ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২২,   মাঘ ১৪ ১৪২৮

শ্যামলাল গোঁসাই

প্রকাশিত: ২১:০৩, ৯ জানুয়ারি ২০২২
আপডেট: ২১:০৪, ৯ জানুয়ারি ২০২২

‘মনে করো কেউ ছিলো না’

(১)

মনে করো কেউ ছিলো না

মনে করো মরে গেছি, চলে গেছি তুমি হতে দূরে 
মনে করো সব ঝুট, দেখা হবে নয়া কোন ভোরে।

মনে করো আমি নেই, ছিলোনা তো কেউ কোনোদিন 
মনে করো সব ছিলো ঘুমে দেখা স্বপনের ঋণ।

মনে করো এইখানে, শ্যামলাল ছিলোনা কোথাও
দয়া করে সখি তুমি আমারে ওই অনলে পুড়াও।

পৌষ-১৯/১৪২৮ বাংলা
লেবার ক্যাম্প, সোনাপুর, দুবাই।

(২)

বেদুঈন

এ ঊষর মরু প্রান্তরে 
তোমারে রেখে গো সখি ওই বহুদূরে 
প্রাণ আমার কতো কথা কয়,

হয়তো আসবো কোনোদিন 
ঝেড়ে মুছে জীবনের ঋণ 
তোমারে পাবো তো? মনে ভয়। 

এইভাবে একা একা বসে 
কতো ভাবি সাবেকি সে কথা
মনে পড়ে খোয়াবের রাত

আনমনে সেই গান গাই 
যেই সুরে তোমারে গো পাই 
আসে না তো ফিরে সে প্রভাত। 

এ ঊষর মরুভূমি মাঝে 
যেনো আমি একা বেদুঈন
বিষাদের সুর মনে নিয়ে 

একা ঘুরে ঘুরে হায়
তাপিত এ প্রাণ যে হারায় 
বালিয়াড়ি পথ শেষে গিয়ে।

কাটেনা সময় দ্রুতলয়ে 
সে তো মানে তার নিয়মই, 
বসে আছে আমার সে প্রিয়া
আশা, আমি ফিরে আসবোই!

পৌষ-২২/১৪২৮ বাংলা
লেবার ক্যাম্প, সোনাপুর, দুবাই।

(৩)

নিঃসঙ্গ বৃক্ষ

কাউকেই ছাড়িনি আমি 
কিংবা বলিনি কোন বন্ধুকে ছেড়ে যেতে 
তপোবনের নিঃসঙ্গ বৃক্ষটির মত একা করে
সবাই নিজ নিজ দায়িত্বেই ছেড়েছে আমার আঙিনা
দায়িত্বশীলভাবে তাদের গৃহের চৌকাঠ থেকে মুছে নিয়েছে আমার থেকে যাওয়া ছাপ!

বহুদিন আগে আমি ছিলাম একা 
তারা আমায় বললো, 'মানুষ সুন্দর সংসারে, ধর্মে আর ভালোবাসায়'
একদিন আমার হাতে তোলে দিয়ে একটি কাঠের পুতুল
তারা আমায় বললো, 'বেঁচে বর্তে থাকো'
মনে হলো যেন পেয়েছি দৈববর 
সে সুখেই কেটে যাবে আমার একটা জীবন

অতঃপর তারা আমাকে ছেড়ে চলে গেলেন 
আমি বেঁচে আছি বটে, বর্তে নেই। 

সংসারে থেকেও আমি সংসারী হতে পারিনি বলে সকলেই ছেড়েছে আমায়
আমার প্রিয় কাঠের পুতুল হয়ে গেছে বেহাত
যারা দিয়েছিলো দৈববর গেছে তারাও;
সবকালে সকলকে চলে যেতেই দেখেছি আমি

আমার এ বৈরাগ্যে তাদের কোন ভাগ নেই
কেননা তারা ছেড়ে যাবার একটিবারও জিজ্ঞেস করেনি আমায়
আমি ফের একা একটি নিরব বৃক্ষ হতে চাই কিনা!

(৪)

কিছু কথা রেখেছি গোপন

কিছু কথা রেখেছি গোপন
এ বুকের ঠিক মাঝখানে,
কিছু কথা রেখেছি নিরব
শুধাতে তোমায় কানেকানে  

কিছু স্মৃতি মুছেছি তা ঠিক
আরও কিছু রেখেছি খাতায়,
কেউ কেউ হারিয়ে গিয়েছে
কেউ আছে স্মৃতির পাতায়। 

কিছু নদী একাই দেখেছি
দোসর যে মিলেনি সেদিন, 
কিছু নদী এখনো অদেখা
দেখবো তা ফিরবে যেদিন। 

কিছু লেখা হয়নি প্রকাশ
আরও কিছু পুড়িয়ে দিয়েছি,
কিছু লেখা সুরে সুরে প্রিয়া 
একা রাতে একাই গেয়েছি। 

কিছু কথা রেখেছি গোপন
ছিলো যে তা দুখ জাগানিয়া 
কিছু কথা ঠোঁটেই লুকোনো
শুনবে কি রাঙা ঠোঁট দিয়া?

পৌষ-২৪/১৪২৮ বাংলা

আইনিউজ/এসডি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়