে প্রজাতি হিসেবে মানুষ ক্রমশই বাস্তুতন্ত্রে টিকে থাকার বিজ্ঞান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে। গায়ের জোরে এই বৈজ্ঞানিক সত্য পাল্টে দিতে চাইছে। কিন্তু এই ‘সামজিক গায়ের জোর’ কোনোভাবেই প্রাকৃতিক নির্বাচনের ভেতর টিকে থাকার কোনো ‘যোগ্যতা’ নয়। এই যোগ্যতা সকল প্রাণপ্রজাতিতে ধীরলয়ে বিকশিত হয় প্রাকৃতিকভাবে এবং প্রজাতি থেকে প্রজাতিতে এর বৈশিষ্ট্য বাহিত হয়। আবার প্রকৃতির কোনো ব্যাকরণে ছন্দপতনের সাথে টিকে থাকবার লড়াই শুরু হয়। আবার পরিবর্তন, রূপান্তর ও বিকাশ ঘটে। এভাবেই এককোষী থেকে বহুকোষী আর প্রাণপ্রজাতির বহুমুখী বিস্তার বৈচিত্র্য আমরা দেখে চলেছি কাল থেকে কালে। হয়তো এর ভেতর বহুল অংশটাই মানুষ হিসেবে আমাদের অজানা রয়ে গেছে, হয়তোবা মানুষের সাথে সাক্ষাত ঘটেনি বহু প্রাণপ্রজাতির। চলতি আলাপখানি ডারউইনের কোনো তত্ত¡ নিয়ে নয়, দেশের বন্যপ্রাণীর নিদারুণ দশা ও সুরক্ষা বিষয়ে চলমান লেখালেখির একটা অংশমাত্র। ৩ মার্চ বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবসে বন্যপ্রাণী সুরক্ষার বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দেয়াও এর উদ্দেশ্য। আচ্ছা তাহলে আলাপের শুরুতেই কেন ডারউইনের প্রাকৃতিক নির্বাচন তত্ত¡কে টেনে আনা হলো? টেনে আনার কারণ হলো প্রাকৃতিক নির্বাচনের বৈজ্ঞানিক নির্যাস থেকে আমরা যতবেশি শরীর ও মনে দূরে সরে যাব, তত বেশি বন্যপ্রাণী থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বো। এখন যেমন একক প্রজাতি হিসেবে মানুষ তার বাহাদুরি প্রতিষ্ঠা করে চলেছে। ভোগবিলাস আর বেহিসাবী জীবনের জন্য লুন্ঠন আর বৈষম্য চাঙ্গা রেখেছে। নিষ্ঠুরভাবে প্রতিদিন খুন করছে বন্যপ্রাণী, দূষিত করছে বাস্তুতন্ত্র। অথচ এই গ্রহে মানুষই একমাত্র প্রজাতি, বেঁচে থাকার জন্য যাকে সকল প্রাণপ্রজাতির ওপর নির্ভর করতে হয়। শ্বাস নেয়া থেকে অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, বিনোদন, চিকিৎসা সবকিছুই চলে বন্যপ্রাণী আর উদ্ভিদের দয়ায়। কিন্তু মানুষ প্রকৃতির এই অবদান একটিবারও মনে রাখে না। প্রতিনিয়ত বিশ্বাসঘাতকতা করে বন্যপ্রাণীর সাথে। বন্যপ্রাণীর আবাস, খাদ্য, পরিবার দখল ও ছিনতাই করে। কিন্তু এভাবে খুব বেশি সময় প্রকৃতি অন্যায় আর রক্তপাত সহ্য করে না। চলমান করোনা মহামারীতে এটি আবারো প্রবলভাবে আমরা টের পেয়েছি। করোনা ভাইরাস মূলত একটি জুনোটিক বা প্রাণিবাহিত জীবাণু। বন্যপ্রাণীর আবাস চুরমার করার কারণেই এই মহামারী আমাদের দেখতে হলো। এর আগেও এমন ঘটেছে বহুবার। বাস্তুতন্ত্রের এই ব্যাকরণ থেকে একমাত্র মানুষই কোনো শিক্ষা গ্রহণ করেনি। তাই ভোগান্তি আর যন্ত্রণা প্রজাতি হিসেবে মানুষের সমাজেই বাড়ছে বেশি। প্রকৃতিতে টিকে থাকার জন্য প্রজাতি হিসেবে লড়াই একটা মৌমাছিও করে, মানুষও করে। কিন্তু মৌমাছিরা নিজের খাবার ফলানোর নামে মানুষদের বিষ দিয়ে হত্যা করে না, কিংবা হাতিরা মানুষদের গ্রাম দখল করে উচ্ছেদ করে না। মানুষ ছাড়া মৌমাছি কী হাতি বাঁচতে পারবে। কিন্তু কোনো নির্ভরতা ছাড়া মানুষতো বাঁচবে না। মৌমাছি না থাকলে পরাগায়ণ ও উদ্ভিদে বংশবিস্তার রুদ্ধ হবে, হাতি না থাকলে খাদ্যশেকল ভেঙে পড়বে।  কিন্তু মানুষ ছাড়া পৃথিবী হয়তো টিকবে বহুকাল। তো মানুষ এমন প্রকৃতিবিরুদ্ধ আচরণ করছে কেন? কেন নির্বিচারে বিনাশ করছে প্রাণজগত? কারণ মানুষ নিজেকে ‘ক্ষমতাধর’ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চায়। অন্যকে ‘দুর্বল’ আর নিজেকে ‘সবল’ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার অন্যায় রাজনীতি জিইয়ে রাখে। নিষ্ঠুরভাবে প্রশ্নহীন আঘাত চাঙ্গা রেখে ‘যোগ্যতমের টিকে থাকার’ বানোয়াট মিথ্যাচার প্রতিষ্ঠা করতে চায়। প্রকৃতিতে কেউ এভাবে টিকে থাকার যোগ্যতা অর্জন করে না। 

২.
ডারউইন তাহলে যোগ্যতমের টিকে থাকাকে কীভাবে ব্যাখা করেছেন? প্রকৃতিবিদ চার্লস ডারউইন মূলত প্রাকৃতিক নির্বাচন ব্যাখা করতে গিয়ে এই তত্ত্ব হাজির করেছিলেন। ডারউইনের কালজয়ী সৃষ্টি ‘দ্য অরিজিন অব স্পিসিস’ পুস্তকে এটি বিবৃত হয়। ১৮৫৯ সনের ২৪ নভেম্বর বইটি প্রকাশিত হয়। প্রকৃতিতে নিরন্তর নানামুখী সংকট তৈরি হয়। এই সংকটে টিকে থাকার জন্য প্রাণ-প্রজাতিতে বিশেষকোনো যোগ্যতা তৈরি হতে থাকে। এই যোগ্যতা প্রজাতিটিকে রূপান্তরিত করে। এটি একসময় নতুন পরিবেশ ও বাস্তুতন্ত্রে প্রজাতির টিকে থাকার বৈশিষ্ট্য হিসেবে রূপ পায়। আর এভাবেই প্রকৃতিতে টিকে থাকার জন্য কোনো প্রাণপ্রজাতি যোগ্যতম হয়ে ওঠে। এখানে খাদ্য, বাসস্থান, জলবায়ু ও বাস্তুতন্ত্রের সাথে খাপখাওয়ানো ও প্রতিযোগিতার মতো নানামুখী বিষয় জড়িত থাকে। তবে এই প্রতিযোগিতা ওপর থেকে চাপিয়ে দেয়া বা মানবসৃষ্ট বিশেষ কোনো কৃৎকৌশল নয়। প্রকৃতির চলমান বিকাশ ও রূপান্তরের অংশ। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো নিয়মিত জনশুমারী করে। জনশুমারি অনুযায়ী দেখা যায় দেশে মানুষের সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে। কিন্তু মানুষ বাদে অন্যান্য বন্যপ্রাণীর সঠিক কোনো শুমারী আমাদের হাতে নেই। বিশেষ করে ভোঁদড়, বনবিড়াল, গয়াল, কাঠবিড়ালি, সজারু, গন্ধগোকূল, মৌমাছি, বনরুই কী অজগরের কোনো শুমারি আদৌ হয়েছে কীনা আমাদের জানা নেই। বিচ্ছিন্নভাবে আমরা পাখিশুমারি, বাঘশুমারি, ডলফিন শুমারি, শকুন গণনা, হাতি গণনা বা কচ্ছপ গণনার কথা শুনি। এইসব শুমারি নির্দেশ করে দেশে বন্যপ্রাণীর সংখ্যা কমছে। দেখা যায়, আবাসস্থল ক্রমাগত দখল, খাদ্যসংকট, বাণিজ্যিক চোরাচালান এবং বন্যপ্রাণীর প্রতি চরম অবহেলা কারণে আজ দেশব্যাপি বন্যপ্রাণী বিপদাপন্ন। মানুষ আজ হাতির বিচরণস্থল দখল করেছে, পাহাড়ে হাতির খাবার নেই। মানুষ নির্দয়ভাবে একের পর এক হাতি মারছে। গরুছাগলের জন্য ডাইক্লোফেনাক ব্যবহার করে আমরা শকুনের সংখ্যা নিশ্চিহ্ন করেছি। কৃষিতে বহুজাতিক রাসায়নিক বিষ ব্যবহারের মাধ্যমে জলজ প্রাণবৈচিত্র্যকে বিপন্ন করেছি। দেশে বাঘের টিকে থাকার সর্বশেষ আশ্রয়স্থল বাঘের আবাসভূমি সুন্দরবনকেও উন্নয়নের নামে ক্ষতবিক্ষত করা হচ্ছে। তাহলে বন্যপ্রাণী টিকে থাকবে কোন যোগ্যতায়? এখানে টিকে থাকবার জন্য কোনো প্রাকৃতিক প্রতিযোগিতাতো মানুষের সাথে হচ্ছে না। মানুষের বাননো এই কৃত্রিম বাস্তবতায় বন্যপ্রাণীর টিকে থাকবার জন্য নিজের ভেতর বিশেষ কোনো যোগ্যতম বৈশিষ্ট্য কি এভাবে তৈরি হতে পারে? পারে না। তাই চোখের সামনে অকাতরে মরছে বন্যপ্রাণী। ফসলের জমিতে বিষ দিয়ে একের পর এক আমরা পাখিদের হত্যা করি। সিলেটের হরিপুরের মতো হোটেলে পাখির লাশ খেয়ে ফেসবুকে উন্মাতাল পোস্ট দেই। হরিণের চামড়া বিছিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান করি বা করপোরেট বিজ্ঞাপনে টিয়াপাখি বন্দি করে রাখি। এই যে মানুষ হিসেবে বন্যপ্রাণীর ওপর আমরা নির্বিচার বাহাদুরি করছি, এটিও কিন্তু প্রজাতি হিসেবে মানুষের টিকে থাকবার জন্য কোনো বিশেষ অর্জিত প্রাকৃতিক যোগ্যতা নয়। 

৩.

১৯৭৩ সালের ৩ মার্চ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে ২১ টি দেশের স্বাক্ষরদানের মধ্য দিয়ে গৃহীত হয় ‘বিপন্ন বন্যপ্রাণী এবং উদ্ভিদপ্রজাতির আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সম্পর্কিত সম্মেলন ১৯৭৩ (সাইটেস) সনদ’। এই সনদের প্রধান উদ্দেশ্য আন্তজার্তিক বাণিজ্যের মাধ্যমে বন্যপ্রাণী ও উদ্ভিদক’লের অতিমাত্রায় ব্যবহার রোধ করা। বাংলাদেশ ১৯৮১ সালের ২০ নভেম্বর এই সনদ অনুমোদন করে এবং ১৯৮২ সনের ১৮ ফেব্র“য়ারি থেকে এই সনদটি বাংলাদেশের জন্য কার্যকর হয়। ৩ মার্চ ‘সাইটেস সনদ’ স্বাক্ষরতি হয়েছিল, জাতিসংঘের ৫৮ তম সাধারণ সভায় ২০১৩ সনের ২০ ডিসেম্বর উক্ত দিনটিকে ‘বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস’ ঘোষণা করা হয়। ২০২২ সনের বন্যপ্রাণী দিবসের প্রতিপাদ্য হলো ‘বাস্তুতন্ত্র পুনরুদ্ধারে কীস্টোন প্রজাতির ভূমিকা’। জাতিসংঘ একইসাথে বিশ্লেষণ করেছে বন্যপ্রাণী সুরক্ষা জাতিসংঘের টেকসই লক্ষ্যমাত্রাসমূহও (এসডিজি) পূরণ হয়। বিশেষ করে ১, ২, ১২, ১৩, ১৪ এবং ১৫ নং লক্ষ্যমাত্রা পূরণে বন্যপ্রাণী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কিন্তু রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সুরক্ষা ও বন্যপ্রাণীর জীবন নিরাপদ করার ভেতর দিয়ে এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা পূরণে এখনো কোনো দৃশ্যমান পাবলিক তৎপরতা শুরু করেনি।  ‘বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী (সুরক্ষা ও নিরাপত্তা) আইন ২০১২’ বিদ্যমান থাকলেও দেশে সাফারিপার্ক, প্রাকৃতিক বন, গ্রামীণ বন কী জলাভূমি কোথাও বন্যপ্রাণী নিরাপদ নয়। এবারের বন্যপ্রাণী দিবসের কীস্টোন প্রজাতি বলতে আমরা কী বুঝি? ১৯৬৯ সনে প্রাণিবিজ্ঞানী রবার্ট টি পেইন প্রথম কীস্টোন প্রজাতির ধারণা দেন। কীস্টোন প্রজাতি এমন এক প্রজাতি যা কোনো বাস্তুতন্ত্রের সামগ্রিক গঠন ও প্রাকৃতিক শৃংখলা বজায় রাখার ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং যার প্রভাব পুরো প্রতিবেশের সামগ্রিক জৈবসত্তার ওপর নির্ভর করে। প্রতিটি কীস্টোন প্রজাতি যার প্রাচুর্য যেমনই হোক না কেন কিন্তু তার প্রভাব সেখানকার সকল প্রাণসত্তার সাথে সম্পর্কিত থাকে এবং এটি সকলের জীবনকেই নানাভাবে প্রভাবিত করে। বিশেষ করে একটি বাস্তুতন্ত্রের অপরাপর প্রাণ-প্রজাতির সংখ্যা ও প্রকার নির্ধারণ ও ব্যবস্থাপনায় ভূমিকা রাখে। কীস্টোন প্রজাতি ছাড়া কোনো একটি বাস্তুতন্ত্র মুহুর্তেই বদলে যেতে পারে কিংবা সকলের জন্যই বিপদ তৈরি করতে পারে কিংবা প্রাকৃতিকভাবে বিকাশের ব্যাকরণ রুদ্ধ হয়ে যেতে পারে। যেমন, সুন্দরবনে বাঘ একটি কীস্টোন প্রজাতি। এই বাঘ বনের খাদ্যশৃংখলের সর্বোচ্চ স্তরের খাদক এবং অন্যান্য স্তরের প্রাণীদের খাদ্য হিসেবে গ্রহণের মাধ্যমে প্রাকৃতিকভাবে বাস্তুতন্ত্রে প্রাণ-প্রজাতির সংখ্যা ও প্রকারকে সমন্বয় করে। তো এই বাঘ ছাড়া সুন্দরবনের মতো বাস্তুতন্ত্র বিকশিত হবে না, হতে পারে উপকূলে আরো ম্যানগ্রোভ বাস্তুসংস্থান গড়ে ওঠবে। কিন্তু সেটি সুন্দরবন হবে না। যদি সুন্দরবনে বাঘ নিশ্চিহ্ন হয়, তবে প্রাকৃতিকভাবে এই বনটির বিকাশ রুদ্ধ হবে এবং এই বাস্তুতন্ত্র ভিন্নভাবে পরিবর্তিত হবে। যেমন, বৃহৎ কোনো বট বা অশ্বত্থ গাছ হলো একটি বাস্তুতন্ত্রের কীস্টোন প্রজাতি। কারণ পাখি, পতঙ্গ, লতাগুল্ম, লাইকেন, ছত্রাক, অর্কিড, মৌমাছি, পরাশ্রয়ী, কাঠবিড়ালি, সাপ, পেঁচা এরকমের বহুপ্রাণি খাদ্য-আশ্রয় সবকিছুর জন্যই বটগাছের ওপর নির্ভরশীল। বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলে প্রাচীন বনভূমি, চাবাগান ও খাসপুঞ্জি এলাকায় বটসহ প্রাচীন গাছ গুলো কেটে ফেলার কারণে দেখা গেছে বহু বন্যপ্রাণীর আবাসস্থল বিলুপ্ত হয়েছে। বটবৃক্ষহীনতায় সেসব বাস্তুতন্ত্র বর্তমানে ভিন্ন চেহারা নিয়ে দাঁড়িয়েছে। 

৪.
আন্তর্জাতিক প্রকৃতি সংরক্ষণ বিষয়ক জোট আইইউসিএন প্রকাশিত ‘লালতালিকা বই’ অনুযায়ী দুনিয়ায় প্রায় ৮,৪০০ বৃক্ষ ও বন্যপ্রাণী চরমভাবে বিপদাপন্ন এবং প্রায় ৩০,০০০ প্রজাতি ঝুঁকিতে আছে। তো এই কীস্টোন প্রজাতি কেবলমাত্র প্রাকৃতিকভাবেই নয়, সাংস্কৃতিক ও সামাজিকভাবে গুরুত্ব বহন করে। তো এই ‘সাংস্কৃতিক কীস্টোন’ প্রজাতির ধারণা ১৯৯৪ সনে প্রথম গ্যারি নাবহান ও জন কার ব্যাখা করেন। যেসকল প্রাণপ্রজাতি মানুষের জীবন ও জনসংষ্কৃতিকে প্রভাবিত করে এবং জনসংস্কৃতির নানা রূপকল্প হয়ে ওঠে সেসব প্রজাতিই ‘সাংষ্কৃতিকভাবে কীস্টোন প্রজাতি’। যেমন, বাঘও সাংষ্কৃতিক কীস্টোন প্রজাতি। সুন্দরবন অঞ্চলে বনবিবির কৃত্য থেকে শুরু করে সমগ্র অঞ্চলে বাঘ এক পবিত্র প্রাণসত্তা। এমনকি পাবলিক পরিসরে শক্তিময়তার প্রতীক হিসেবে বাঘের রূপকল্প ব্যবহৃত হয়। জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রতীক বাংলা বাঘ। উত্তরাঞ্চলের বেদিয়া আদিবাসীদের গোত্রপ্রতীক হিসেবে মান্য সকল বন্যপ্রাণীই তাদের কাছে ‘সাংস্কৃতিক কীস্টোন প্রজাতি’। যেমন, কছুয়া গোত্রের গোত্রপ্রতীক কচ্ছপ। চিড়রা গোত্রের কাঠবিড়ালি, বর গোত্রের বটগাছ, সুইয়া গোত্রের সুইচোরা পাখি, মহুকল গোত্রের রাতচরা পাখি, কানুজ গোত্রের শিংমাছ, তেরওয়া গোত্রের কবুতর, পেচা গোত্রের পেঁচা। সকল আদিবাসী সমাজেই গোত্রপ্রতীক হিসেবে চিহ্নিত বন্যপ্রাণসমূহ পবিত্র এবং এদের বিন্দুমাত্র ক্ষতিসাধন সামাজিকভাবে নিষিদ্ধ। দেশজুড়ে হাতি, কচ্ছপ, বনরুই, পাখি, সাপ, ময়ূর, পেঁচা, শূকর, বাঘ এবং হরেকরকম বৃক্ষপ্রজাতি সাংস্কৃতিক কীস্টোন প্রজাতি হিসেবে নানা সমাজে বিবেচিত। কিন্তু আমরা বন, বন্যপ্রাণী কিংবা বাস্তুতন্ত্র সুরক্ষার রাষ্ট্রীয় কর্মসূচি কিংবা দৃষ্টিভঙ্গিতে নি¤œবর্গের এইসব লোকায়ত সুরক্ষাবিজ্ঞানকে কখনোই মূল্যায়ণ করিনি, গুরুত্ব দেইনি। বরং উন্নয়নের নামে জোর করে ক্ষতিগ্রস্থ করেছি। আজ পৃথিবী জনমানুষের লোকায়ত জ্ঞান ও বন্যপ্রাণী সুরক্ষায় সাংস্কৃতিক-সামাজিক চর্চার গুরুত্ব নতুনভাবে অনুধাবন করছে। আশা করি রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশও বন্যপ্রাণ সম্পর্কিত দেশের জনগণের লোকায়ত বিশ্বাস ও চর্চাকে সুরক্ষা কর্মসূচির ভিত্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করবে। 

আরো পড়ুন : শ্রীমঙ্গলে দুই ঘণ্টার অভিযানে দাঁড়াশ সাপ উদ্ধার

৫. 

২৬ এপ্রিল ২০১২ তারিখে বাংলাদেশের যশোরের বেনাপোল সীমান্তে ভারত থেকে ফলের কার্টনে পাচার হয়ে আসা ১৫৫টি কচ্ছপ আটক করে বনবিভাগ ও বর্ডার গার্ড-বাংলাদেশ। ১৭ এপ্রিল ২০১২ তারিখে দিবাগত রাত তিনটায় বিমানবন্দর থেকে ৩০০টি তারকা কচ্ছপ, ৯০টি শিলা কচ্ছপ এবং ২৫টি কড়ি কাইট্ট্যা আটক করা হয় । ২০১০ সনের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ থেকে পাচার হওয়া ১১৪০টি কচ্ছপের চালান আটক করে থাইল্যান্ডের সুবর্ণভূমি বিমানবন্দর। সিলেটের লালেং বা পাত্র জনগোষ্ঠীর কাছে অকুংলারাম ও নাফাংলারাম ছিল বন্যপ্রাণীকেন্দ্রিক আদিকৃত্য। পাহাড়-জলাবনের প্রবীণ মাছ ও কাছিম ছিল এসব কৃত্যের শক্তি। নিদারুণভাবে লালেং গ্রামে বিগত ত্রিশ বছর ধরে এসব কৃত্য পালিত হয় না। কারণ কাছিম, মাছসহ বন্যপ্রাণের সকল আবাসস্থল আজ দখল হয়েছে হোটেল ও রিসোর্ট কারবারে। নতুন প্রজন্মের লালেং শিশুও হারিয়েছে সাংষ্কৃতিক কীস্টোন প্রজাতির সাথে তার প্রথাগত সম্পর্কের ব্যাকরণ। এই ব্যাকরণ পাঠে একজন আদিবাসী শিশু শৈশবেই তার আশেপাশের প্রতিবেশের প্রতিটি উদ্ভিদ ও প্রাণীর গুরুত্ব ও অবদান সম্পর্কে জানতে পারে। পরবর্তীতে ধারাবাহিক চর্চার ভেতর দিয়ে বন্যপ্রাণীর অবদানের প্রতি নিজেদের দায়িত্বশীল সংস্কৃতি সম্পর্কে সচেতন হয়ে ওঠে। এই সংস্কৃতি বন্যপ্রাণীর প্রতি মানুষকে নতজানু হতে শেখায়, বন্যপ্রাণীর প্রতি ভালোবাসা ও দায়বদ্ধতার সম্পর্ক বিন্যস্ত করে। এভাবেই দেশের সমতল কী পাহাড়ে, গ্রামজনপদে এখনো অনেক মানুষ বিশ্বাস করে বন্যপ্রাণীরা এই পৃথিবীকে বাঁচিয়ে রাখছে। আর তাই বন্যপ্রাণীর সাথে মিলেমিশে একটা বৃহৎ সংসারের সদস্য হিসেবে মানুষকে বেঁচে থাকার অভ্যাস অর্জন করতে হবে। জবরদস্তি, লুন্ঠন, দখল বা বাণিজ্য নয়; প্রাকৃতিক নির্বাচনের বিজ্ঞানসূত্রকে সমুন্নত রাখার ভেতর দিয়েই বন্যপ্রাণ কী মানুষ সকলের ভেতরেই টিকে থাকার যোগ্যতা বিকশিত হোক নিরন্তর।  

পাভেল পার্থ, গবেষক, প্রতিবেশ ও প্রাণবৈচিত্র্য সংরক্ষণ। ই-মেইল : [email protected]

আইনিউজে প্রাণবৈচিত্র্য বিষয়ক ভিডিও

পোষ মানাতে হাতির বাচ্চাকে নির্মম প্রশিক্ষণ 

ভাইরাল অজগর সাপটি ছেড়ে দেওয়া হয়েছে লাউয়াছড়া বনে

হাতির আক্রমণে হাতি হত্যা মামলার আসামির মৃত্যু 

কৃষক ও ফিঙে পাখির বন্ধুত্ব (ভিডিও)

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়

শিরোনাম

শিরোনামনৌযান বানিয়ে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন ছোট কিশোর হাকিমুল শিরোনামকাউয়াদীঘি হাওরের জলাবদ্ধতা নিরসনে জেলা প্রশাসকের জরুরি বৈঠক শিরোনামবাংলাদেশে গম রপ্তানি করতে আগ্রহী রাশিয়া শিরোনামকোকাকোলার সাথে দুধ মিশালে তা পানির মত স্বচ্ছ দেখায় কেন? শিরোনামকাশিমপুর পাম্প হাউজ সচল রাখার দাবিতে মৌলভীবাজারে কৃষক সমাবেশ শিরোনামকেন তেলের দাম বৃদ্ধি- ব্যাখ্যার নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী শিরোনামশিক্ষা সপ্তাহে মৌলভীবাজারে শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ শিরোনামমৌলভীবাজারে করোনা প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালা ও মতবিনিময় সভা শিরোনামসাকিব-পাপনের সম্পর্কে ফাটল, প্রসঙ্গে বেটিং কোম্পানির সাথে চুক্তি শিরোনামবঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে মার্কিন যোগসাজশ শীর্ষক আলোচনা সভা শিরোনামমালিতে সন্ত্রাসী হামলায় ৪২ সেনার মৃত্যু শিরোনাম১০০ বোতল ফেন্সিডিল-গাঁজা নিয়ে নারীসহ একজন আটক শিরোনামরাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কলকাঠি নাড়ছে যুক্তরাষ্ট্র! শিরোনামবাংলাদেশি বন্দর হয়ে কলকাতা থেকে আসা প্রথম চালান গেলো মেঘালয়ে শিরোনামহোটেল রুমে পাওয়া গেলো নারী ডাক্তারের মৃতদেহ শিরোনামশ্রীমঙ্গলে মাদকাসক্ত ছেলেকে জেল হাজতে দিলেন মা শিরোনামশুদ্ধাচারে মৌলভীবাজারে শ্রেষ্ঠ যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা অমলেন্দু দাশ শিরোনামসান্তনাদায়ক জয় পেলো বাংলাদেশ শিরোনামসেন্সর বোর্ড আমাদের দেশে ফাঁসির রজ্জুর মতো: জয়া আহসান শিরোনামনবীগঞ্জে পরিমাপে কম দেয়ায় একাধিক ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা শিরোনামসংস্কারের অভাব, নবীগঞ্জ-মার্কুলী সড়কের দুর্ভোগ চরমে শিরোনামকুলাউড়ায় কলেজ ক্যাম্পাসে ঢুকে ভিডিও বানানোর সময় ২ ‘টিকটকার’ আটক শিরোনামভাড়া বৃদ্ধি হওয়ায় সিলেটের রেল স্টেশনগুলোতে বেড়েছে যাত্রীর চাপ শিরোনামডলারের বাজারে আগুন, বর্তমান দাম ১১৯ টাকা শিরোনামমৌলভীবাজারে কোন রুটে বাস ভাড়া কত? শিরোনামস্বেচ্ছায় রক্তদানের চেয়ে মহৎ কিছু হতে পারে না: মোস্তাফা জব্বার শিরোনাম২৫৬ রানের টার্গেট দিয়ে শুরুতেই ২ উইকেট তোলে নিলো টাইগাররা শিরোনামনব নির্মিত ব্রিজটি যেন হাজার মানুষের মরণ ফাঁদ! শিরোনামডলার সঙ্কট: খোলা বাজারে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে উঁচু দরে চলছে কেনাবেচা শিরোনামজাদরেল বাবার দুই মেয়ে অপহরণের নাটকীয় কাহিনী শিরোনামরাতের আঁধারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলো নিয়ন্ত্রণ করে কারা? শিরোনামবিআরটিতে মোটা বেতনে চাকরির সুযোগ! শিরোনামসরকারের রাজস্ব ফাঁকি; মৌলভীবাজারে অবাধে চলছে ডলার-পাউন্ড কেনাবেচা শিরোনামমান বাঁচানোর ম্যাচ বাংলাদেশ একাদশে ২ পরিবর্তন শিরোনামলোডশেডিং বাড়ছে লন্ডনেও শিরোনামসন্তান দেওয়ার কথা বলে নিঃসন্তান ভক্তকে ধর্ষণ করলেন ভণ্ড গুরু শিরোনামমেজোমামা খুব বোকা শিরোনামফের উত্তপ্ত রোহিঙ্গা ক্যাম্প, সন্ত্রাসীর গুলিতে ২ জনের মৃত্যু শিরোনামজেনে নিন বিশ্বের কোন দেশে জ্বালানির দাম কত? শিরোনাম‘স্মৃতির আঙিনায়’ জয়া আহসানের সাথে গল্পে মাতলেন বার্জার শিরোনামঅবৈধ পথে ইতালি স্বপ্নের যাত্রা, মৃত্যুর শোকে কাতর স্বজনরা শিরোনামবড়লেখায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালিত শিরোনামঠাকুরগাঁওয়ে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালিত শিরোনামযাত্রীবাহী লঞ্চ ও বাল্কহেড সংঘর্ষ; নিখোঁজ এক শ্রমিকের লাশ উদ্ধার শিরোনামশ্রীমঙ্গলে বর্ণাঢ্য আয়োজনে আদিবাসী দিবস পালিত শিরোনামসিলেটে ৫ পেট্রল পাম্পকে লাখ টাকা জরিমানা শিরোনামমজুরি বৃদ্ধির দাবিতে ৪২ চা বাগানে চা শ্রমিকদের কর্মবিরতি শিরোনামভয়াবহ সেশনজটের কবলে কুবির বিভিন্ন বিভাগ শিরোনামযাত্রীবাহী বাসে ডাকাতি-ধর্ষণ: মূলহোতাসহ ১০ আসামি ডিবির হাতে শিরোনামহঠাৎ ট্রাম্পের বাড়িতে এফবিআই`র হানা, সিন্দুক ভাংচুর শিরোনাম৫ম শ্রেণী পাশ, নেই কোনো ডিগ্রি, তবু তিনি ডিগ্রিধারী ডাক্তার শিরোনামমৌলভীবাজারে গাছ রোপনের শর্তে দুই আসামীকে মুক্তি দিলেন আদালত শিরোনামসিলেটে বিভাগীয় বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন মৌলভীবাজার ডিবেটিং সোসাইটি শিরোনামদুঃসংবাদ দিলো ফেসবুক, বন্ধ হচ্ছে লাইভে পণ্য বিক্রি শিরোনামদেশে করোনা শনাক্তের হার ৫ দশমিকের নিচে, ৩ জনের মৃত্যু শিরোনামআত্মপ্রত্যয়ী, অতুলনীয় ব্যক্তিত্বের অধিকারী বঙ্গমাতা: পরিবেশমন্ত্রী শিরোনামবঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ড : প্রত্যক্ষদর্শীর স্মৃতিচারণ শিরোনামগাজা ইসরায়েলের যুদ্ধবিরতি পর ৪৪ ফিলিস্তিনির প্রাণহানি শিরোনামবঙ্গমাতার জন্মদিনে মৌলভীবাজারে দুস্থ নারীদের চেক ও সেলাই মেশিন বিতরণ শিরোনামমৌলভীবাজারসহ সাত জেলায় বইছে তাপপ্রবাহ শিরোনামওজনে কম দেওয়ায় কুলাউড়ার পেট্রল পাম্পকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা শিরোনামসৌদিতে নির্যাতনের শিকার; দেশে ফেরার আকুতি হবিগঞ্জের তরুণীর শিরোনামকলেজছাত্রীর সঙ্গে স্কুলছাত্রের প্রেম, মামলা করলেন মেয়ের বাবা শিরোনামমুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের অভিযোগ: হাইকোর্টের নজরে আনলেন সুমন শিরোনামবঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পদক পেলেন ৫ নারী শিরোনামকবির শহর শিলচরে আন্তর্জাতিক গুণীজন সংবর্ধনা শিরোনাম‘মাদক বিজ্ঞানী’ সাঈদ কারাগারে শিরোনামমৌলভীবাজারে যুবলীগের প্রতিবাদ মিছিল শিরোনামঅভিজ্ঞতা ছাড়াই চাকরির সুযোগ! শিরোনামদেশে ফিরেছেন ৫৭ হাজার ৯শ হাজি শিরোনামবঙ্গমতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব: দ্য ফার্স্ট লেডি অব বাংলাদেশ শিরোনাম`আটটা বাজলেই বাত্তি অফ করি দেই` শিরোনামবিরোধের জেরে পুকুরে বিষ ঢেলে লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধনের অভিযোগ শিরোনামরাজনগরে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত শিরোনামসিলেটে মা-মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ আটক দুই শিরোনামঢাকায় শো করতে আসছে বিটিএস! শিরোনামএবার সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব শিরোনামএবার ট্রেনের ভাড়াও বাড়ানোর ইঙ্গিত রেলমন্ত্রীর শিরোনামসেপ্টেম্বর থেকে লোডশেডিং কমবে, আশা প্রতিমন্ত্রীর শিরোনামকরোনার কিট সাশ্রয়ী মূল্যে তৈরি করলো বাংলাদেশ শিরোনামলিডিং ইউনিভার্সিটির সামার সেমিস্টারের ক্লাস ১০ আগস্ট শুরু শিরোনামফেসবুকে পিস্তলের ছবি আপলোড, যুবক আটক শিরোনামমৌলভীবাজারে ওজনে ডিজেল কম, ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা শিরোনামতামিম বাহিনীর সামনে আজ সিরিজ বাঁচানোর মিশন শিরোনামবন্ধু দিবস আজ, কাছে আছে কী আপনার বন্ধুরা? শিরোনামএশিয়া কাপের দল ঘোষণার জন্য তিনদিন বেশি সময় পেলো বাংলাদেশ শিরোনামহিরো আলমকে ‘টিউনলেস’ বাংলাদেশি স্টার বললো আরব নিউজ শিরোনামসোমবার থেকে চীনের ভিসা পাবে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা শিরোনামসোমবার বরুণা মাদরাসায় আসছেন আওলাদে রাসুল সাইয়্যেদ আসজাদ মাদানী শিরোনামজ্বালানি তেলের উত্তাপ সবজি বাজারে শিরোনামদেশে আগে কখনো স্বর্ণের এতো দাম দেখেনি মানুষ! শিরোনামওসমানীনগরে তরুনীকে সংবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৩ শিরোনামবড়লেখায় নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ, দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা শিরোনামকানাডায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই প্রবাসী বাংলাদেশীর মৃত্যু শিরোনামমানবতাই শ্রেষ্ঠদান সমাজকল্যাণ সংস্থা’র ফ্রি ব্লাড ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত শিরোনামকাবুলে আইএসের হামলায় নিহত ৮ শিরোনামজ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধিতে সারাদেশে প্রতিবাদ শিরোনামবিশ্ববাজারে কমেছে জ্বালানি তেলের দাম শিরোনামসরকার আজ দানবে পরিণত : মির্জা ফখরুল শিরোনামজ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি: সিলেট-সুনামগঞ্জ রুটে ভাড়া বেড়ে ১৪০ টাকা শিরোনামকাপ্তাই লেকের পানিতে নেমে পর্যটকের মৃত্যু শিরোনামজ্বালানী তেলের দামের সাথে কমলগঞ্জে কাঁচা মরিচের দাম আকাশচুম্বী শিরোনামকরোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২, শনাক্ত ২২০ শিরোনামপুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, যুবলীগ নেতা আটক শিরোনামজ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নির্দয় ও নজীরবিহীন: জিএম কাদের শিরোনামঅনেক দেশের তুলনায় দেশে জ্বালানির দাম কম: তথ্যমন্ত্রী শিরোনামজ্বালানির দামবৃদ্ধি, নতুন ভাড়া নির্ধারণে বৈঠকে পরিবহন নেতারা শিরোনামহাওরে জলাবদ্ধতা নিরসন ও অপরিকল্পিত সেতু অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন শিরোনামতেল না পেয়ে বিক্ষোভ, সিলেটে সড়ক অবরোধ শিরোনামসিলেট রেলস্টেশনে হঠাৎ এবার সেই রনি শিরোনামজ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধি: সিলেটে পরিবহন সঙ্কট, ভোগান্তি শিরোনামজবি সোশ্যাল ওয়ার্ক ডিবেটিং ক্লাবের নেতৃত্বে আল-আমিন ও আসিফ শিরোনামআরেক দফা বাড়লো জ্বালানী তেলের দাম শিরোনামমৌলভীবাজারের লুৎফর রহমান বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক শিরোনামতারাকান্দায় শেখ কামালের জন্মবার্ষিকীতে পুস্তবক অর্পণ শিরোনামবানারীপাড়ায় শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত শিরোনামকুলাউড়ায় শতকোটি টাকার সেতুতে উঠতে লাগে বাঁশের মই! শিরোনামচীনকে ‘দুষ্ট প্রতিবেশী’ বললেন তাইওয়ানের প্রধানমন্ত্রী শিরোনাম‘শেখ কামালের নীতি অনুসরণ করে যুব সমাজ নিজেদেরকে গড়ে তুলবে’ শিরোনামজুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বদরুল হোসেন আর নেই শিরোনামহিরো আলমকে নিয়ে আরব নিউজের প্রতিবেদন শিরোনামওয়ানডেতে ৮ হাজার রান পূর্ণ করলেন তামিম ইকবাল শিরোনামচার ব্যাটসম্যানের ফিফটিতে টাইগারদের সংগ্রহ তিনশোর বেশি শিরোনামশেখ কামালের জন্মদিনে মৌলভীবাজারে সাইকেল ও গাছের চারা বিতরণ শিরোনামবাসটিতে তাঁকে ছয়বার ধর্ষণ করা হয়েছিল, জানালেন ভুক্তভোগী নারী শিরোনামরাতে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া, সকালে স্বামীর মরদেহ উদ্ধার শিরোনামমৌলভীবাজারের যুবকের কৌশল উদ্ভাবন রেললাইন থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন শিরোনামসিলেটে প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাবা-মেয়ে নিহত শিরোনামরাজনগরে যুক্তরাষ্ট্রের কাউন্সিলম্যানের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় শিরোনামমানি লন্ডারিং করে টাকার পাহাড় গড়েছেন সাবেক মন্ত্রীর এপিএস শিরোনাম‘সিলেট সাইট’ নামে ভয়ঙ্কর প্রতারণা, আটক ৩ শিরোনামডলারে অস্থিরতার সুযোগে অনিয়ম সিলেটে, বাংলাদেশ ব্যাংকের অভিযান শিরোনামসাংবাদিকের সাথে প্রধান শিক্ষকের অশালীন আচরণের অভিযোগ শিরোনামতাইওয়ানে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল ক্ষিপ্ত চীন শিরোনামআবারও মক্কায় কালো পাথর স্পর্শ-চুম্বনের সুযোগ পাচ্ছেন মুসল্লিরা শিরোনামশুক্রবার ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে শিরোনামকর্তৃপক্ষের আশ্বাসে কাজে ফিরলেন ওসমানীর ইন্টার্ন চিকিৎসকরা শিরোনামঠাকুরগাঁওয়ে নিখোঁজের ২১ ঘন্টা পর নদী থেকে শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার শিরোনামলুঙ্গি পরায় দেওয়া হয়নি সিনেপ্লেক্সের টিকেট, সেই বৃদ্ধকে খুঁজছেন নায়ক-নায়িকা শিরোনামপ্রেমের টানে বরিশালে, ‘দেশি প্রেমিকের’ হাতে মার খেয়ে পালালেন ভারতীয় প্রেমকান্ত শিরোনামচলন্ত বাসে দলবদ্ধ ধর্ষণ ও ডাকাতি: ভয়ঙ্কর সেই রাতের বর্ণনা শিরোনামড্রাইভিং লাইসেন্স করার নিয়ম শিরোনামমালয়েশিয়া পাঠানোর মতো পর্যাপ্ত কর্মী পাচ্ছে না বাংলাদেশ শিরোনাম২৪ ঘণ্টায় করোনায় দুজনের মৃত্যু, দুজনই সিলেটের শিরোনামপঞ্চাশ বছরে বিশ্বের অবনতি অনেক শিরোনামবন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারে মাঝে বিসিএস শিক্ষা ফোরামের অর্থ সহায়তা শিরোনামসাংবাদিককে হুমকি, জবি ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে জিডি শিরোনামবয়োবৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা, ইউপি সদস্য কারাগারে শিরোনামস্বামীর পরকীয়ার বলি অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী শিরোনামরাজনগর পুলিশের অভিযানে ৪ জুয়াড়িসহ আটক ৭ শিরোনামপিতা-পুত্রের অস্বাভাবিক মৃত্যু: ১০ দিনেও ফেরেনি মেয়ের জ্ঞান শিরোনামবাংলাদেশিরা যেভাবে গ্রিসে বৈধ হবেন শিরোনামমৌলভীবাজারে ছাত্রদলের মশাল মিছিল শিরোনামওসমানী মেডিকেলে দুই শিক্ষার্থীর ওপর হামলা: প্রধান আসামি গ্রেপ্তার শিরোনামসাপ্তাহিক চাকরির খবর শিরোনামমৌলভীবাজার সড়ক ব্যবহার করে জ্বালানি তেল-গ্যাস নেবে ভারত শিরোনামদেশে ফিরেছেন অর্ধ লক্ষ হাজি শিরোনামমৌলভীবাজারে ৬৭৮ জনকে ভুয়া ‘পুলিশ ক্লিয়ারেন্স’, তোলপাড়! শিরোনামযাত্রীবাহী বাস জিম্মি করে ডাকাতি, নারী যাত্রীকে ধর্ষণ! শিরোনামকমলগঞ্জে ছড়া থেকে বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার শিরোনামফের বাড়লো সোনার দাম শিরোনামকমলগঞ্জে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে বখাটে গ্রেফতার শিরোনামচুয়াডাঙ্গা সীমান্ত থেকে ৮০ হাজার ইউএস ডলার উদ্ধার শিরোনামনবীগঞ্জে বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন এসিল্যান্ড শিরোনামআমিরাতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রবাসী বাংলাদেশি নিহত শিরোনাম‘সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না’ শিরোনামরাস্তা দখল করে গড়ে ওঠেছে সার কারখানা, দুর্ভোগে এলাকাবাসী শিরোনামওসমানীতে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি অব্যাহত শিরোনাম‘নির্বাচন এসে গেছে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরাতে হবে’ শিরোনামপ্রবল উৎসাহে বৃক্ষমেলায় বিক্রি হচ্ছে পরিবেশের শত্রু ইউক্যালিপটাস গাছ শিরোনামপ্রয়াণ দিবসে গানে গানে কবিগুরুকে স্মরণ করবে মৌলভীবাজার শিরোনামরেফারিকে ঘুষি মারায় আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ আর্জেন্টিনার ফুটবলার শিরোনাম২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও ৭৭ জন হাসপাতালে শিরোনামবিদ্যুৎ সাশ্রয়ে দেশের সব মাদ্রাসাকে ৮ নির্দেশনা শিরোনামমৌলভীবাজারে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি’র খাদ্যসামগ্রী বিতরণ শিরোনামঅজ্ঞান পার্টির খপ্পরে খোদ পুলিশ কর্মকর্তা শিরোনাম২৪ ঘণ্টায় বাড়েনি মৃত্যু, কমেছে সংক্রমণ শিরোনামজাবিতে ৮ ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে সাংবাদিক নির্যাতনের অভিযোগ শিরোনামবন্যার পর এবার সুনামগঞ্জবাসীর দুর্ভোগ বাড়াচ্ছে নদীভাঙন শিরোনামপাকিস্তানের গণমাধ্যম বলছে- ‘শেখ হাসিনার থেকে শিখুন’ শিরোনামছিনতাইয়ের ১১ দিন পর উদ্ধার হলো জবির ছাত্রীর মোবাইল, আটক ৩ শিরোনামদেশের প্রথম মেট্রোরেলের চালক হবেন নোবিপ্রবির মরিয়ম আফিজা শিরোনামওয়াশিং মেসিনের ভেতরে মিলল শিশুর লাশ! শিরোনামতুরস্কের সীমানায় পৌঁছালো ইউক্রেনের প্রথম শস্যবাহী জাহাজ শিরোনামওসমানী মেডিকেলে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা, আন্দোলনে ইন্টার্ন চিকিৎসক ও শিক্ষার্থীরা শিরোনামমৌলভীবাজারে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ শিরোনামসন্তানের আগমনের অপেক্ষায় রাজ ও পরীমণি শিরোনামমাদককাণ্ডে ধরা পড়ে বাংলাদেশি কূটনৈতিক প্রত্যাহার ‘বিব্রতকর’: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শিরোনামনারীদের অন্তর্বাস তৈরি করতে ২ কোটি ৮০ লাখ ডলার বিনিয়োগ শিরোনাম১০ রানের জন্য সিরিজ হারের লজ্জা বাংলাদেশের শিরোনামকমলগঞ্জে সাংবাদিকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরি শিরোনামবিএনপিকে সঙ্গে রাখলেও তাদের হাতে ক্ষমতা দেওয়া যাবে না: নুর শিরোনামস্বজনদের চাপে ‘পদ্মা ও সেতু’র নাম বদলে রাখা হলো ইসলামিক নাম শিরোনামনামাজ পড়ার শর্তে ৩ বছরের জেল থেকে পরিত্রাণ শিরোনামরোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীর গুলিতে পুলিশ আহত শিরোনামমাদককাণ্ডে ধরা পড়ে জাকার্তা থেকে ফেরত আসলেন বাংলাদেশি কূটনীতিক শিরোনামআলী আমজদ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন শিরোনামচিরদিন আমি থাকবো না, কিন্তু অগ্রযাত্রা যেন অব্যাহত থাকে : প্রধানমন্ত্রী শিরোনামগ্রুপসেরা হয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ শিরোনামকমলগঞ্জে চার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তার জরিমানা শিরোনামএলপি গ্যাসের দাম কমেছে শিরোনামশেষ টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব মোসাদ্দেকের কাঁধে শিরোনামকর্মীরা চান হরতাল, ফখরুল বলেন, ‘আগে দখল করো’ শিরোনামযে কারণে শ্রীলঙ্কা হবে না বাংলাদেশ শিরোনামশুশুক বাঁচলে বেঁচে যায় গোটা জলজ জীবন চক্র শিরোনামমাশরুম চাষ শিখতে বিদেশ যাবেন ৩০ কর্মকর্তা, ব্যয় হবে ১ কোটি ২০ লাখ শিরোনাম‘আন্তর্জাতিক শান্তি পুরস্কার’ পেল বাংলাদেশ শিরোনামএকমাসে সড়কে প্রাণ গেলো ১৯০ জন শিক্ষার্থীর শিরোনামশোকাবহ আগস্টের দ্বিতীয় দিন আজ শিরোনামসিআইএ-র হামলায় শীর্ষ জঙ্গী নেতার মৃত্যু শিরোনামদ্য কনসার্ট ফর বাংলাদেশ: ইতিহাসে ভিন্নরকম এক সঙ্গীতায়োজন শিরোনামকমলগঞ্জে চক্ষু হাসপাতালের শুভ উদ্বোধন শিরোনামজুলাই মাসেই সড়ক খাতে ক্ষতি ৬৫৩ কোটি টাকা, ৮৭১ প্রাণহানি শিরোনামচালু হলো কুসুমবাগের গ্যাস পাম্প শিরোনামবাড়ি থেকে পালানো দুই ছাত্রী ১১ দিন পর নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধার শিরোনাম‘তারা নিজেরাই সন্তান পয়দা দিতে থাকুক, আমাদের আপত্তি নাই’ শিরোনামগোপনে খবর পেয়ে সাপুড়িয়ার কাছ থেকে ৪টি সাপ উদ্ধার শিরোনামরাণীশংকৈলে চাঞ্চল্যকর শিশু নিহতের ঘটনা শিরোনামএমসির গণধর্ষণ মামলার বিচার ট্রাইব্যুনালে নিতে উচ্চ আদালতে রিট শিরোনামবিশ্ববিদ্যালয়ের হল থেকে একের পর এক বেরিয়ে এলো সাপ! শিরোনামবৃষ্টিতে লুঙ্গি পরেই বানভাসিদের ঘর বাধার কাজে নামলেন তাসরিফ শিরোনামমৌলভীবাজারে ফেন্সিডিল ও গাঁজাসহ আটক ৩ শিরোনামদেশের বাজারে সারের দাম বেড়েছে আরও ৬ টাকা শিরোনামকুলাউড়া উপজেলা বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা শিরোনামবিরল রেকর্ড করে সাকিবের পাশে নাম লেখালেন সোফি শিরোনামফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা শিরোনামহবিগঞ্জে ড্রেস ছাড়া স্কুলে আসায় ছাত্রীকে শাস্তি, বরখাস্ত শিক্ষিকা শিরোনাম‘মানুষ ফ্যাসিবাদি আওয়ামী সরকারকে ভয় করবে না’ শিরোনামপ্রেমিকাকে খুশি করতে এটিএম বুথে চুরির চেষ্টা! শিরোনাম‘বিএনপি নেতারা হারিকেন নিয়ে আন্দোলন করছে’ শিরোনামভারতে মাঙ্কিপক্সে প্রথম মৃত্যু, বাংলাদেশে শঙ্কা শিরোনামশুরু হলো বাঙালীর শোকের মাস আগস্ট শিরোনামচোট পাওয়ায় জিম্বাবুয়ে সফর শেষ সোহানের শিরোনামশাবির ৭২ টি সিসি ক্যামেরার মধ্যে ৫৩ টিই বিকল শিরোনামমৌলভীবাজারে মাদক নিয়ন্ত্রণে মহাপরিকল্পনা শিরোনামলোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল শিরোনামগুণী শিল্পী সমরজিৎ রায়ের জন্মদিন পহেলা আগস্ট শিরোনামচলতি বছরের সেপ্টেম্বরেই উদ্বোধন হবে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের শিরোনামসমতায় ফেরার ম্যাচে টাইগারদের সামনে ১৩৬ রানের ছোট লক্ষ্য শিরোনামকুলাউড়ায় চোলাইমদসহ মাদক কারবারি আটক শিরোনামপুলিশ পরিচয়ে মালবাহী ট্রাকে চাঁদাবাজি, আটক ২ শিরোনামএসএসসি ও সমমান পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন শিরোনামছাত্রীনিবাসে পলিটেকনিক ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার শিরোনামমৌলভীবাজারের রোমানা বেগম, জাতীয় পরিচয়পত্রে জন্মস্থান ভেনেজুয়েলা! শিরোনামঅষ্টম শ্রেণী পাসে আকিজ গ্রুপে চাকরির সুযোগ! শিরোনামমোসাদ্দেকের ঘূর্ণিতে ধুঁকছে জিম্বাবুয়ে শিরোনামমৌলভীবাজারে টিকটক লাইভ করে মরে গেলেন নরসুন্দর শিরোনামভোলায় পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে ১ জনের মৃত্যু, অর্ধশতাধিক আহত শিরোনামকুলাউড়ায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু শিরোনামমৌলভীবাজারে বৃক্ষমেলার উদ্বোধন, চলবে ৬ আগষ্ট পর্যন্ত শিরোনামনয় বছর পর সিকৃবি ছাত্রলীগের কমিটি গঠন শিরোনামদুই ঘণ্টায় ১ ভোট, ঘুমিয়ে পড়লেন পোলিং অফিসার শিরোনাম১ বছরে আওয়ামী লীগের আয় ২১ কোটি ২৩ লাখ, ব্যয় ৬ কোটি শিরোনামসঙ্গীত শিল্পী নির্মলা মিশ্রের প্রয়াণ শিরোনামগাজীপুরে বাস-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ, ৫ জনের মৃত্যু শিরোনামরেকর্ড অষ্টমবার কোপার শিরোপা ঘরে তোললো ব্রাজিল শিরোনামগুচ্ছভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু শিরোনামফের করোনায় আক্রান্ত বাইডেন শিরোনামমৌলভীবাজার পৌর এলাকা থেকে লজ্জাবতী বানর উদ্ধার শিরোনামহার দিয়ে ক্যাপ্টেন্সি শুরু নুরুলের শিরোনামআড়াই বছরে রেলক্রসিংয়ে ১১৬ দুর্ঘটনায় ২১৯ জনের মৃত্যু শিরোনামকমলগঞ্জে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন শিরোনামএবার মাল্টার ভিসা পাওয়া যাবে ঢাকা থেকেই! শিরোনামবাংলালিংকে চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি শিরোনামমৌলভীবাজারে যন্ত্রসঙ্গীত উৎসবে সুরের মুর্ছনায় মাতলেন দর্শক শিরোনামঠাকুরগাঁওয়ে কবরস্থান থেকে ১৯ টি কঙ্কাল চুরি, আতঙ্কে এলাকাবাসী শিরোনামমক্কার রীতি ভেঙে কাবার গিলাফ পরিবর্তন হচ্ছে আজ শিরোনামকোম্পানিগঞ্জের আখলিমা বেগমের লাশ মিললো কুলাউড়ায় শিরোনামপাকিস্তান পুলিশের শীর্ষপদে প্রথম হিন্দু নারী মনীষা শিরোনামডেঙ্গুতে আরও ১ মৃত্যু, হাসপাতালে নতুন ভর্তি ৮৫ জন শিরোনাম‘ভালো শিল্পীর সুর থাকতে হয়, ডিবিরও মনুষ্যত্ব থাকতে হয়’ শিরোনামনুরুলের বাংলাদেশকে ২০৬ রানের লক্ষ্য দিল জিম্বাবুয়ে শিরোনামডিসেম্বরে উন্মুক্ত হবে বঙ্গবন্ধু টানেল শিরোনামদুলাভাইয়ের ধর্ষণের শিকার শ্যালিকা শিরোনামনিরাপদ রেলে মৃত্যুর মিছিল ও রনির আন্দোলন শিরোনামকুলাউড়ায় অজ্ঞাত নারীর মৃতদেহ উদ্ধার শিরোনামমৌলভীবাজারে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত শিরোনামকুলাউড়ায় মুসলিম প্রেমিকের হাত ধরে হিন্দু গৃহবধূর উধাও শিরোনাম২৪ ঘণ্টায় প্রায় সাড়ে তিনশো আক্রান্ত, মৃত্যু ৩ শিরোনাম৭ মাসে অবহেলায় ১০৫২ টি দুর্ঘটনা, ১৭৮ প্রাণহানি শিরোনামটস হেরে অধিনায়কের যাত্রা শুরু হলো সোহানের শিরোনামবাংলাদেশেও প্রবেশ করতে পারে মাঙ্কিপক্স ভাইরাস শিরোনামএই বাস্তুচ্যুত নাগরিকরা আমাদের বোঝা হয়ে দাঁড়াচ্ছে শিরোনামকেন্দ্রের নির্দেশনা না মেনে ফোন নিয়ে প্রবেশ শিক্ষার্থীদের শিরোনামপোর্টিয়াস উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮৮ ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষক সম্মাননা শিরোনামযুদ্ধবন্দী কারাগারে বোমা হামলা, পরস্পরকে দোষছে রাশিয়া-ইউক্রেন শিরোনামটাই পরা বাদ দিয়ে জ্বালানি সাশ্রয় করতে চান স্পেনের প্রধানমন্ত্রী শিরোনামমিরাজুলের হ্যাট্রিকে তুলোধোনো অবস্থায় হারলো মালদ্বীপ শিরোনাম‘গেটম্যান নামাজে ছিলেন’ : গেটম্যান সাদ্দামকে আসামি করে মামলা শিরোনামবঙ্গোপসাগরে ২৬টি মাছ ধরা ট্রলারে দুর্ধর্ষ ডাকাতি শিরোনামআইএফআইসি ব্যাংকের আছিরগঞ্জ বাজার উপশাখার উদ্বোধন শিরোনামসাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে প্রতিহতের ডাক শিরোনামসিলেটের ১১ থানায় চালু হচ্ছে অনলাইন জিডি শিরোনামঅনেকেই জানেন না, সিগারেটের বাংলা অর্থ কী? শিরোনামশাবিপ্রবি শিক্ষার্থী বুলবুল হত্যায় দু্ইজনের স্বীকারোক্তি শিরোনাম‘হাওয়া’ দেখতে দর্শকদের ভিড়, খোদ নায়িকা সিঁড়িতে বসে দেখলেন সিনেমা শিরোনামনায়েক সফিকে পিপিএম পদক পড়িয়ে দিলেন পুলিশ কমিশনার নিশারুল আরিফ শিরোনামডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আরও ৬৫ জন শিরোনামবাংলাদেশে ভারতের নতুন হাইকমিশনার প্রণয় কুমার ভার্মা শিরোনামইউক্রেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ৪০ ইউক্রেনীয় নিহত: রাশিয়া শিরোনামট্রেনের ধাক্কায় ১১ পর্যটকের মৃত্যু, ছিলেন না সিগন্যাল-লাইনম্যান শিরোনামআরও একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫৫ শিরোনামসেই প্রবাসী পরিবার রাতে বার্গার ও জুস খেয়ে ছিলো শিরোনামঢাকার লোকেরা সাদাসিধে হয়: মৌলভীবাজারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিরোনামইভিএম বাতিল ও নিরপেক্ষ সরকার চায় গণফোরাম শিরোনামআরেক দফা বাড়লো স্বর্ণের দাম শিরোনাম২০৩৩ সালে পৃথিবীতে মঙ্গল গ্রহের পাথর নিয়ে আসতে চায় নাসা শিরোনামমৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জের ২৮০৩ মুক্তিযোদ্ধা পাচ্ছেন স্মার্ট আইডি কার্ড শিরোনামশ্রীলঙ্কা থেকে সরে গেলো এশিয়া কাপ শিরোনামনবীগঞ্জ-হবিগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কে ১৫দিন ধরে বাস চলাচল বন্ধ শিরোনামআবারও চলন্ত বাসে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি, চালক আটক শিরোনামআ.লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে নড়াইলে সাম্প্রদায়িক হামলা: বিএনপি শিরোনামপ্রতিপক্ষের ছাগল জবাই করে গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতা শিরোনামএবার ‘হাওয়া’ সিনেমা নিয়ে কথা বললেন অনন্ত জলিল শিরোনামডলার মজুতকারীদের বিরুদ্ধে অভিযানে নামবে ডিবি শিরোনামএক বছরে আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি করেছে বিএনপি শিরোনামওয়ান ব্যাংকে চাকরির সুযোগ শিরোনামতুর্কি থেকে গ্রিসে অনুপ্রবেশ: দুর্ঘটনায় সিলেটের যুবক নিহত শিরোনামআমাদের চাহিদার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্যাপাসিটি আছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিরোনামপুলিশের গুলিতে মায়ের কোলেই ৯ মাসের শিশুর মৃত্যু শিরোনামসিলেটে যৌথ পরিবার টিকে থাকলেও নেই ঢাকায় শিরোনামদেশে ২৪ ঘণ্টায় কমেছে করোনায় মৃত্যু-সংক্রমণ শিরোনামজীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে উদ্ভিদ প্রজাতির জরিপ করছে সরকার : পরিবেশমন্ত্রী শিরোনামছাতকে বজ্রপাতে ১ জনের মৃত্যু শিরোনামফুটবল খেলা থেকে বাদ পড়তে পারে ‘হেড’ দেওয়া শিরোনামমাঙ্কিপক্স ঠেকাতে পুরুষদের সেক্স পার্টনার কমানোর পরামর্শ শিরোনামএই যুদ্ধ শুধু অস্ত্র উৎপাদনকারীদের লাভবান করছে শিরোনামদেশের বেশিরভাগ অবিবাহিত সিলেটে, ডিভোর্সে এগিয়ে রাজশাহী শিরোনামনেইমারকে ডেকেছেন স্প্যানিশ আদালত, হতে পারে জেলও শিরোনামঅনুমতি ছাড়া আর পুলিশের পোশাক পরবেন না হিরো আলম শিরোনামবৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে মনোযোগী হতে হবে শিরোনামবিশ্ব হেপাটাইটিস দিবস আজ শিরোনামমানবতাবিরোধী অপরাধে খুলনার ৬ আসামীর মৃত্যুদণ্ড শিরোনামমানবতাবিরোধী অপরাধে খুলনার ৬ আসামীর মৃত্যুদণ্ড শিরোনামদুটি সিএনজি স্টেশন চালু হলেও মৌলভীবাজারে কমেনি সিএনজি-টমটম ভাড়া শিরোনামদারিদ্রতার দেয়াল ডিঙিয়ে বুয়েটে মৌলভীবাজারের মাহি শিরোনামশুক্রবার মৌলভীবাজারে হবে যন্ত্রসঙ্গীত উৎসব শিরোনামস্কুল মাঠে আ.লীগের সম্মেলন, বিব্রত শিক্ষামন্ত্রী