ঢাকা, রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৭


কোন কৌশলে মিয়ানমার?
চিরবৈরী ভারত-চীন

কোন কৌশলে মিয়ানমার?

যখন হাতিরা লড়াই করে, তখন ঘাসের ক্ষতি হয়, কিন্তু তারা যখন প্রেম করে, তখনও ঘাসই ক্ষতিগ্রস্ত হয়! উক্তিটি সিঙ্গাপুরের প্রতিষ্ঠাতা লি কুয়ান ইয়ুর

শুক্রবার, ২০ নভেম্বর ২০২০, ১৭:২৫

বর্তমান বিশ্ব বাস্তবতায় এলএনজি ও বাংলাদেশ

বর্তমান বিশ্ব বাস্তবতায় এলএনজি ও বাংলাদেশ

সাসটেইনেবল এনার্জি বর্তমান বিশ্বে অন্যতম আলোচিত বিষয়, এর সাথে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত কার্বন-ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ। বর্তমান বিশ্ব চায় কার্বন-ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ মুক্ত সাসটেইনেবল এনার্জি, যা এসডিজি-৭ অর্জন করতে অন্যতম ভূমিকা পালন করবে। 

শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৫৮

আর কতকাল?

আর কতকাল?

খবরের শিরোনামটি দেখে আমি শিউরে উঠেছিলাম—একজন মানুষকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। আমি ভাবলাম, না জানি কোন দেশে এরকম একটা ভয়ঙ্কর ঘটনাটি ঘটেছে, আমাদের দেশে তো কখনও এরকম নিষ্ঠুরতা হয় না। খবরের ভেতরে চোখ বুলিয়ে আমি হতবুদ্ধি হয়ে গেলাম। এই ভয়ঙ্কর ঘটনাটি আমার দেশের ঘটনা, লালমনিরহাটে অক্টোবরের ২৯ তারিখে ঘটেছে। যতই খবর আসতে থাকলো ততই এটি আরও অবিশ্বাস্য এবং আরও ভয়ঙ্কর মনে হতে থাকলো। শহীদুননবী জুয়েল নামের যে মানুষটিকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে তিনি ধর্মপ্রাণ মানুষ, পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন। কোরআন শরিফের অবমাননা করেছেন অপবাদ দিয়ে তাকে এভাবে হত্যা করা হয়েছে। খবরের যে অংশটি সবচেয়ে হৃদয়বিদারক সেটি হচ্ছে যখন তাকে অসংখ্য মানুষ মিলে আক্রমণ করেছে তখন তাকে উদ্ধার করে কোনও একটি অফিসে নিয়ে আসা হয়েছিল, কিন্তু তারপরেও উন্মত্ত জনতার হাত থেকে তাকে রক্ষা করা যায়নি, তারা সেখান থেকে তাকে ছিনিয়ে নিয়ে হত্যা করেছে। তাহলে কী মেনে নিতে হবে আমাদের দেশে আসলে কোনও মানুষের নিরাপত্তা নেই? একজন নিরপরাধ মানুষের বিরুদ্ধে একটা অপবাদ দিয়ে কিছু মানুষকে উন্মত্ত করে ফেলে যখন খুশি তাকে মেরে ফেলা যাবে? পুলিশ র‍্যাব গিয়েও তাকে বাঁচাতে পারবে না? ছেলেধরা অপবাদ দিয়ে আমরা কী এর আগে একজন নিরপরাধ মহিলাকেও হত্যা করার ঘটনা দেখিনি?

শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর ২০২০, ১১:০৯

এই অন্যায়টা পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও হয়

এই অন্যায়টা পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও হয়

বুধবার, ১১ নভেম্বর ২০২০, ১৪:০৭

পরশ্রীপুলক

পরশ্রীপুলক

না—বাংলা ভাষায় “পরশ্রীপুলক” বলে কোনও শব্দ নেই। তবে আমার খুব শখ “পরশ্রীকাতর”-এর বিপরীত শব্দ হিসেবে বাংলা ডিকশনারিতে “পরশ্রীপুলক” বা এ ধরনের কোনও একটা শব্দ যেন জায়গা করে নেয়! বঙ্গবন্ধু তাঁর অসমাপ্ত আত্মজীবনীতে পরশ্রীকাতর শব্দটি নিয়ে অনেক দুঃখ করেছেন। লিখেছেন, “পরের শ্রী দেখে যে কাতর হয় তাকে ‘পরশ্রীকাতর’ বলে। ঈর্ষা, দ্বেষ সকল ভাষায়ই পাবেন, সকল জাতির মধ্যেই কিছু কিছু আছে, কিন্তু বাঙালিদের মধ্যে আছে পরশ্রীকাতরতা।

শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৩:২৮

নয়া পৃথিবীর নয়া অর্থনীতি

নয়া পৃথিবীর নয়া অর্থনীতি

অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের কৌশলে কৃষিই নেতৃত্ব দেবে। আগামী দিনে বিশ্বজুড়ে কৃষির শক্তিমত্তা আরও বাড়বে। বাংলাদেশ তো এই দৌড়ে আশপাশের সহযোগী দেশগুলোর চেয়ে অনেকটা এগিয়ে রয়েছে।

শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৩:২০

আমাদের গ্লানি, আমাদের কালিমা

আমাদের গ্লানি, আমাদের কালিমা

বাংলা ভাষায় ধর্ষণ থেকে ভয়ঙ্কর কোনও শব্দ আছে কিনা আমার জানা নেই। একটা সময় ছিল যখন এই শব্দটি লিখতে আমার কলম সরতো না, ‘নির্যাতন’ বা এই ধরনের অন্য কোনও শব্দ ব্যবহার করে বিষয়টা বোঝানোর চেষ্টা করতাম। আমি নিজের জন্য একটা খোঁড়া যুক্তি দাঁড় করিয়েছিলাম, নিজেকে বোঝাতাম, আমি সাধারণত বাচ্চাকাচ্চাদের জন্য লিখি বলে তারা আমার নাম দেখলেই সেই লেখাটা পড়ে ফেলার চেষ্টা করে। এত বাচ্চা বয়সে তাদের এরকম ভয়ঙ্কর একটা বিষয় জানানো মনে হয় ঠিক হবে না। এখন সেই যুক্তিটি আর কাজে আসবে না—খবরের কাগজ, ম্যাগাজিন, টেলিভিশন, ইন্টারনেট, আলাপ-আলোচনা, জনসভা, মানববন্ধন, আন্দোলন সব জায়গায় সবচেয়ে বেশিরভাগ সময়ে সবচেয়ে বেশিবার উচ্চারিত শব্দটি হচ্ছে ‘ধর্ষণ’। শিশু থেকে বৃদ্ধ কারোরই এ শব্দটি শুনতে এবং এ বিষয়টি জানতে বাকি নেই।

শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪৯

সঠিকভাবে হাত ধুতে পারলেই বাঁচবে লক্ষ শিশুর প্রাণ

সঠিকভাবে হাত ধুতে পারলেই বাঁচবে লক্ষ শিশুর প্রাণ

‘খাবার গ্রহণ করার আগে দেশের মাত্র ৪০ ভাগ মানুষ সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে থাকে। খাবার তৈরি ও পরিবেশনের আগে হাত ধুতে মাত্র ৩৬ ভাগ মানুষ সাবান ব্যবহার করছে। মলত্যাগের পর হাত ধোয়ায় সাবান ব্যবহার করছে ৫৫ ভাগ’- বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) ‘ন্যাশনাল হাইজেনিস সার্ভে-২০১৯’ প্রতিবেদন যখন এরকম হতাশাজনক পরিস্থিতির অবতারণা করছে তখন পৃথিবীর অন্যান্য দেশের সাথে বাংলাদেশেও আজ পালিত হচ্ছে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস।

বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর ২০২০, ২২:৪৪

আমি ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ড ও ক্রস ফায়ার চাই না

আমি ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ড ও ক্রস ফায়ার চাই না

রোববার, ১১ অক্টোবর ২০২০, ১৬:০৬

ক্রসফায়ারের ‘গণদাবি’ ও নাগরিক অসহিষ্ণুতা

ক্রসফায়ারের ‘গণদাবি’ ও নাগরিক অসহিষ্ণুতা

সক্রেটিস বলেছিলেন রাষ্ট্র কার? শক্তিমানের না দুর্বলের? — রাষ্ট্র দুর্বলের। কারণ শক্তিমান নিজেই নিজেকে রক্ষা করতে পারে। দুর্বলের স্বার্থ রক্ষার জন্যই রাষ্ট্র। আর রাষ্ট্র মানে নীতিমালা। বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠানের সমষ্টি। আইনের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা জাল।

বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর ২০২০, ০০:৫৮

হাওয়াই মিঠাই আন্দোলনে সমাজ পরিবর্তন হবে না

হাওয়াই মিঠাই আন্দোলনে সমাজ পরিবর্তন হবে না

‘গ্রেপ্তার চাই’, ‘বিচার চাই’, ‘ক্রসফায়ার চাই’ টাইপের একদিনের আন্দোলন করা সোজা। বিকেলে একটা জমায়েত ডাকলে এর আগে দুপুরেই খবর পাওয়া যায় যে গ্রেপ্তার হয়েছে, রিমান্ড হয়েছে। ডাকার আগেই আন্দোলন সফল। তারপর আর কী হয় কেউ জানে না। 

মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর ২০২০, ২১:১৩

শিশুর জন্য বিশ্ব গড়ি

শিশুর জন্য বিশ্ব গড়ি

“মানব জাতির সর্বোত্তম যা কিছু দেয়ার আছে, শিশুরাই তা পাওয়ার যোগ্য”- ১৯২৪ সালে লীগ অব নেশনস-এর জেনেভা কনভেনশনে সর্বপ্রথম শিশুদের কল্যাণের কথা ভেবে উচ্চারিত হয়েছিল এই মহান ঘোষণা। তারপর কেটে গেছে ৯৬টি বছর।

সোমবার, ৫ অক্টোবর ২০২০, ১৩:৪১

চার কোটি বাঙালি—মানুষ একজন

চার কোটি বাঙালি—মানুষ একজন

আমাদের ছেলেবেলায় আমরা রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, বিদ্যাসাগর কিংবা মহাত্মা গান্ধীর মতো মানুষদের সঙ্গে নিয়ে বড় হয়েছি। ভালো করে কথা বলা শেখার আগে রবীন্দ্রনাথের কবিতা মুখস্থ করতে হয়েছে, কথা বলা শেখার পর নজরুলের কবিতা। ল্যাম্পপোস্টের নিচে বসে বিদ্যাসাগর পড়ালেখা করতেন

শুক্রবার, ২ অক্টোবর ২০২০, ১৪:৪৪

অগ্রগতির পথে আলোকের রথে শেখ হাসিনা

অগ্রগতির পথে আলোকের রথে শেখ হাসিনা

বাংলাদেশ হতদরিদ্র অবস্থান থেকে উন্নয়নশীল দেশের পথে। এই করোনা মহামারিতেও বিশ্ব উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ তার অবস্থানকে আরও সুদৃঢ়ভাবে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তা যে কারও কাছে অভাবনীয় মনে হতেই পারে। এক কথায় দেশ হিসেবে বাংলাদেশ এবং এর নেতা হিসেবে শেখ হাসিনা বিশ্ব পরিম-লে ক্রমশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছেন।

সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:৪৭

সবকাজে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ লাগবে কেন? -ড. জফির সেতু

সবকাজে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ লাগবে কেন? -ড. জফির সেতু

অপরাধ ছাত্রলীগের কর্মীরা করেছে না কে করেছে সেটা দেখা কি খুব প্রয়োজন? আপনাকে প্রকৃত অপরাধীদেরই খুঁজে বের করতে হবে এবং শাস্তির আওতায় আনতে হবে। এরজন্য প্রয়োজন আপনার পেছনে হমোস্যাপিয়েন্সের একটি শক্ত মেরুদণ্ড! এটি হলেই অপরাধীকে আপনি সহজেই খুঁজে পেতে পারেন; পারেন আইনের আওতায় আনতে; এমনকি শাস্তি দিতেও। একজন দায়িত্বশীল মানুষ হিসেবে এটা আপনার-আমারও ওপরে বর্তায়। 

শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:১৩

রবীন্দ্রনাথ ও সৈয়দ মুজতবা আলী

রবীন্দ্রনাথ ও সৈয়দ মুজতবা আলী

১৯২১ খ্রিস্টাব্দের জুলাই মাসে শান্তিনিকেতনে পড়তে যাওয়া প্রথম মুসলিম শিক্ষার্থী সিলেটের সৈয়দ মুজতবা আলী। একই বছরের পহেলা জুলাই দ্বারোদঘাটন হচ্ছে তৎকালীন পূর্ব বাংলার মানুষের দীর্ঘ দিনের আন্দোলনের ফসল, ভবিষ্যতে বাঙালি জাতির আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতীক হয়ে উঠবে যে প্রতিষ্ঠান সেই— ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৪৬

একজন তারিক আলী

একজন তারিক আলী

যখন আমাদের দেশে করোনার মহামারি শুরু হয়েছিল তখন এই ভাইরাসটিকে একটি নির্বোধ ভাইরাস ছাড়া বেশি কিছু ভাবিনি। পৃথিবীর অনেক দেশ থেকে আমাদের দেশে মৃত্যুর হার অনেক কম বলে মাঝে মাঝে খানিকটা সান্ত্বনাও পাওয়ার চেষ্টা করেছি, কিন্তু যতই দিন যাচ্ছে গভীর বেদনা নিয়ে আবিষ্কার করছি এই ভাইরাসটি বেছে বেছে আমাদের প্রিয় মানুষগুলোকে নিয়ে যাচ্ছে। এ রকম সর্বশেষ মানুষ হচ্ছেন জিয়াউদ্দিন তারিক আলী, আমাদের “তারিক ভাই”। যখন তাঁর চলে যাওয়ার খবরটির সাথে সাথে কম্পিউটারের স্ক্রিনে তার ছবিটি ভেসে উঠলো আমি একেবারে স্তব্ধ হয়ে গেলাম। একবারও ভাবিনি তিনি এভাবে চলে যাবেন। খবরটি পড়েও বিশ্বাস হতে চায় না।

রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:১৩

লেখাপড়ার সুখ-দুঃখ এবং অপমান

লেখাপড়ার সুখ-দুঃখ এবং অপমান

আমি খুব আশাবাদী মানুষ, খুব মন খারাপ করা কোনও ঘটনাও যদি ঘটে তখনও আমি নিজেকে বোঝাই এটি বিচ্ছিন্ন একটি ঘটনা, তখনও আমি ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখে অপেক্ষা করতে পারি। আমি সহজে হতাশ হই না, আশাহত হই না, মনে দুঃখ পাই না। বেশি আশাবাদী হয়ে আমার কোনও ক্ষতি হয়নি—সবচেয়ে বড় কথা যেসব বিষয় নিয়ে আশাবাদী ছিলাম তার প্রায় সবগুলোই সত্যি হয়েছে।

শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৩২

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কুকুর স্থানান্তরকরণ ও ভবিষ্যৎ

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কুকুর স্থানান্তরকরণ ও ভবিষ্যৎ

সম্প্রতি ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এর মাননীয় মেয়র তাঁর এলাকার মানুষের আরামের জন্য সকল কুকুর স্থানান্তর করণের নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি সাধারণ মানুষের মহলে কেমন প্রভাব ফেলেছে জানিনা কিন্তু প্রাণিকল্যাণে কাজ করে যাওয়া নিবেদিত মানুষগুলোর মনে অতি অবশ্যই প্রভাব ফেলেছে। এবং সেই প্রভাব যে স্বস্তি বা শান্তির তা বলা যাবেনা; বরং উল্টোটাই বলা ভালো। আমি নিজেকে একজন ভেটেরিনারিয়ান হিসেবে পরিচয় দিতে ভালোবাসি। প্রাণিদের আচার আচরণ (এনিমেল বিহেভিয়ার) ও প্রাণিকল্যাণ (এনিমেল ওয়েলফেয়ার) নিয়ে লেখাপড়া আমার জন্য একটা আনন্দের জায়গা। আর এই দুই বিষয়ে পড়তে গেলে পরিবেশ ও বাস্তুসংস্থান নিয়ে আলোচনা চলেই আসে। আজকে এই চার বিষয়ের দৃস্টিকোণ হতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এর এই সিদ্ধান্ত বা প্রস্তাবের যৌক্তিকতা নিয়ে আলোচনা করবো।

সোমবার, ৩১ আগস্ট ২০২০, ০০:৩৫

অভিশপ্ত আগস্ট

অভিশপ্ত আগস্ট

একটা মাস কিংবা বছর, কিংবা একটা তারিখ আসলে সত্যি সত্যি কখনও অভিশপ্ত হতে পারে না। যদি সত্যি সত্যি কেউ এরকম কিছু একটা বিশ্বাস করে তাহলে সেটা এক ধরনের কুসংস্কার ছাড়া আর কিছুই না। তারপরেও পৃথিবীতে এরকম কুসংস্কারের কোনও অভাব নেই। বিজ্ঞানমনস্ক আধুনিক পশ্চিমা জগত অশুভ মনে করে ১৩ সংখ্যাটিকে খুবই যত্ন করে এড়িয়ে যায়। তাদের নামীদামী হোটেলে ১২ তলার পর ১৪ তলা থাকে, কোনও ১৩ তলা থাকে না! হোটেলের রুম নাম্বারেও ১২ এরপর ১৪, কোনও ১৩ নেই। যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে আমি যে বাসায় থাকতাম সেটি রাস্তার একপাশে বেজোড় সংখ্যার বাসাগুলোর একটি। ১১ নম্বরের পর আমার বাসাটি ১৩ নম্বর হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু সেটি ছিল ১৫ নম্বর। বিজ্ঞানমনস্কতার জগতে সবচেয়ে বড় সর্বনাশ হয়েছিল চন্দ্রাভিযানের বেলায়, সংখ্যার ধারাবাহিকতায় অ্যাপোলো ১২-এর পর অ্যাপোলো ১৩ পাঠানো হয়েছিল। সেই “অ্যাপোলো-থার্টিন” চাঁদে তো যেতে পারেইনি, মাঝখানে দুর্ঘটনায় পড়ে মহাকাশচারীদের জীবন বাঁচানোই কঠিন হয়ে পড়েছিল। কাজেই পশ্চিমা জগত এখনও কঠিনভাবে বিশ্বাস করে যে ১৩ সংখ্যাটি অশুভ।

শুক্রবার, ২১ আগস্ট ২০২০, ১৫:০০

বঙ্গবন্ধু: লেখক ও মানবসত্তা

বঙ্গবন্ধু: লেখক ও মানবসত্তা

বাংলাদেশ, বাঙালি ও বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা অর্জনের সাথে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর নাম অবিচ্ছিন্ন। গৌরবের ১৯৭১ তৈরি হতো না বঙ্গবন্ধু ছাড়া, তা বলাই বাহুল্য। তাঁর পরিচিতি বিশেষায়নে আমরা উচ্চারণ করি,- ‘বঙ্গবন্ধু’ এবং ‘হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি’। কখনও নামের বিকল্পেও বলি। এসবের তাৎপর্য কী। বস্তুত, এ-শব্দ ও বাক্যের মধ্যে নিহিত রয়েছে বাঙালির জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম, দ্রোহ, গ্রহণ-বর্জনের ধারাবাহিক কালক্রম। ধাপে ধাপে, ইতিহাসের একটি সন্ধিক্ষণে, একজন শেখ মুজিবুর রহমান হয়ে ওঠেন বঙ্গবন্ধু ও শ্রেষ্ঠ বাঙালি। এ বিষয় বুঝে নিলে অংশত শেখ মুজিবুর রহমানকে জানা হয়ে যায়। মূলত, তিনি লড়াই সংগ্রামের ভেতর দিয়ে বাঙালির ইতিহাসকে পুনর্গঠন করেছেন।

শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ১৩:৫৫

ক্ষুদিরাম বসু : ফাঁসির মঞ্চে গেয়েছিলেন জীবনের জয়গান

ক্ষুদিরাম বসু : ফাঁসির মঞ্চে গেয়েছিলেন জীবনের জয়গান

কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য তার 'আঠারো বছর বয়স' কবিতায় এভাবেই বর্ণনা করে গেছেন আঠারো বছরের তারুণ্যের উদ্যাম আর দুর্দান্ত সাহসকে সেই আঠারোর এক মৃত্যুঞ্জয়ী তরুণের গল্পই বলবো আজ

বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৩:৩৫

বঙ্গবন্ধুর যুব ভাবনা

বঙ্গবন্ধুর যুব ভাবনা

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছিলেন তাঁর যুব বয়সে ১৯৪৭ সালে। ব্রিটিশরা বিদায় নেয়ার পর পরই তাঁর মাথায় স্বাধীনতার স্বপ্নের এই বীজ রোপিত হয়েছিল। তিনি তখন কলকাতার ইসলামিয়া কলেজের শিক্ষার্থী। যুবক শেখ মুজিব তাঁর ঘনিষ্ঠ কয়েকজন ছাত্র কর্মীদের ডেকে বললেন, “স্বাধীনতা সংগ্রাম এখনও শেষ হয়নি। এবার আমাদের যেতে হবে বাংলাদেশের পবিত্র মাটিতে। এই স্বাধীনতা স্বাধীনতাই নয়।” বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশের জন্ম হতো না- এই কথাটি সত্য প্রমাণ করার জন্য তাই আজ কোন বাঙালিকে আর প্রমাণ খুঁজতে হয়না। বাংলাদেশের স্বাধীনতা আদায়ের জন্য, বাংলাদেশের মানুষের মুক্তির জন্য তিনি আজীবন সংগ্রাম করেছেন, বার বার মৃত্যুর মুখোমুখি হয়েছেন, কারাগারের অন্ধকার প্রকোষ্ঠে কাটিয়ে দিয়েছেন জীবনের মূল্যবান ৪৬৮২টি দিন।

বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৩:০৫

তথ্য এবং তথ্য চাই

তথ্য এবং তথ্য চাই

আমার ধারণা চাপে পড়ে আমরা আজকাল অনেক বেশি আন্তর্জাতিক হয়ে উঠছি। আগে কাউকে কোনও সেমিনার, কনফারেন্স বা ওয়ার্কশপে বিদেশ থেকে আমন্ত্রণ জানাতে হলে আয়োজকরা দশবার চিন্তা করতেন। আজকাল চোখ বন্ধ করে ই-মেইল পাঠিয়ে দেন! আমাদের আমন্ত্রণ জানালেও আগে নানাভাবে ছুতো খুঁজে বের করতাম যেন যেতে না হয়—আজকাল সেটাও করা যায় না। যারা আয়োজক তাদেরও অনেক সুবিধা, হলঘর ভাড়া করতে হয় না, হোটেল খুঁজতে হয় না, লাঞ্চের ব্যবস্থা করতে হয় না, প্রধান অতিথির পেছন পেছন ঘুরতে হয় না। কয়দিন আগে সেরকম একটি অনুষ্ঠানে আমার থাকার সৌভাগ্য হয়েছিল। আয়োজকদের প্রধানকে যখন শুভেচ্ছা বক্তব্য দেওয়ার কথা বলা হলো আমি স্পষ্ট দেখলাম তিনি বিছানায় এলোমেলো হয়ে শুয়ে আছেন। একটা বালিশকে বুকে চেপে ধরে উঠে বসলেন,  ল্যাপটপের ক্যামেরার সামনে মুখটা এনে কিছুক্ষণ ভালোভাবে কথা বলে হাই তুলে আবার শুয়ে পড়লেন! আমি যখন বক্তব্য দিচ্ছি তখন আমি খুব দুশ্চিন্তার মাঝে ছিলাম, আমার কথা কী আদৌ কেউ শুনছে নাকি আমি একা একা নিজের মনে কথা বলে যাচ্ছি? (ভাগ্যিস বক্তব্যের শেষে প্রশ্নোত্তরের ব্যবস্থা ছিল, অনেক প্রশ্ন দেখে বুঝতে পেরেছিলাম কেউ কেউ নিশ্চয়ই কথা শুনছে!)

শুক্রবার, ৭ আগস্ট ২০২০, ০১:১১

রাষ্ট্রনায়কদের চোখে বঙ্গবন্ধু ছিলেন ক্ষণজন্মা পুরুষ

রাষ্ট্রনায়কদের চোখে বঙ্গবন্ধু ছিলেন ক্ষণজন্মা পুরুষ

বিশ্ব-গণমাধ্যম এবং রাষ্ট্রনায়কদের চোখে বঙ্গবন্ধু ছিলেন ক্ষণজন্মা পুরুষ। তাদের কাছে বঙ্গবন্ধু এক অনন্য সাধারণ নেতা। যিনি ‘স্বাধীনতার প্রতীক’ বা ‘রাজনীতির ছন্দকার’। তারা মনে করেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন জনগণের নেতা এবং তাদের সেবায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করেছেন।

সোমবার, ৩ আগস্ট ২০২০, ১৭:৫৩

অসংখ্য চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে বঙ্গবন্ধু দেশ পুনর্গঠন শুরু করেন

অসংখ্য চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে বঙ্গবন্ধু দেশ পুনর্গঠন শুরু করেন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানের কারাগার থেকে দেশে ফিরেই দ্রুত যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠন শুরু করেন এবং সফলভাবে সদ্য স্বাধীন দেশের অর্থনৈতিক এবং অর্থনীতির বাইরের উভয় খাতের গভীরে প্রথিত বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেন।

রোববার, ২ আগস্ট ২০২০, ১৭:৩৮

তাজউদ্দীন আহমদ : বাঙালির আনসাং হিরো

তাজউদ্দীন আহমদ : বাঙালির আনসাং হিরো

মেধাবীরা রাজনীতিতে আসেন না বলে একটা কথা প্রচলিত আছে। এই সময়ের জন্য কথাটা সত্যি হলেও একটা সময় এই উপমহাদেশের রাজনীতি ছিল মেধাবীদের অভয়ারণ্য।

বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই ২০২০, ২৩:১০

বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন ও ইতিহাসে রক্তের ঋণ

বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন ও ইতিহাসে রক্তের ঋণ

বুধবার, ২২ জুলাই ২০২০, ১৯:২৫

গণতন্ত্রের ঊষর মরুতে ক্যাকটাস: এমাজউদ্দীনের আক্ষেপ

গণতন্ত্রের ঊষর মরুতে ক্যাকটাস: এমাজউদ্দীনের আক্ষেপ

কারণ বাংলাদেশের সোনালী যুগের নায়কেরা; আইকনেরা ফিরে যাচ্ছেন গ্রিনরুমে; মঞ্চ দখল করে আছে এসেন্সহীন খলনায়কেরা; ভাঁড়েরা যারা হাসতে হাসতে মঞ্চ থেকে নেমে এসে দর্শকের পেটে ছুরি চালিয়ে দেয়। দর্শক গুম হবার এই ভয়াল কালে সেইসব মানুষেরা চলে যাচ্ছেন যাদের মাঝে প্রেম ছিলো; প্রীতি ছিলো; হৃদয়ের আলোড়ন ছিলো।

শুক্রবার, ১৭ জুলাই ২০২০, ১৯:২৩

সর্বশেষ
জনপ্রিয়