ঢাকা, রোববার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৭

প্রকাশিত: ১৪:০৬, ১৯ অক্টোবর ২০২০
আপডেট: ১৯:৪৭, ১৯ অক্টোবর ২০২০

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ উপনির্বাচন

প্রার্থীর বিরুদ্ধে টাকা বিতরণের অভিযোগের সত্যতা মিলেছে

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ উপনির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী এম এ রহিম শহীদ (সিআইপি)-এর বিরুদ্ধে ভোটারদের টাকা বিতরণের সতত্য পেয়েছে জেলা নির্বাচন অফিস গঠিত তদন্ত কমিটি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা নির্বাচন অফিসার আলমগীর হোসেন।

জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি নির্বাচন কমিশনে পাঠিয়েছি। উধর্তন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এদিকে জানা গেছে, নির্বাচন বিধি অনুযায়ী অভিযুক্তের বিরুদ্ধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ছয় মাসের জেল ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা করতে পারেন।

জেলা নির্বাচন অফিস ও প্রার্থী সূত্রে জানা যায়, জেলা পরিষদ উপনির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মিছবাহু্র রহমান প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী এম এ রহিম শহিদ (সিআইপি)- এর বিরুদ্ধে রোববার (১৮ অক্টোবর) ভিডিও ফুটেজসহ ভোটারদের টাকা বিতরণের অভিযোগ করেন।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, মোটরসাইকেল মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী এম এ রহিম (সিআইপি) অবৈধভাবে ভোট আদায়ের জন্য শনিবার বিকেলে শ্রীমঙ্গল উপজেলা মেরিগোল্ড ফিলিং স্টেশন পেট্রোল পাম্পে ভোটারদের জড়ো করে ধাপে ধাপে টাকা বিতরণ করেন। খবর পেয়ে চশমা মার্কার প্রার্থী মিছবাহুর রহমানের সমর্থকেরা ঘটনাস্থলে গেলে এম এ রহিম তড়িঘড়ি করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। এ সময় মিছবাহুর রহমানের সমর্থকেরা পেট্রোল পাম্পের সিসিটিভি ফুটেজ চেক করে দেখেন এম এ রহিম স্বয়ং ভোটারদের টাকা বিতরণ করছেন। পরে মিছবাহুর রহমান ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে এর সত্যতা পান।

এ বিষয়ে মিছবাহুর রহমান সিসিটিভি ফুটেজসহ রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন।

এ ঘটনায়  শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে বলে জানান জেলা নির্বাচন অফিসার আলমগীর হোসেন।

চেয়ারম্যান প্রার্থী মিছবাহুর রহমান বলেন- নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন জানিয়েছি। তিনি বলেন, আমরা অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে বিশ্বাস করি। নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘণ ও অনিয়মের বিরুদ্ধে উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে বিশ্বাস করি। 

এদিকে রোববার রাত থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় টাকা বিতরণের ভিডিও ফুটেজ ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়।

এ বিষয়ে জানতে সোমবার (১৯ অক্টোবর) পৌনে ২টার দিকে চেয়ারম্যান প্রার্থী এম এ রহিম (সিআইপি) এর মোবাইল ফোনে প্রথমে ওয়েটিং (অপেক্ষমাণ), পরে রিং হলেও ফোন রিসিভ করা হয়নি।

তবে এম এ রহিম শহীদ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রেসবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছেন। এতে তিনি বলেন, ’আমার সম্মানিত প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী ও তার সহযোগিদের দিশেহারা ও উদ্ভট আচরণে আমি চরম উদ্বেগ উৎকন্ঠায়। তারা ক্ষমতার ধাপট দেখিয়ে বীরদর্পে নির্বাচনী আচর বিধিলঙ্ঘ করে উল্টো আমার বিরুদ্ধে ডাহা মিথ্যা, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও বানোয়াট তথ্য দিচ্ছেন।’

প্রসঙ্গত আগামীকাল ২০ অক্টোবর মঙ্গলবার মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ উপনির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এবং একটি সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। গত ১৮ আগস্ট মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে চেয়ারম্যান পদটি শূন্য হয়। 

সিসিটিভি ফুটেজ  লিংক : https://www.facebook.com/watch/?v=1560251580845277&t=0

আইনিউজ/জিআই

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়