ঢাকা, শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১ ১৪২৮

জামালপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৯:৩২, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
আপডেট: ২৩:০২, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

নির্বাচন কমিশন গঠনে দ্রুত আইন চাই: নির্বাচন সংষ্কার আন্দোলন

সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুসারে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রনয়ণের দাবীতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তারা বলেছেন, দেশে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়নের নির্দেশনা সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদে বলা থাকলেও কোন সরকার সেটা পালন করে না।

নির্বাচন সংস্কার আন্দোলনের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আজ শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বেলা ১০টায় উক্ত মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ নাগরিক জোটের চেয়ারম্যান এইচ. সিদ্দিকুর রহমান খোরশেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তারা সকল প্রকার নির্বাচনে নির্বাহী বিভাগের হস্তক্ষেপ বন্ধের আহবান জানান।  

বক্তৃতা দানকালে নির্বাচন সংস্কার আন্দোলনের উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের চেয়ারমান এ্যাডঃ কাজী রেজাউল হোসেন বলেন, নির্বাচন কমিশন নির্বাচন কমিশন গঠনে সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়নের নির্দেশনা সংবিধানে ষ্পষ্ট থাকলেও সেই আইন প্রণয়ন না করে তথাকথিত সার্চ কমিটি দিয়ে বাছাই করে অনভিজ্ঞ, অবসরপ্রাপ্ত ও নিজেদের পছন্দের লোক দিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয় যারা সরকারের অনুগত থাকে এবং সরকারের ইচ্ছানুয়ায়ী নির্বাচন পরিচালনা করে। ফলে সুষ্ঠু নির্বাচন হয় না। 

নির্বাচন সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব এ্যাড. মো. ইয়ারুল ইসলাম-এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, অবসরপ্রাপ্তদের নির্বাচন কমিশনের মতো রাষ্ট্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই প্রতিষ্ঠান গঠন হচ্ছে যা দেশের সংবিধানের ষ্পষ্ট লংঘন। যারাই ক্ষমতায় যান তারাই ক্ষমতাকে কুক্ষিগত রাখার জন্য নানান অপকৌশলে নির্বাচন কমিশন গঠন করেন এবং অস্বচ্ছভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করেন। এই অনৈতিক কর্ম চিরতরে বন্ধ করে স্থায়ী, নিরপেক্ষ ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন ব্যবস্থা প্রবর্তন করতে আইন প্রণয়ন এখন সময়ের দাবী। 

স্বাস্থ্য বিধির আওতায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা’র সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইকবাল হোসেন, বাংলাদেশ জনদল-বিজেডি’র মহাসচিব সেলিম আহমেদ, বাংলাদেশ জাস্টিস পার্টি’র চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মজুমদার, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল-পিডিপি’র যুগ্ম মহাসচিব মো. মহিববুল্লা বাহার, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আন্দোলন-বিজিএ’র চেয়ারম্যান এআরএম জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বাংলাদেশ জনতা ঐক্য’র চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান, সিপিবি(এম)’র সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এম এ সামাদ, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি’র সভাপতি মাওলানা ওবায়দুল হক, সোনার বাংলা আন্দোলনের আহবায়ক তাশেম মাসুদ, বাংলাদেশ আইনজীবী কংগ্রেস-এর আহবায়ক এ্যাড. মো. আব্দুল আওয়াল, বাংলাদেশ কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় শিক্ষা ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মো. মোস্তফা আনোয়ার ভূঁইয়া (রিপন) প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

আইনিউজ/আবু সায়েম/এসডি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়