ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২,   আষাঢ় ২৩ ১৪২৯

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৩, ২১ মার্চ ২০২২

চুইংগাম চিবানোর উপকারিতা ও অপকারিতা

ছোট থেকে বড় সবাই চুইংগাম খেতে বেশ পছন্দ করেন। বেশ কিছুক্ষণ ধরে রং-বেরঙের চুইংগাম চিবিয়ে, তারপর সেটাকে ফোলানো। এসব কাজ ছেলেবেলায় কে না করেছেন? কিন্তু এই চুইংগাম চিবানোতে কী উপকার কিংবা কী অপকার হচ্ছে, তা কেউই জানে না। শৈশব-কৈশোরকালে এই সব কাজ করতে আমাদের সকলেরই ভালো লাগে। তাই করা।

কিন্তু আসলে কি সত্যিই চুইংগাম চিবানোর কোনও উপকারিতা রয়েছে? হ্যাঁ, চুইংগাম চিবানোর এমন অনেক উপকারিতা রয়েছে, যা আমাদের জানা নেই। পাশাপাশি চুইংগাম চিবানোর আছে নানা অপকারিতা। আসুন জেনে নেওয়া যাক-

চুইংগাম চিবানোর উপকারিতা

কাজের মনোযোগ বাড়ায় 

অনেক সময়েই আমাদের কাজে মন বসে না। একঘেয়ে লাগে। কাজ করতে করতে ঘুম পায়। অর্থাত্‌, কাজের দিক থেকে সমস্ত মনোযোগ চলে যায়। কাজের প্রতি আমাদের সেই মনোযোগ বা একাগ্রতা ফিরিয়ে আনে চুইংগাম।

স্ট্রেস দূর করে

মানসিক চাপ বা স্ট্রেস দূর করতেও কার্যকরী হলো চুইংগাম। আপনি যদি স্ট্রেসের মধ্যে থাকেন তবে চুইংগাম খান। এটি আপনার পক্ষে আদর্শ হতে পারে। মাথা ঠান্ডা রেখে কাজ করতে সাহায্য করবে চুইংগাম। এটি স্নায়ুতন্ত্রকে সজাগ রাখতে সাহায্য করবে। 

খিদে কমায় 

চুইংগাম আমাদের খিদে কমায়। আর এর ফলে আমাদের অতিরিক্ত ওজন বৃদ্ধিও কমে যায়। তবে অবশ্যই সুগারফ্রি চুইংগাম হতে হবে।

মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়ায়

মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে চুইংগাম। চুইংগাম চিবুনোর অভ্যাস থাকলে তা দীর্ঘ সময় কাজ করার শক্তি দেয় এবং সেইসঙ্গে বাড়ে মানসিক স্পৃহা। বৃদ্ধি পায় দক্ষতা। তাই কাজের চাপে থাকলে চুইংগাম চিবুনোর অভ্যাস করতে পারেন। এতে অনেকটা স্বস্তি পাবেন।

ওরাল হেলথ ভালো রাখে

ওরাল হেলথ বা মুখের ভেতরের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে কাজ করে চুইংগাম। এটি দাঁতের যত্ন নিতে পারে সেইসঙ্গে অনেকসময় মাউথ ওয়াশ হিসেবেও কাজ করে। মুখের ভেতরে জন্ম নেওয়া ক্ষতিকর জীবাণু মেরে ফেলতেও কাজ করে চুইংগাম।

পানির চাহিদা মেটাতে কাজ করে

আমাদের শরীরে পানির চাহিদা মেটাতে কিছুটা হলেও কাজ করে চুইংগাম। অনেকে আছেন, যাদের ঘন ঘন পানি পান করার অভ্যাস। তাদের জন্য চুইংগাম খাওয়ার অভ্যাস বেশ ভালো কাজ করে।

চুইংগাম চিবানোর অপকারিতা 

দাঁতকে ক্ষতিগ্রস্ত করে

চুইংগাম খুব বেশি চিবানো দাঁতকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এর মধ্যে থাকা চিনি দাঁতের ক্ষয় করতে পারে। অন্যদিকে এর মধ্যে থাকা অম্ল জাতীয় উপাদান ও প্রিজারভেটিভ দাঁতের ভাঙন ও ক্ষয় করে।   

মাথা ব্যথা বাড়ায়

বেশি চুইংগাম চিবানো স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।  চোয়ালের ধারাবাহিক নড়াচড়া মাথায় চাপ তৈরি করে  এবং  ব্যথা তৈরি করে।  মাইগ্রেনের ব্যথার সঙ্গেও এর যোগ রয়েছে।   

পেটে সমস্যা তৈরি করে

চুইংগাম চিবানোর মাধ্যমে কিছুটা বাতাস গেলা হয়।  এটি পেটের ব্যথা এবং পেট ফোলাভাব তৈরি করে। এটি ইরিটেবল বাউল সিনড্রমের (আইবিএস) কারণ হতে পারে। তাই বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, চুইংগাম চিবানোর সময় মুখ বেশি খোলা রাখবেন না।

চোয়ালের সমস্যা করে

দীর্ঘক্ষণ ধরে চুইংগাম চিবালে চোয়ালে সমস্যা হয়। এতে টেমপোরোমেন্ডিবুলার জয়েন্ট ডিজঅর্ডার (টিএমজে) হতে পারে। এ ছাড়া টানা চুইংগাম চিবালে চোয়ালের পেশি ভারসাম্যহীন হয়ে যায়। এটি কান ও মাথা ব্যথা তৈরি করে।  

ওজন বাড়িয়ে দেয়

চুইংগাম ওজন বাড়িয়ে দিতে পারে। মানুষ ক্ষুধা দূরে রাখার জন্য চু্ইংগাম চিবায়। তবে গবেষণায় বলা হয়, চুইংগামে যে ধরনের উপাদান থাকে সেটি ক্ষুধা আরো বাড়িয়ে দেয়। এটি চিপস বা ফাস্টফুড খাওয়ার প্রতি আগ্রহ বাড়ায়। আর বেশি খাওয়া তো ওজন বাড়িয়েই দেয়। তাই না?

বিপাক ব্যাহত করে

চুইংগাম স্যালিভা উৎপাদন বাড়িয়ে দিতে উদ্দীপকের ভূমিকা পালন করে। এটি একপর্যায়ে বিপাক কার্যক্রমকে ব্যাহত করে। এটি আরেকটি স্বাস্থ্যগত ক্ষতির কারণ।

ভ্রূণের ক্ষতি করে

গর্ভাবস্থায় চুইংগাম খাওয়া খুবই অস্বাস্থ্যকর। এর মধ্যে রয়েছে সিনথেটিক উপাদান। এটি ভ্রূণের বৃদ্ধিতে বাজে প্রভাব ফেলে।

আইনিউজ/এসডিপি

আইনিউজ ভিডিও 

মানসিক চাপ কমাবেন যেভাবে

বয়স পঞ্চাশের আগেই বাড়ে হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা

খালি পেটে ঘুমালে যেসব ক্ষতি হয়

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়