ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ মে ২০২১,   বৈশাখ ৩০ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ০০:১০, ১৮ এপ্রিল ২০২১
আপডেট: ০০:১০, ১৮ এপ্রিল ২০২১

ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্য সম্পন্ন

প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যানুষ্ঠান

প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যানুষ্ঠান

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্য নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। সেন্ট জর্জস চ্যাপেলের নিচে অবস্থিত রয়্যাল ভল্টে দাফন করা দাফন করা হয়েছে প্রিন্স ফিলিপকে।

স্থানীয় সময় বেলা ৩ টায় শুরু হয় মূল আনুষ্ঠানিকতা। প্রিন্স ফিলিপের শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী সামাজিক দূরত্ব মেনে পারিবারিকভাবে শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।

রানি এলিজাবেথ ও প্রিন্স ফিলিপ

করোনাভাইরাসের কারণে সাধারণ মানুষের জন্য শ্রদ্ধা জানাতে রাখা হয়নি প্রিন্স ফিলিপের মরদেহ। শেষকৃত্যানুষ্ঠানে যোগ  দিয়েছেন মাত্র ৩০ জন। যাদের মধ্যে রয়েছেন রানি এলিজাবেথ ও ডিউক অব এডিনবরার পরিবারের সদস্যরা, এবং ডিউক অব এডিনবরার তিন জন জার্মান সদস্য।

শেষকৃত্যের শুরুতে ডিউকের মরদেহ উইণ্ডসর দুর্গের প্রাইভেট গির্জা থেকে দুর্গের রাষ্ট্রীয় প্রবেশপথে নিয়ে আসা হয়। পরে সেন্ট জর্জেস চ্যাপেল নামের গির্জায় নিয়ে যাওয়া হয়।

প্রিন্স ফিলিপ

বিকেল পৌনে তিনটায় মূল শোভাযাত্রাটি শুরু হয়। এর শুরুতে ছিল গ্রেনাডিয়ার গার্ড নামে সামরিক বাদকদল। এসময় দুর্গের ভেতর তোপধ্বনি এবং গির্জার ঘণ্টাধ্বনি করা হয়। ডিউকের স্মরণে পুরো ব্রিটেন জুড়ে এক মিনিটের নিরবতা পালন করা হয়।

এরপর গির্জার ভেতরে কফিন নিয়ে যাওয়া হয়, এবং তা একটি মঞ্চের ওপর রাখা হয়। চারজন সঙ্গীতশিল্পীর একটি দল ডিউকের পছন্দের কয়েকটি গান পরিবেশন করেন। গির্জার আনুষ্ঠানিকতা শেষে ফিলিপকে সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলের রাজকীয় ভল্টে সমাহিত করা হয়।

রানি এলিজাবেথ ও প্রিন্স ফিলিপ

প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ব্রিটেনে জাতীয় শোক পালন শেষ হয়েছ। তবে রাজপরিবার আরো এক সপ্তাহ ধরে শোক পালন করবে।

গত ৯ এপ্রিল মারা যান ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপ। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৯ বছর। জানা গেছে, অসুস্থ বোধ করায় গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ফিলিপকে কিং এডওয়ার্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। এক মাসের চিকিৎসা শেষে ১৬ মার্চ হাসপাতাল ছেড়েছিলেন তিনি।

১৯৪৭ সালে এলিজাবেথকে বিয়ে করেনে ফিলিপ। ৫ বছর পর ১৯৫২ সালে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ব্রিটিশ সিংহাসনে আরোহণ করেন। তখন থেকে এ পর্যন্ত নৌবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা প্রিন্স ফিলিপ ২২ হাজার ২১৯টি একক সরকারি কর্মসূচিতে অংশ নেন।

সূত্র: বিবিসি

আইনিউজ/এসডিপি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়