ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ১৫ ১৪২৭

বিনোদন প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৮:৩৫, ১ জুন ২০২০
আপডেট: ১৫:১৬, ১ জুন ২০২০

রণেশ ঠাকুরের ঘরে আগুন: গানের মাধ্যমে সঙ্গীত শিল্পী প্রীতমের প্রতিবাদ

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি সুনামগঞ্জ এর দিরাইয়ে দুর্বৃত্তের দেয়া আগুনে পুড়ে ছাই হয়েছে বাউল রণেশ ঠাকুরের ঘর, গান ও ৪০ বছরের সংগ্রহের নানা বাদ্যযন্ত্র। সেই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদে বাউল শফি মণ্ডলের কণ্ঠে ফকির লালন শাহ এর গান নিয়ে হাজির হয়েছেন জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক প্রীতম আহমেদ। গানের শিরোনাম ‘দে রে খাই’। 

গানটি গত ২১ মে প্রীতম আহমেদের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করা হয়। 

গানটি প্রকাশের বিষয়ে আইনিউজকে প্রীতম বলেন, বাউল গানের সঙ্গে কোনকালেই কোন ধর্মের সংঘাত ছিলো না। বরং বাউল ও সাধকদের অনেক গানে আল্লাহ ও তার রাসুল অথবা ধর্মীয় নানা অনুষঙ্গের বর্ণনা করা হয়েছে। লালনের বিভিন্ন গানেও অনেকবার মহান আল্লাহ তথা সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ করার কথা বলা হয়েছে। তবুও কিছু মানুষ নানা সময়ে বাউল ও সাধকদের প্রতি বিরূপ ও বর্বর আচরণ করেন। 

তিনি বলেন, সম্প্রতি সুনামগঞ্জ এর দিরাইয়ে, উজানধল গ্রামে দুর্বৃত্তের দেয়া আগুনে পুড়ে ছাই হয়েছে বাউল রণেশ ঠাকুরের ঘর,গান ও ৪০ বছরের সংগ্রহের নানা বাদ্যযন্ত্র। আমি আমার সঙ্গীত পরিচালনায় বাউল শফি মণ্ডলের কণ্ঠে ফকির লালন শাহ এর এই গানটি প্রকাশের মাধ্যমে এমন হীন মনোবৃত্তির তীব্র প্রতিবাদ ও ঘৃণা জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, পৃথিবীর সকল ঝড়ই এক সময় থেমে যায়। শিল্পী ও সাধকের প্রতি নির্মম আচরণের এই কুৎসিত ঝড়ও একদিন ঠিকই থেমে যাবে। সকলের মঙ্গল হোক।

গানটি>>>
 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়