ঢাকা, রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ২ ১৪২৮

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৪:২৪, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
আপডেট: ১৪:২৯, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

কমরেড অর্ধেন্দু বিকাশ দেবরায়ের মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা

কমরেড অর্ধেন্দু বিকাশ দেবরায়। সবার কাছে যিনি অপু নামেই পরিচিত ছিলেন। নিজের কর্মদক্ষতায়, সততায় ও নিষ্ঠায় মৌলভীবাজারের সর্বস্তরের মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন তিনি। আজ সেই নেতার ২৮তম মৃত্যুবার্ষিকী। 

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ে অর্ধেন্দু বিকাশ দেবরায় অপুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি মৌলভীবাজার জেলা কমিটি, কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমদ স্মৃতি সংসদ, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন মৌলভীবাজার জেলা সংসদ এবং বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন মৌলভীবাজার জেলা সংসদের নেতৃবৃন্দ। 

১৯৫৯ সালে জন্ম মৌলভীবাজারে জন্ম কমরেড অপুর। বেড়ে উঠেছিলেন শহরের শান্তিবাগ এলাকায়। বাবু শ্রীশ চন্দ্র রায়ের স্কুলে শিশুকালের পাঠ নিয়েছিলেন। তারপর মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও কাশীনাথ হাই স্কুলে শিক্ষা গ্রহণ করেছিলেন। ছাত্র ছিলেন মৌলভীবাজার কলেজের। 

ছায়ানীড় খেলাঘর আসরের মধ্য দিয়ে শিশু কিশোর আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন কমরেড অপু। স্কুলে পড়াকালীন সময়েই বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নে যোগ দেন। কলেজে খুবই জনপ্রিয় ছাত্রনেতা ছিলেন। তাঁর স্থিরধীর কর্মদক্ষতায় সংগঠনকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। 

বিভিন্ন ধরণের অসুস্থতার কারণে পড়াশুনায় পিছিয়ে গিয়েছিলেন। পরিবার থেকেও চাপ ছিল নিজের পায়ে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবার। কিন্তু কে জানতো কমরেড অপু সমাজ বিপ্লবের দীক্ষা নিয়ে সার্বক্ষণিক রাজনীতি করার মানসে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগ দিয়ে মৌলভীবাজারে পার্টির মূল নেতায় পরিণত হয়ে যাবেন একসময়। 

নিজের অসুস্থতা, পার্টির কাজের ব্যস্ততা সত্ত্বেও সব সময় পরিবারের যেকোন সমস্যায় পরিবারের পাশে সর্বাগ্রে দাঁড়াতেন অপু দেব রায়। 

পার্টির দুঃসময়ে আদর্শের ঝাণ্ডা নিয়ে পার্টিকে সংগঠিত করতে ঝাঁপিয়ে পড়তেন কমরেড অপু। নেতা-কর্মীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে সংগঠিত করেছেন পার্টিকে। কিন্তু কমরেড অপু অবিচল ছিলেন তাঁর লক্ষ্যে। 

কমিউনিস্ট পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত কমরেড সৈয়দ আবু জাফর তাঁর একটি লেখায় লিখেছেন,‘তাকে (কমরেড অপু) পার্টিতে এনেছিলাম আমি। সে আমাকে ‘নেতা’ মানতো। কিন্তু পার্টির দুঃসময়ে প্রমাণ করেছে সে আমার নেতা । মৌলভীবাজার জেলা পার্টির আসল নেতা।’ 

শুধু পার্টির কাজে কাজেই নয় শহরের সামাজিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাঁর উপস্থিতি কামনা করতেন সবাই। বন্ধুদের বোনের বিবাহ, বন্ধুদের ভাইবোনের পড়াশোনাসহ সকল বিষয়েই খোঁজ রাখতেন। 

বন্ধুবৎসল, আদর্শের প্রতি অবিচল একজন কমিউনিস্ট,  ক্ষণজন্মা এই সাধারণভাবে জীবনযাপনকারী এক অসাধারণ মানুষ ছিলেন কমরেড অর্ধেন্দু বিকাশ দেবরায় অপু।

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়