ঢাকা, সোমবার   ১৬ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৭:২৫, ৩০ নভেম্বর ২০২১

মাইনুদ্দিনকে চাপা দেওয়া বাসের হেলপার র‍্যাবের হাতে আটক

রাজধানীর রামপুরায় অনাবিল বাসের চাপায় এসএসসি পরীক্ষার্থী মাইনুদ্দিনের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত বাসের হেলপার চাঁন মিয়াকে আটক করেছে র‍্যাব-৩।

 মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে রাজধানীর সায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

আরও পড়ুন- ‘বাবা, রেজাল্টের পর আমারে কিন্তু ভালো একটা কলেজে ভর্তি করাইতে হইব’ 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক হেলপার চাঁন (৪২) মিয়া জানান, অতিরিক্ত গতির কারণে বাসটি তাৎক্ষণিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি। তাই প্রথমে মাইনুদ্দিনকে ধাক্কা দেয় বাসটি। ধাক্কার পর ছিটকে পড়ে বাসের নিচেই চাপা পড়ে মারা যান মাইনুদ্দিন। র‍্যাব সদর দফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গতকাল সোমবার (২৯ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর রামপুরায় অনাবিল পরিবহনের একটি বাসের চাপায় একরামুন্নেসা বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী মাইনুদ্দিনের নির্মম মৃত্যু হয়। এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশব্যাপী চাঞ্চল্য তৈরি হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে র‍্যাব ছায়া তদন্ত শুরু করে ও জড়িতদের গ্রেফতারে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর সায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে ঘাতক বাসের হেলপার মো. চান মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। তার বাড়ি শরিয়তপুর ডামুড্ডায়।

আরও পড়ুন- রামপুরায় বাসচাপায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু, বাসে আগুন

এতে আরও জানানো হয়, চাঁন মিয়া জিজ্ঞাসাবাদের জানান, অতিরিক্ত গতির কারণে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনার পর তিনি দ্রুত দুর্ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। তার উদ্দেশ্য ছিল ঢাকার বাইরে কোথাও আত্মগোপন করবেন। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।  

আইনিউজ/এসডিপি 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়