ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৮ ১৪২৭

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:২৮, ১৩ জানুয়ারি ২০২১
আপডেট: ২১:৩৭, ১৩ জানুয়ারি ২০২১

পৌষ সংক্রান্তির পিঠাপুলি

পৌষ সংক্রান্তির পিঠা

পৌষ সংক্রান্তির পিঠা

বাঙালি সংস্কৃতির একটি বিশেষ উৎসব পৌষ সংক্রান্তি। বাংলা পৌষ মাসের শেষ দিনে পালন করা হয় এই উৎসবটি। উৎসবের বিশেষ আকর্ষণ হলো শীতের মজার সব পিঠা। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) এই উৎসবটি পালন করবে বাঙালি। আইনিউজের পাঠকদের জন্য রইল কয়েকটি পিঠার রেসিপি।

চিতই পিঠা

উপকরণ:

চালের গুঁড়া ২ কাপ, লবণ স্বাদ মতো

প্রণালি:

আতপ চালের গুঁড়া চালনি দিয়ে চেলে স্বাদ মতো লবণ মিশিয়ে নিন। কুসুম গরম পানি অল্প অল্প করে মিশিয়ে তরল ব্যাটার তৈরি করুন। পুরো মিশ্রণটি ব্লেন্ডারে ভালো করে ব্লেন্ড করুন। মাটির সরা বা কড়াই বসান চুলায়। গরম হয়ে গেলে একটি গর্তযুক্ত চামচের সাহায্যে এক চামচ ব্যাটার দিয়ে ঢেকে দিন। মিনিট তিনেক পর ঢাকনা তুলে খুন্তির সাহায্যে উঠিয়ে নিন পিঠা। তরকারি বা ভর্তার সঙ্গে পরিবেশন করুন গরম গরম।

ভাপা ক্ষীরসা পুলি

উপকরণ:

চালের গুঁড়া দেড় কাপ, তরল দুধ ২ কাপের কম, গুঁড়া দুধ আধা কাপ, সুজি ৩ টেবিল চামচ, ঘি ১ চা চামচ, নারকেল কোরানো ১ কাপ, খেজুরের গুঁড় ৩/৪ কাপ

প্রণালি
দেড় কাপ পানি চুলায় দিয়ে পরিমাণ মতো লবণ দিয়ে অপেক্ষা করুন ফুটে ওঠার জন্য। ফুটে উঠলে চালের গুঁড়া দিয়ে চামচের সাহায্যে ছড়িয়ে দিন। চুলার আঁচ মিডিয়ামের চাইতে একটু কমিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। তিন থেকে চার মিনিট পর চুলার আঁচ একদম কমিয়ে ভালো করে নেড়েচেড়ে নিন। একটি বড় বাটিতে মিশ্রণটি ঢেলে হালকা গরম থাকা অবস্থায়ই মথে নিন। একটি ভেজা কিচেন পেপার দিয়ে ঢেকে রাখুন।
তরল দুধের সঙ্গে গুঁড়া দুধ ও সুজি মেশান। প্যানে ঘি গরম করে কোরানো নারকেল দিয়ে দিন। নাড়তে থাকুন। ঘন হয়ে গেলে গুড় দিয়ে দিন। থকথকে হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। ডো থেকে সামান্য অংশ নিয়ে তালুতে চেপে চারদিকে ছড়িয়ে নিন। মাঝে ক্ষীরসা দিয়ে একপাশ থেকে বন্ধ করে দিন। ভাঁজ করে করে নকশা করে নিতে পারেন। চাইলে ছাঁচেও বানানো যায় এই পিঠা। এবার চুলায় স্টিমার দিয়ে একটি পাতলা ভেজা কাপড় বিছিয়ে উপরে পিঠা দিয়ে দিন। কাপড় দিয়ে ঢেকে ঢাকনা দিয়ে স্টিমার ঢেকে দিন। ৬ থেকে ৭ মিনিট পর নামিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম পিঠা।

দুধ পুলি পিঠা

উপকরণ

চালের আটা ২ কাপ, পানি ৪ কাপ, তেল ৩ চা চামচ, চিনি ৪ চা চামচ, নারিকেল কুচি ১ কাপ, লবঙ্গ দুটি, এলাচ ৫টি, গুড় আধাকাপ ও দুধ ২ লিটার।  

প্রণালি

প্যানে পানি গরম করে ২ চা চামচ চিনি ও ১ চা চামচ তেল দিন। চিনি গলে গেলে চালের আটা দিয়ে নাড়ুন। পানি পুরোপুরি শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন। 

ডো তৈরি হলে চুলা থেকে পাত্র নামিয়ে ঠাণ্ডা করুন। অন্য পাত্রে তেল গরম করে লবঙ্গ, এলাচ এবং নারিকেল দিন। ৫ মিনিট মৃদু আঁচে রেখে দিন। গুড় দিয়ে গলে না যাওয়া পর্যন্ত নাড়ুন। 

আরও ৫ মিনিট নেড়ে নামিয়ে ফেলুন চুলা থেকে। ডো হাত দিয়ে গোল করে পুরির মতো আকৃতি বানান। ওপরে নারিকেলের মিশ্রণ দিয়ে ভাঁজ করে আটকে নিন। স্টিম দিন ৩-৪ মিনিট। দুধ ঘন করে জ্বাল দিয়ে চিনি মেশান। পিঠা দিয়ে দিন দুধে। 

কয়েক মিনিট চুলায় মৃদু আঁচে রেখে নামিয়ে ফেলুন পাত্র। পরিবেশন করুন মজাদার দুধ পুলি পিঠা।

মালপোয়া পিঠা:

উপকরণ:

দুধ ১/২ লিটার, চিনি ১ কাপ, পানি ১ কাপ, এলাচ গুঁড়ো ১ চা চামচ, জাফরান পছন্দমতো, ময়দা ১/২ কাপ, দুধ ১/২ কাপ, চিনি ১ টেবিল চা চামচ, ঘি ১ টেবিল চামচ, বেকিং সোডা ১/৪ চা চামচ

প্রণালি:

প্রথমে একটি প্যানে এক লিটার দুধ জ্বাল দিয়ে আধা লিটারে নিয়ে আসুন। তারপর চুলা থেকে নামিয়ে আরেকটি পাত্রে সিরা তৈরির জন্য চিনি এবং পানি একসাথে জ্বাল দিন। সিরা ঘন হয়ে এলে চুলা নিভিয়ে ফেলুন এবং চিনির সিরার ওপরে জাফরান এবং এলাচ গুঁড়ো দিয়ে দিন।

এরপর ঘন দুধের সাথে ময়দা ভালো করে মিশিয়ে নিন। এমনভাবে মেশাবেন যেন ময়দা দানা দানা না থাকে। এবার দুধ এবং ময়দার মিশ্রণ ঘন হয়ে এলে তাতে তরল দুধ ভালো করে মিশিয়ে নিন। পরে চিনির গুঁড়ো দিয়ে আবার মিশিয়ে নিন। এর সাথে বেকিং পাউডার ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন মিশ্রণটি যেন খুব বেশি ঘন না হয়।

এবার প্যান গরম হয়ে আসলে এতে ঘি দিয়ে দিন। তারপর গরম তেলে মিশ্রণটি ছোট ছোট পিঠা আকারে ছেড়ে দিন। পিঠাগুলো ভাজা হয়ে গেলে নামিয়ে চিনির সিরায় কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। ব্যাস, চিনির সিরা থেকে নামিয়ে ওপরে বাদাম কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন মজাদার মালপোয়া পিঠা।

আইনিউজ/এসডিপি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়