ঢাকা, সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৮

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২২:৫২, ২০ অক্টোবর ২০২১

দীর্ঘ দেড় বছর পর মৃত্যুহীন দিন দেখল ঢাকা

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। সংক্রমণ শুরুর পর  সেই বছরের ৩ এপ্রিল মৃত্যুহীন ছিল দেশ। এরপর থেকে প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এসব মৃত্যুর বেশির ভাগই হয়েছে ঢাকায়। তবে দীর্ঘ দেড় বছর পর মৃত্যুহীন দিন দেখল ঢাকা।

বুধবার (২০ অক্টোবর)  স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে, ২৪ ঘণ্টায় দেশে মারা গেছেন ৬ জন। যার মধ্যে চট্টগ্রামে তিনজন, রাজশাহীতে দুইজন ও খুলনা বিভাগে একজন রয়েছেন। এ সময়ে ঢাকা বিভাগসহ পাঁচ বিভাগে করোনায় কোনো মৃত্যু নেই।

দেশে করোনা সংক্রমণ শুরুর থেকে দীর্ঘ এ ১৮ মাস দেশের অন্যান্য বিভাগে মৃত্যুশূন্য দিন গেলেও ঢাকায় যায়নি। 

দেশে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে গত বছরের ৮ মার্চ। ধীরে ধীরে সংক্রমণ বাড়তে থাকে। করোনার প্রথম ঢেউ নিয়ন্ত্রণে আসে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে। পরে মার্চে আঘাত করে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। এই ঢেউয়ে ভারতীয় ডেল্টা ধরন ভয়াবহভাবে ছড়িয়ে পড়ে। এ ধরন দেশজুড়ে শঙ্কা ও চিকিৎসাসংকট তৈরি করে।

দ্বিতীয় ঢেউয়ে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি হয় গত জুলাইয়ে। এ মাসে পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৩৩ শতাংশ ছাড়িয়ে যায়। করোনায় আক্রান্ত হয়ে কোনো কোনো দিন আড়াই শর বেশি মানুষেরও মৃত্যু হয়েছে।

তবে গত দেড় মাস ধরে করোনা পরিস্থিতি ক্রমেই উন্নতির দিকে। কমছে মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা। সেই সঙ্গে কমছে শনাক্তের হারও। টানা ২৯ দিন সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের নিচে। জনজীবন স্বাভাবিক হওয়ায় খুলে দেয়া হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ৮৩১টি ল্যাবরেটরিতে ২০ হাজার ৩৯৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। যার মধ্যে পজিটিভ এসেছে ৩৬৮ জনের। নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১ দশমিক ৮০ শতাংশ। একই সময় সুস্থ হয়েছেন ৪৮১ জন।

করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর পর থেকে ২০ অক্টোবর পর্য়ন্ত মারা যাওয়া ২৭ হাজার ৭৯১ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১২ হাজার ১১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৫ হাজার ৬৪০ জন, রাজশাহী বিভাগে ২ হাজার ৩৮ জন, খুলনা বিভাগে ৩ হাজার ৫৮৭ জন, বরিশাল বিভাগে ৯৪৩ জন, সিলেট বিভাগে ১ হাজার ২৬১ জন, রংপুর বিভাগে ১ হাজার ৩৬২ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৮৪১ জনের মৃত্যু হয়।

আইনিউজ/এসডিপি 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়