ঢাকা, সোমবার   ০৮ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ২৪ ১৪২৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৪:৩৯, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১
আপডেট: ১৪:৪৩, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

নায়ক সালমান শাহ এর মা লন্ডনে, পেছালো মামলার শুনানি

নায়ক সালমান শাহ-এর মা লন্ডনে, তাই পেছালো মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন শুনানির তারিখ। আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশের নব্বই দশকের জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহ অপমৃত্যু মামলায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) দেওয়া চূড়ান্ত প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্যতার বিষয়ে শুনানির দিন নির্ধারিত ছিল।

কিন্তু মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী ফারুক আহাম্মদ সালমান শাহ-এর মা নীলা চৌধুরীর পক্ষে নারাজি দাখিলে সময় প্রার্থনা করেন।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট সাইদুজ্জামান শরীফ পরবর্তী শুনানির তারিখ ২০ এপ্রিল  তারিখ নির্ধারণ করেন।

মামলার আইনজীবী অ্যাডভোকেট ফারুক আহাম্মদ গণমাধ্যমকে জানান,  মামলার বাদী নায়ক সালমান শাহ-এর মা লন্ডনে আছেন। করোনাভাইরাসের  কারণে তিনি দেশে আসতে পারেননি। তাই সময় চাওয়া হয়েছে। আদালত সময়ের আবেদন গ্রহণ করে শুনানির নতুন তারিখ ২০ এপ্রিল ঠিক করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআইয়ের পুলিশ পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম ২০২০ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি মামলাটির প্রতিবেদনটি জমা দেন।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর মারা যান চলচ্চিত্র নায়ক চৌধুরী মোহাম্মদ শাহরিয়ার (ইমন) ওরফে সালমান শাহ। সে সময় এ বিষয়ে অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছিলেন তার বাবা প্রয়াত কমরউদ্দিন আহমদ চৌধুরী।

কিন্তু ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ করে ১৯৯৭ সালের ২৪ জুলাই মামলাটিকে হত্যা মামলা হিসেবে গণ্য করার আবেদন জানান কমরউদ্দিন আহমদ চৌধুরী। তখন অপমৃত্যুর মামলার সঙ্গে হত্যাকাণ্ডের অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করার জন্য আদালত সিআইডিকে নির্দেশ দেন।

এরপর ১৯৯৭ সালের ৩ নভেম্বর আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয় সিআইডি। চূড়ান্ত প্রতিবেদনে সালমান শাহের মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলে উল্লেখ করা হয়। ২৫ নভেম্বর ঢাকার সিএমএম আদালতে ওই প্রতিবেদন গৃহীত হয়। কিন্তু সিআইডি’র প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে তার বাবা কমরউদ্দিন আহমদ চৌধুরী রিভিশন মামলা দায়ের করেন। ২০০৩ সালের ১৯ মে মামলাটি বিচার বিভাগীয় তদন্তে পাঠায় আদালত। প্রায় ১৫ বছরে মামলাটি বিচার বিভাগীয় তদন্তে ছিল।

এরপর ২০১৪ সালের ৩ আগস্ট ঢাকার সিএমএম আদালতের বিচারক বিকাশ কুমার সাহার কাছে বিচার বিভাগীয় তদন্তের প্রতিবেদন দাখিল করেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ইমদাদুল হক। এ প্রতিবেদনে সালমান শাহ’র মৃত্যুকে অপমৃত্যু হিসেবে উল্লেখ করা হয়। ২০১৪ সালের ২১ ডিসেম্বর সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী ছেলের মৃত্যুতে বিচার বিভাগীয় তদন্ত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেন এবং বিচার বিভাগীয় তদন্ত প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে নারাজি দেবেন বলে আবেদন করেন।

২০১৫ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি নীলা চৌধুরী ঢাকা মহানগর হাকিম জাহাঙ্গীর হোসেনের আদালতে বিচার বিভাগীয় তদন্ত প্রতিবেদনের নারাজির আবেদন দাখিল করেন। সালমান শাহ-এর হত্যাকাণ্ডে আজিজ মোহাম্মদ ভাইসহ ১১ জন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারেন বলে নারাজিতে উল্লেখ করা হয়।

আইনিউজ/এইচকে

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়