ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৯ ১৪২৭

বৈচিত্র্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৫৬, ২৬ জুলাই ২০২০
আপডেট: ১১:০৬, ২৬ জুলাই ২০২০

হুট করেই কমেছে ভূকম্পন, বদলে গেছে গোটা পৃথিবী

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে নাকাল গোটা বিশ্ব। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বিশ্বজুড়ে শত শত কোটি মানুষ এখন কাজকর্ম ছেড়ে ঘরে বসে আছেন। এর ফলে বদলে গেছে পৃথিবী। কারণ মানুষ বের হচ্ছে না বাহিরে। গাড়ি-ট্রেন চলছে খুবই কম, লাখ লাখ ভারি শিল্প-কারখানা এখন বন্ধ। আর এর ফলে, ভূ-পৃষ্টের ওপর চাপ কমে গেছে অনেক। ফলে পৃথিবী কাঁপছে কম। মাইলের পর মাইল রাস্তায় হাতেগোনা কিছু মানুষ পাওয়া যায়। করোনাভাইরাস রুখতে বিশ্বজুড়ে এই লকডাউনের ফলে পৃথিবীর গতিবিধিও বদলে গেছে।

গবেষকদের একটি দল বলছে, মানবসৃষ্ট ভূকম্পন বিশ্বজুড়ে ৫০ শতাংশ কমে গেছে। প্রাকৃতিক উৎস থেকে বিজ্ঞানীরা এখন পরিষ্কারভাবেই সিসমিক সিগন্যাল শুনতে পাচ্ছেন। এসব প্রাকৃতিক উৎসের মধ্যে রয়েছে ছোট ভূকম্পন ও আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত। খবর সিএনএন'র।

পৃথিবীর কাঁপুনি যে কমে গেছে তা প্রথম লক্ষ্য করেন বেলজিয়ামের রয়্যাল অবজারভেটরির বিজ্ঞানীরা। তারা বলেন - "লকডাউনের আগের তুলনায় ১-২০ হার্টস ফ্রিকোয়েন্সিতে (বড় একটি অর্গানের আওয়াজের যে ফ্রিকোয়েন্সি) ভূ-পৃষ্ঠের দুলুনি এখন অনেক কম।"

লকডাউনে শুধু ভূমিকম্প কমেছে তা নয়, বদলে গেছে পৃথিবীর প্রকৃতি। স্যাটেলাইটের চিত্রে দেখা গেছে, পরিবেশ দূষণের পেছনে যার বড় ভূমিকা রয়েছে সেই নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড গ্যাস বাতাসে পরিমাণ অনেক কম। কারণ গাড়ির ধোঁয়া, কারখানার ধোঁয়া এখন অনেক কম। একারণে বাতাস দূষিত হচ্ছে না।  স্যাটেলাইটের চিত্রে দেখা গেছে, পরিবেশ দূষণের পেছনে যার বড় ভূমিকা রয়েছে সেই নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড গ্যাস এখন বাতাসে অনেক কম।

আইনিউজ/টিএ

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়