ঢাকা, শুক্রবার   ১৪ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

ভ্রমণ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:২৪, ৩০ জুন ২০২০

স্বরূপে কুয়াকাটা

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের কারণে টানা সাড়ে তিন মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে স্বরূপে ফিরছে কুয়াকাটা সমুদ্র-সৈকত। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১ জুলাই থেকে এখানকার আবাসিক হোটেল-মোটেলসহ পর্যটন-কেন্দ্রিক সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে আবারো ফিরে আসবে এ পর্যটনকেন্দ্রের প্রাণচাঞ্চল্য।

কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন কর্তৃক লিখিত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ অনুমতি দিয়েছেন পটুয়াখালীর ডিসি।

কুয়াকাটায় প্রায় ১২০টি হোটেল-মোটেল রয়েছে। সেগুলো খোলার প্রস্তুতি হিসেবে ৫, ৬ ও ৯ জুন করোনাকালীন হোটেল-মোটেল ব্যবস্থাপনা ও পর্যটকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সহযোগিতায় বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে।

খাবার হোটেল মালিক-কর্মচারী, ভ্যান-অটোচালক, ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালকরাও সে প্রশিক্ষণের আওতায় ছিলেন বলে জানিয়েছে কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন।

অ্যাসোসিয়েশন সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ বলেন, একজন পর্যটক গাড়িসহ এলে প্রথমে নির্দিষ্ট পোশাকে সজ্জিত হোটেল কর্মীরা গাড়িসহ মালামাল জীবাণুনাশক স্প্রে করে নেবেন। এছাড়া গেস্টের কক্ষ আগে থেকেই স্বাস্থ্যবিধি অনুসারে ব্যবহার উপযোগী করা হবে।

কলাপাড়ার ইউএনও আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক বলেন, করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে হোটেল ব্যবস্থাপনা করতে বলা হয়েছে। এর ব্যত্যয় ঘটলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

করোনাভাইরাসের শুরুতেই ১৭ মার্চ কুয়াকাটার পর্যটন শিল্পকে লিখিতভাবে বন্ধ করেন ডিসি। এরপরই দীর্ঘ তিন মাস ১৩ দিন বন্ধ থাকে পযর্টন শিল্প।

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়