ঢাকা, শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১ ১৪২৮

জবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৫:৪৮, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
আপডেট: ১৮:০৩, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

গবেষণায় অর্থ বরাদ্দের জন্য প্রকল্প প্রস্তাব চেয়েছে জবি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ২০২১-২২ অর্থবছরে গবেষণায় অর্থ বরাদ্দের জন্য প্রকল্প প্রস্তাব চেয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে জবির গবেষণা পরিচালক অধ্যাপক ড. পরিমল বালা স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০২১-২০২২ অর্থবছরে গবেষণা প্রকল্পে অর্থ বরাদ্দ দেবে জবি। আগ্রহী গবেষকদের ১০ অক্টোবরের মধ্যে ২ সেট প্রকল্প প্রস্তাব (এক কপি নামবিহীন) জমা দিতে হবে।

এতে বলা হয়, দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন ও সরাসরি প্রায়োগিক বিষয়ের সঙ্গে সম্পর্কিত প্রকল্পগুলো অর্থায়নের জন্য বিশেষভাবে বিবেচনায় নেয়া হবে। অগ্রাধিকার দেয়া হবে যৌথ প্রকল্পকে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, এরই মধ্যে যারা ২০২০-২০২১ অর্থবছরের প্রকল্প পেয়ে এখনও প্রতিবেদন জমা দেননি, তারা প্রতিবেদন জমা দেয়া সাপেক্ষে প্রকল্প প্রস্তাব জমা দিতে পারবেন। প্রকল্প প্রস্তাবের প্রোফর্মা সংযুক্ত করে দিতে হবে। এছাড়াও প্রোফর্মার সফট কপি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো উল্লেখ করা হয়েছে, প্রকল্প প্রস্তাবের সঙ্গে আলাদা পাতায় একটি বাজেট পেশ করতে হবে। একক প্রস্তাবের সর্বোচ্চ বাজেট দুই লাখ টাকা। যৌথ প্রকল্পের ক্ষেত্রে (শুধু বিজ্ঞান ও লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের জন্য) বাজেট তিন লাখ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। সরাসরি প্রায়োগিক বিষয়ের সঙ্গে সম্পর্কিত প্রকল্পগুলোর বাজেট বাড়ানো হতে পারে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা পরিচালক অধ্যাপক ড. পরিমল বালার সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়ের বড় পরিচয় গবেষণার মান দিয়ে। গবেষণার মান ভালো করার বিষয়ে বড় বিষয় হলো, রিচার্স ফ্যাসিলিটি থাকা। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে রিচার্স ফ্যাসিলিটি ডেভেলপ করার জন্য যে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, প্রথম কাজ হলো এক্সেলারেট করে সেটাকে ডেভেলপ করা। ”

কি কি উদ্যোগ নেয়া হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “সেন্ট্রাল রিচার্স ল্যাবরেটরি তৈরী করার চিন্তাভাবনা চলছে। এটা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার।”

গবেষণার ক্ষেত্রে বাজেটের ব্যাপার নিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ক্ষেত্রে বাজেট ২ কোটি থেকে ৫ কোটি টাকা হয়েছে। গবেষণার ক্ষেত্রে অনেক ম্যাটারিয়ালস কিনতে হয়। আগে অনেক সময় শিক্ষকদের টাকার অভাবে গবেষণায় সমস্যা হত। ফান্ড বাড়লে এ সমস্যা কমবে, কাজের মান বাড়বে। সবাই মিলে কাজ করলে গবেষণার মান বাড়বে ”

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা খাতে বরাদ্দ ছিল ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা। ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে এ খাতে বরাদ্দ ছিল ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

২০২০-২১ অর্থবছরে গবেষণা খাতে বরাদ্দ ছিল ২ কোটি টাকা। সবশেষ ২০২১-২২ অর্থবছরে গবেষণা খাতে ৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়।

আইনিউজ/রাকিবুল ইসলাম রিয়াদ/এসডিপি 

Green Tea
শিক্ষা ও ক্যাম্পাস বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়