ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৮ ১৪২৭

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০০:৩৩, ১ জুলাই ২০২০
আপডেট: ১২:২৩, ১ জুলাই ২০২০

মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে এইচএফএনসি সিস্টেম চালুর উদ্যোগ

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে এর সংক্রমণ। এ অবস্থায় মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসার জন্য হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা (এইচএফএনসি) ও মেনিফোল্ড অক্সিজেন সিলিন্ডার সিস্টেম চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে চিকিৎসকদের সংগঠন- বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)- এর মৌলভীবাজার শাখা।

এ উদ্যোগে সাড়া দিয়ে চিকিৎসক ও ব্যবসায়ীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন।

জানা যায়- বিএমএ মৌলভীবাজারের সভাপতি ডা. শাব্বির হোসেন খান প্রথমে এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেন। তিনি এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে প্রাথমিকভাবে দুটি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা ও মেনিফোল্ড অক্সিজেন সিলিন্ডার সিস্টেম চালুর পরিকল্পনা শেয়ার করেন।

এতে মৌলভীবাজারের চিকিৎসকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে এগিয়ে আসেন। এগিয়ে আসেন তরুণ ও নেতৃস্থানীয় ব্যবসায়ীরাও। এটি বাস্তবায়নের জন্য একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে

বিএমএ মৌলভীবাজারের সভাপতি ডা. শাব্বির হোসেন খান আই নিউজকে বলেন- ‘অনেকেই স্বতস্ফুর্তভাবে সাড়া দিয়েছেন। ইতিমধ্যে চিকিৎসকরা প্রায় তিন লক্ষ টাকারও বেশি জমা করেছেন। এছাড়া স্থানীয় ব্যবসায়ীরাও অর্থ দিয়ে সহায়তা করেছেন। এরইমধ্যে ১৫-১৬ লাখ টাকা জমা হয়ে গেছে। দুটি হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা স্থাপন করতে ২০-২২ লাখ টাকা এবং কক্ষের রোগী ও চিকিৎসা কর্মীদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করতে আরো ৫-৬ লাখ টাকার প্রয়োজন হবে। আশা করছি আমরা খুব দ্রুতই এটা স্থাপন করতে পারবো।’ 

তিনি বলেন- ‘২০ শতাংশ করোনা রোগীদের অক্সিজেন সাপোর্টের জন্য হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা ব্যবহার করতে হয়। মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে এটি স্থাপন করতে পারলে জেলার করোনা রোগীদের চিকিৎসায় বড় ধরনের সহায়তা হবে।’ 

বিএমএ এবং দি চেম্বার অব কমার্স, মৌলভীবাজারের সাবেক সভাপতি ডা. এম এ আহাদ বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি এইচএফএনসি স্থাপনের পাশাপাশি একটা আইসিইউ ইউনিট স্থাপন করা যায় কি না।  এ উদ্যোগে অনেকেই এগিয়ে এসেছেন। আমেরিকা থেকে দি অপটিমিস্ট হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলার জন্য অর্থ সহায়তা দিয়েছে।। ঢাকাস্থ মৌলভীবাজার সমিতি এবং জালালাবাদ সমিতি কাজ করছে।’

এ উদ্যোগের অন্যতম উদ্যোক্তা- শহরের তরুণ ব্যবসায়ী সুমন আহমদ এবং মনোয়ার আহমদ রহমান এ উদ্যোগে বিত্তবান এবং প্রবাসীসহ জেলাবাসীকে যার যার অবস্থান  থেকে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান। 

এ উদ্যোগে অর্থ সহায়তা দিতে আগ্রহীরা ‘মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে HFNC প্রদান ও স্থাপন বাস্তবায়ন কমিটির কোষাধ্যক্ষ মনোয়ার আহমেদ রহমানের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। (মোবাইল-০১৭১১২৭১৩৯৫)।

উল্লেখ্য, সিলেট বিভাগের সরকারি কিংবা বেসরকারি, কোন হাসপাতালেই এই হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা নেই। এটা না থাকার কারণে যে সব রোগীর উচ্চ মাত্রার অক্সিজেন প্রয়োজন, তাদেরকে আইসিইউ’তে ভর্তি করে কিংবা ভেন্টিলেটর লাগিয়ে উচ্চ মাত্রার অক্সিজেন দিতে হয়। 

এইচকে/ আই নিউজ

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়