ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২০ জানুয়ারি ২০২২,   মাঘ ৭ ১৪২৮

তানভির আরহাম

প্রকাশিত: ২১:১১, ৭ নভেম্বর ২০২১
আপডেট: ২০:৪৪, ৮ নভেম্বর ২০২১

কম দামে সেরা ৫টি গেমিং ফোন

মোবাইল গেমিং বর্তমান জেনারেশনের কাছে অবসর কাটানোর জন্য অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি মাধ্যম। বাচ্চা থেকে বুড়ো সবাইকেই ইদানিং মোবাইলে গেম খেলতে দেখা যায়। গেম খেলার জন্য যেহেতু একমাত্র মোবাইলই প্রয়োজন তাই এই মোবাইলটিকে হতে হয় বেশ ভালো মানের। তা না হলে গেম খেলাটা উপভোগের চাইতে বিরক্তিকরই মনে হবে বেশি।

জি পাঠক! আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় এই গেমিং এর জন্য পারফেক্ট কিছু মোবাইল নিয়েই। আজকের প্রবন্ধে আমরা আপনাদের জানাতে যাচ্ছি ২০২১ সালের সেরা কিন্তু বাজেট ফ্রেন্ডলি কিছু গেমিং ফোন সম্পর্কে যা ব্যবহার করে আপনি খুব স্বাচ্ছন্দ্যেই মিডিয়াম টু হাই সেটিং এর গেমগুলো খেলতে পারবেন। 

তাহলে আর দেরি কেন! ঝটপট প্রবন্ধটি পড়ুন আর জেনে নিন কম দামে ভালো গেমিং মোবাইল গুলো সম্পর্কে। চলুন তবে মূল আলোচনায় যাওয়া যাক….

কম দামে ভালো গেমিং ফোন

1. Infinix Hot 11s

সেরা অথচ বাজেট ফ্রেন্ডলি গেমিং মোবাইলের তালিকায় প্রথমেই আসছে Infinix Hot 11s. মোবাইলটির দাম ১৪,৯৯০ টাকা থেকে ১৫,৯৯০ টাকার মধ্যে। মোবাইলটি বাজারে ছাড়া হয় এই বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর। বুঝতেই পারছেন বেশ লেটেস্ট মডেল। মোবাইলটিতে 6.7 inch IPS LCD, 90 hz, Full HD+ 1080*2480 pixels ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম  অ্যান্ড্রোয়েড 11, XOS 7.6. চিপসেট হিসেবে ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ১২ ন্যানোমিটার সাইজের Mediatek Helio G88. গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে  Mail - G52 MC2. 

এই মডেলটির দুটো ভার্সন রয়েছে যা র‍্যাম ও স্টোরেজের দিক থেকে পার্থক্য রয়েছে। অর্থাৎ, 4GB র‍্যাম ও 128 GB স্টোরেজ বিশিষ্ট এবং 6GB র‍্যাম ও 128 GB স্টোরেজ বিশিষ্ট। 

মোবাইলটিতে মেমোরি চ্যানেল 50 মেগাপিক্সেল + 2 মেগাপিক্সেল + আনস্পেসিফাইড ক্যামেরা এবং সেলফি ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল। ফোনটির ব্যাটারি লিথিয়াম পলিমারের 5000 mAh, তবে নন রিমুভেবল। 

এই মডেলের মোবাইলগুলো পাওয়া যাবে তিনটি ভিন্ন রং এ - পোলার ব্ল্যাক, গ্রিন ওয়েভ এবং পার্পল। গেমিং এর পাশাপাশি মোবাইলের যত ধরনের কাজ আছে তার সবই এই ফোনটি দিয়ে করা যায়।

একনজরে Infinix Hot 11s এর ফিচার সমূহ

  • বাজার মূল্য: ১৪,৯৯০ টাকা থেকে ১৫,৯৯০ টাকা।
  • ডিসপ্লে: ৬.৭ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি 1080*2480 পিক্সেল।
  • প্রসেসর:  Mediatek Helio G88 
  • র‍্যাম: 4GB এবং 
  • ইন্টার্নাল স্পেস: 128 GB 
  • ক্যামেরা: 50 মেগাপিক্সেল+2 মেগাপিক্সেল+আনস্পেসিফাইড ক্যামেরা এবং 8MP এর সেলফি ক্যামেরা।
  • ব্যাটারি: 5000 mAh লিথিয়াম পলিমার।

2. Realme C25s

মোবাইলটি বাজারে ছাড়া হয় এই বছর জুনের ৮ তারিখ। IPS LCD 720*1600 pixels সহ মোবাইলটির রয়েছে 6.5 ইঞ্চির ডিসপ্লে। এই গেমিং মোবাইলটিতে প্রসেসর হিসেবে  রয়েছে 12 ন্যানোমিটারের MediaTek Helio G85। মোবাইলের অপারেটিং সিস্টেম Android 11,Realme UI 2.0. ফোনটির র্যাম 4 GB এবং 128 GB এর ইন্টার্নাল স্টোরেজ। গ্রাফিক্স  প্রসেসিং ইউনিট হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Mail-G52 MC2. 

মোবাইলটির ক্যামেরা কোয়ালিটিও বেশ ভালো। 13 MP+2MP+2MP মেগা পিক্সেলের রেয়ার ক্যামেরা এবং 8MP এর সেলফি ক্যামেরা। 6000 mAh লিথিয়াম পলিমার ব্যবহার করা হয়েছে সেটটির ব্যাটারি হিসেবে যা গেমারদের দীর্ঘক্ষণ ব্যাকআপ দিতে সক্ষম হবে। তাছাড়া, 18W এর সুপারফাস্ট চার্জিং সিস্টেমের জন্য এর চার্জিং নিয়ে আপনাকে একদমই ভাবতে হবে না।

ওয়াটার ব্লু এবং ওয়াটার গ্রে এই দুইটি কালারের সেটটি আপনার গেমিং এর পাশাপাশি অন্য সব কাজেও বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই ব্যবহার করতে পারবেন।

একনজরে Realme C25s এর ফিচার সমূহ:

  • দাম: ১৫,৪৯০ টাকা।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি 720*1600 পিক্সেল।
  • প্রসেসর:  12 ন্যানোমিটারের MediaTek Helio G85। 
  • মোবাইলের অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রোয়েড ১১ রিয়েলমি ইউ আই ভার্সন ২। 
  • র‍্যাম: 4GB 
  • ইন্টার্নাল স্পেস: 128 GB 
  • ক্যামেরা: 13 MP+2MP+2MP রেয়ার ক্যামেরা এবং 8MP এর সেলফি ক্যামেরা।  
  • ব্যাটারি: 6000 mAh লিথিয়াম পলিমার ব্যবহার করা হয়েছে।

3. Walton Primo RX8 Mini

বাংলাদেশের গেমারদের পছন্দের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে আছে Walton Primo RX8 Mini. এ বছর জুন মাসে এই ফোনটি বাজারে ছাড়া হয়। এই সেটটির আছে 6.3 ইঞ্চির IPS Full HD+ 2340*1080 pixels ডিসপ্লে। Android 10 ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম। ১৪ ন্যানোমিটারের snapdragon 660 ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটির প্রসেসর হিসেবে। মোবাইল সেটটির গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট Adreno 512. 64 GB ইন্টার্নাল স্টোরেজের পাশাপাশি ফোনটির র‍্যাম স্টোরেজ 4GB. 

12MP+8MP+5MP মেগাপিক্সেলের ব্যাক ক্যামেরার সাথে 13MP এর সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে। ফোনটির রয়েছে 18W এর দ্রুত চার্জিং ব্যবস্থা। বর্তমান বাজারে শুধুমাত্র এর কালো রং টাই পাওয়া যাচ্ছে। ফোনটির দাম ১৫৪৯০ টাকা।

একনজরে Walton Primo RX8 Mini এর ফিচার সমূহ

  • ডিসপ্লে: ৬.৩ ইঞ্চির IPS Full HD+ 2340*1080 pixels ডিসপ্লে।
  • প্রসেসর: ১৪ ন্যানোমিটারের snapdragon 660 ব্যবহার করা হয়েছে।
  • ইন্টার্নাল স্টোরেজ: ৬৪ জিবি। 
  • র‍্যাম: 4GB. 
  • ক্যামেরা: 12MP+8MP+5MP ব্যাক ক্যামেরার সাথে 13MP এর সেলফি ক্যামেরা।
  • বাজারমূল্য: ফোনটির দাম ১৫৪৯০ টাকা।  

4. Tecno Spark 7 Pro

কম দামে ভালো গেমিং ফোন এর তালিকায় এরপরের অবস্থানে আসছে Tecno Spark 7 Pro.  ফোনটির র‍্যাম স্টোরেজ 6GB এবং ইন্টার্নাল স্টোরেজ 64GB. এই সেটটির রয়েছে 6.6 inchs IPS LCD HD+ 720*1600 pixels ডিসপ্লে। অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ফোনটিতে আছে Android 11, HIOS 7.5.  

সেটটিতে ব্যবহার করা হয়েছে 12 nm এর MediaTek Helio G80 প্রসেসর। ক্যামেরা হিসেবে ফোনটিতে আছে 48 মেগা পিক্সেলের ত্রিপল ক্যামেরা। এছাড়া এই সেটটিতে 8MP এর সেলফি ক্যামেরাও আছে। 

5000 mAh এর লিথিয়াম পলিমার ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটির ব্যাটারি হিসেবে। মোবাইল সেটটির গ্রাফিক্স ডিজাইন ইউনিট Mail-G52 MC2  মডেলের। আপনাকে ফোনটির চার্জিং নিয়ে একদমই ভাবতে হবে না। কেননা এর আছে 10W এর দ্রুত চার্জিং ব্যবস্থার সুবিধা পাবেন। 

সব মিলিয়ে ফোনটি গেমিং এর জন্য বেশ ভালো। এটা ব্যবহার করে আপনি জনপ্রিয় সবগুলো গেম মিডিয়াম টু হাই সেটিং এ খেলতে পারবেন। 

এ বছরের ২৭ এপ্রিল ফোনটি বাজারে ছাড়া হয়। আল্পস ব্লু, স্প্রুস গ্রিন, নিওন ড্রিম, ম্যাগনেট ব্লাক এই চারটি রং এ অ্যাভেইলঅ্যাবল ফোনটির দাম ১৪,৯৯০ টাকা।

একনজরে Tecno Spark 7 Pro এর ফিচার সমূহ:

  • বাজারমূল্য: ১৪৯৯০ টাকা।
  • র‍্যাম:৬ জিবি।
  • ইন্টার্নাল স্পেস: ৬৪ জিবি।
  • ডিসপ্লে: 6.6 inchs আইপিএস এলসিডি এইচডি প্লাস 720*1600 pixels ডিসপ্লে। 
  • প্রসেসর: 12 nm MediaTek Helio G80
  • ক্যামেরা: 48 মেগা পিক্সেলের ত্রিপল ক্যামেরা এবং 8MP সেলফি ক্যামেরা
  • ব্যাটারি: 5000 mAh এর লিথিয়াম পলিমার

5. Realme 8

ভালো গেমিং ফোন এর তালিকায় এবার যে মোবাইলটির বর্ণনা দেবো তা হলো Realme 8. রিয়েলমি এই ফোনটি বাজারে ছাড়ে এই বছর ২৪ এপ্রিল। ফোনটির ডিসপ্লে 6.4 inches Super AMOLED FULL HD+ 1080*2400 pixels. অ্যান্ড্রোয়েড, ১১, রিয়েলমি ইউআই ভার্সন টু ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম। 

গেম খেলায় বিরম্বনা এড়াতে প্রসেসর হিসেবে ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে 12 nm এর MediaTek Helio G95. গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট Mail-G76 MC4.ইন্টার্নাল128 GB মেমোরির পাশাপাশি ফোনটির আছে 8GB  র‍্যাম।

রিয়েলমি ৮ এর ক্যামেরা সিস্টেমও বেশ ভালো। 64MP+8MP+2MP+2MP ব্যাক ক্যামেরা সেটিং এর সাথে 16MP এর সেলফি ক্যামেরা। 5000mAh এর ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে এই সেটটিতে। 

ফোনটি চার্জিং এর জন্য আছে 30W এর চার্জিং সিস্টেম যার মাধ্যমে মাত্র ২৬ মিনিটে ৫০% এবং ১ ঘন্টার মধ্যে ১০০% চার্জ হয়ে যায়। 

এত এত সুবিধা সম্বলিত এই ফোনটির বাজার মূল্য ২২,৯৯০ টাকা। ফোনটি গেম খেলার জন্য এই বাজেটে একদম পারফেক্ট। এর সাহায্যে  আপনি যেকোনো মোবাইল গেম মিডিয়াম টু হাই সেটিং এ খেলতে পারবেন। এমনকি আল্ট্রা মোড দিয়েও খেলা সম্ভব।

একনজরে Realme 8 এর ফিচার সমূহ:

  • ডিসপ্লে: 6.4 inches Super AMOLED FULL HD+ 1080*2400 pixels. 
  • প্রসেসর:  ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে 12 nm এর MediaTek Helio G95. 
  • ইন্টার্নাল স্পেস: 128 GB মেমোরি। 
  • র‍্যাম স্পেস: 8GB মেমোরি। 
  • ক্যামেরা: 64MP+8MP+2MP+2MP ব্যাক ক্যামেরা এবং 16MP এর সেলফি ক্যামেরা।  
  • ব্যাটারি: 5000mAh.
  • বাজারমূল্য: ২২৯৯০ টাকা।

আপনি যদি এতক্ষণ যাবত আমাদের আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন তাহলে নিশ্চিতভাবেই জেনে গিয়েছেন গেমিং এর জন্য কোন কোন মোবাইল গুলো ভালো। তবে এখন গেমিং মোবাইল না শুধু, যেকোনো ফোন কেনার ক্ষেত্রে যে সতর্ক থাকতে হবে যে মোবাইলটি অফিসিয়াল কিনা।আনঅফিশিয়াল ফোন কিনলে বেশিরভাগ সময় যেটা হয় তা হলো ফোনটি কিছুদিনের মধ্যে নষ্ট হয়ে যায়, কোম্পানির রিপুটেশন খারাপ হয়।আর বর্তমানে বিআরটিসি আনঅফিসিয়াল কোনো ফোন নেটওয়ার্কে যুক্ত করতেও দিচ্ছে না।

তাই যেসব কম দামে ভালো গেমিং ফোন এর বর্ণনা দেয়া হলো, বাজেটের মধ্যে যাচাই করে সেগুলোর মাঝে অফিসিয়াল ফোন কিনুন এবং স্বাচ্ছন্দ্যে গেমিং করুন।

আইনিউজ/এসডি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়