ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৮ জুন ২০২২,   আষাঢ় ১৪ ১৪২৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯:০৯, ১৪ আগস্ট ২০২০

ভারতের স্বাধীনতা দিবস শনিবার

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

আগামী ১৫ আগস্ট ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করবে ভারত। ১৯৪৭ সালের এই দিনে অত্যাচারী ব্রিটিশ শাসন থেকে মুক্তি পেয়েছিলো ভারত। সারাদেশে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত করে দেশটি।

ভারতের স্বাধীনতা দিবসের আকর্ষণীয় বিষয়টি হচ্ছে, পতাকা উত্তোলন ও লাল দুর্গ থেকে জাতির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী ভাষণ। প্রতি বছর সারা দেশে ধর্মীয়ভাবে পালন করা হয় স্বাধীনতা দিবস। এই দিনে ভারতের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করা নেতাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানায় ভারতবাসী। পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠান, মহড়া, এবং ভারতীয় জাতীয় সংগীত ‘জন গণ মন’ গেয়ে সারা ভারত জুড়ে পালিত হয় দিনটি। তবে চলতি বছরে বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে উদযাপনগুলো সীমিত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

১৭৫৭ সালে পলাশীর যুদ্ধে ইংলিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিজয়ের মাধ্যমে ভারতে  ব্রিটিশ শাসন শুরু হয়। সামরিক শক্তি দিয়ে ভারতের রাজ্যগুলোকে পরাধীন করে নিজেদের প্রভাবশালী শক্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় ভারতে স্বাধীনতা আন্দোলন শুরু হয়। মহাত্মা গান্ধীর নেতৃত্বে শুরু হয় এ আন্দোলন। এরপর ১৯৪৭ সালে ভারতীয়দের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করার ঘোষণা দেয় ব্রিটিশ সরকার। ১৯৪৮ সালের জুনের মধ্যে সব ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা জানায় তারা।

অবশেষে, ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট ভারতকে ব্রিটিশ উপনিবেশবাদ থেকে স্বাধীন ঘোষণা করা হয়। ভারতকে নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা দেশটির নেতাদের হাতে তুলে দেয়া হয়।
 
জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণের সময় স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী। ভারতের বিগত বছরের অর্জনসমূহ তুলে ধরেন। গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করেন। ভবিষ্যতে দেশের আরো উন্নয়ন করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

ভারতজুড়ে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও অনেক সংস্থায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠান এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তবে মহামারির কারণে এই বছর ভিন্নভাবে উদযাপিত হবে দিনটি।

সূত্র- ইন্ডিয়া টুডে, নিউজ ১৮

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়