ঢাকা, রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১,   চৈত্র ২৮ ১৪২৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১১:৫০, ৭ এপ্রিল ২০২১
আপডেট: ১১:৫০, ৭ এপ্রিল ২০২১

আবারও সড়কে বাস, কমেছে রিকশা-অটোরিকশার রাজত্ব

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে লকডাউন তথা চলাচলে বিধিনিষেধ দিলেও নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বুধবার থেকে ঢাকা এবং অন্যান্য মহানগরীতে বাস চলাচল শুরু হয়েছে।

বাস চলাচল শুরু হওয়ায় সড়কে কমেছে রিকশা-অটোরিকশার দাপট। কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে কর্মমুখী মাঝে।

বুধবার সকাল থেকেই ঢাকা শহরের বিভিন্ন রাস্তায় বহু বাস চলাচল করতে দেখা গেছে। বাসগুলোতে ভোর থেকেই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক যাত্রী পরিবহন লক্ষ্য করা গেছে।

তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে পরিবহন সংশ্লিষ্টরা বরাবরের মতোই উদাসীন। এছাড়া অর্ধেক যাত্রী বহনের শর্ত থাকায় বেলা বাড়তেই অনেকেই বাসে উঠতে পারেননি।

করোনার বিস্তার রোধে শর্ত সাপেক্ষে সোমবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য সার্বিক কার্যাবলি/চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে গত রবিবার প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরই অংশ হিসেবে গণপরিবহন বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এদিকে অফিস ও শিল্পকারখানা খোলা রেখে গণপরিবহন বন্ধ রাখায় দুর্ভোগে পড়েন কর্মমুখী লোকজন। গাড়ি না পেয়ে রাজধানীর কিছু এলাকায় সড়ক আটকে বিক্ষোভও করেছেন তারা।

পরে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনের মাথায় এসে মঙ্গলবার ঘোষণা করা হয়, বুধবার থেকে ঢাকা এবং অন্যান্য মহানগরীতে গণপরিবহন চলবে। সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এই চলাচলের সুযোগ থাকবে।

তবে এ সময় পাবলিক বাসগুলোতে ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করা হবে। এছাড়া দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।

এর আগে ৩০ মার্চ করোনা পরিস্থিতিতে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব অনুমোদন করে।

সোমবার থেকে লকডাউন শুরুর পর কেবল গণপরিবহন ছাড়া অন্য সব ধরনের বাহন রাস্তায় চলাচল করছিল। তবে এখনো ট্রেন, লঞ্চ এবং অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল বন্ধ থাকবে।

আইনিউজ/এসডি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়