ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২,   আষাঢ় ২৩ ১৪২৯

স্বাস্থ্য ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১১:২৮, ১০ জুন ২০২২
আপডেট: ১১:৩০, ১০ জুন ২০২২

ঝরে যাওয়া চুল কি ফেরত পাওয়া সম্ভব?

মিনোক্সিডিল আবিস্কারের কারনে হয়তো টাক মাথার যুগ শেষ। ভবিষ্যতে সবাইকেই চুলভর্তি দেখতে পাওয়া যাবে। মিনোক্সিডিল পাল্টে দিচ্ছে বিশ্বকে। হয়তো আজ থেকে দশ বছর পর টাক মাথার ছেলে পাওয়া কষ্টকর হবে।

জনপ্রিয় মিনোক্সিডিল: জোনোগ্রো, ট্রুগেইন, স্পেন্ডোরা।

Minoxidil vasodilator ও নির্ভরযোগ্য। তাই সবসময়ই এটি ব্যবহার করে যাওয়া সম্ভব। ভেসোডাইলেটর মানে চামড়ার নিচের কোষগুলিকে সম্প্রসারিত করে। ফলে শূন্যতা পূরন করতে রক্তপ্রবাহ ও পুষ্টির প্রবাহ সেখানে বেড়ে যায়। ফলে চুলের ফলিকল পুষ্টি পায়।

আপনি যদি কিসমিস পানিতে রাখেন তবে কিসমিসে পানি ঢুকে ফুলে যাবে। ভেসোডাইলেটর এরকম

ডোজ:

মিনোক্সিডিল একদিনের জন্যেও দেওয়া মিস করা যাবে না। এতে পূর্বের প্রয়োগ কোন লাভ হবে না। নতুন করে শুরু হবে।

The hair follicle needs a constant reminder from minoxidil to grow
অনুবাদঃ চুলে ফলিকলের প্রয়োজন সর্বক্ষন মিনোক্সিডিল থেকে প্রেরনা।

মিনোক্সিডিল ব্যবহারে চার মাসের আগে কিছুই বুঝা যাবে না। চার মাস পরে যদি দেখেন লোমের মতো উঠছে তাহলে দুই বছর একটানা ব্যবহার করে যাবেন। আর যদি চার মাস পরে লোমের মতো কিছু দেখতে না পান তাহলে পিআরপি ট্রিটমেন্টে যেতে হবে। লোমের মতো কিছু দেখার জন্যে রোদে দাড়িয়ে আয়না দিয়ে খুব ভালো করে নজর করতে হবে।

সতর্কতাঃ মিনোক্সিডিল খামখেয়ালি নয়। এটা কিন্তু তেল নয়। টাক আক্রান্ত অংশে খুব অল্প করে ব্যবহার করতে হয়। ১ মিলিরও কম। নইলে হৃদপিন্ডে রক্তপ্রবাহ বেড়ে গিয়ে হার্ট এটাক হবেন। মাথা ব্যথা হবে। যাদের হার্টে সমস্যা তারা মিনোক্সিডিল ব্যবহার করবে না। সরাসরি পিআরপি ট্রিটমেন্টে চলে যাবে।

প্রতিবার পিআরপির মূল্য: ৩০০০ টাকা।

চুলের চিকিৎসা এখন দাতের চিকিৎসার মতো available/সহজলভ্য এবং অল্প খরচে ভেঙ্গে ভেঙ্গে করানো যায়। পিআরপিতে কাজ না হলে হেয়ারট্রান্সপ্লান্ট করতে ৫০-৬০ হাজার টাকা খরচ হতে পারে।

চুল পড়া ভিটামিনের ঘাটতি নির্দেশ করে। তাই নিয়মিত ক্যালসিয়াম, dietary supplement /মাল্টিভিটামিন খাওয়া যেতে পারে।

আইনিউজ/এইচএ 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়