ঢাকা, রোববার   ১৮ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৫ ১৪২৮

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০১:৪৭, ১ এপ্রিল ২০২১
আপডেট: ১২:১৯, ১১ এপ্রিল ২০২১

তিন পার্বত্য জেলার সব পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ

মেঘের রাজ্য রাঙামাটির সাজেক

মেঘের রাজ্য রাঙামাটির সাজেক

দেশে প্রতিদিন বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। আর সংক্রমণের এ হার প্রতিরোধ করতে পার্বত্য তিন জেলা রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ির সব পর্যটন কেন্দ্র পরবর্তী ১৪ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। একইসাথে করোনারোধে আরও বেশ কিছু নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

রাঙামাটি:

বুধবার (৩১ মার্চ) বিকেলে রাঙামাটি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে কোভিড সংক্রমণে করণীয় নির্ধারণে আয়োজিত এক জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় দুই সপ্তাহের জন্য অন্তর্বতীকালীন এই সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বিবেচনায় বাড়তে পারে বলেও আভাস দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে এই সভায় প্রতিদিন রাত ৮টায় জেলার সব দোকানপাট, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও মার্কেট বন্ধ, গণপরিবহণে সিট ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহণ, হোটেল-মোটেলে অর্ধেক টেবিল চেয়ার তুলে রেখে ভোক্তাদের সেবা প্রদান ও আবাসিক হোটেল বন্ধ রাখার নির্দেশনা জারি করা হয়।

[আরও পড়ুন: ১১ এপ্রিল থেকে বন্ধ আন্তঃনগর ট্রেনের টিকেট]

সভায় সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শহীদুজ্জামান মহসীন, পরিবহণ মালিক শ্রমিক প্রতিনিধি ও গণমাধ্যকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বান্দরবান:

এর আগে আলাদা আরেকটি সভায় করোনা সংক্রমণরোধে বান্দরবানেও সব ধরনের পর্যটন স্পটগুলো দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন।

বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজির সভাপতিত্বে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় করণীয় শীর্ষক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায় স্বাস্থ্য বিভাগ, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, আবাসিক হোটেল, রেস্টুরেন্ট মালিক সমিতি, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

নাফাখুম

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বলেন, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। সংক্রমণ রোধে ১ এপ্রিল থেকে আগামী দুই সপ্তাহের জন্য বান্দরবান জেলার সবগুলো পর্যটন স্পট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আবাসিক হোটেলগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে দুই সপ্তাহের পর পরবর্তী নির্দেশনা দেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: করোনার উচ্চ সংক্রমণের ঝুঁকিতে ৩১ জেলা]

বান্দরবান আবাসিক হোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় করণীয় সভায় স্বাস্থ্যবিধি ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ মেনে হোটেল চালাতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দুজনের কক্ষে একজন করে ভাড়া দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে আবাসিক হোটেল বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।

খাগড়াছড়ি:

১ এপ্রিল থেকে ১৪ দিনের জন্য খাগড়াছড়ি জেলারও সব পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ থাকবে। বুধবার (৩১ মার্চ) বিকেল সোয়া ৫টার দিকে এক ফেসবুক পোস্টে জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, খাগড়াছড়ির আলুটিলা গুহা, রিসাং ঝর্ণা, জেলা পরিষদ পার্ক, মায়াবিনী লেক, দেবতা পুকুর, হাতির মাথা সিঁড়িসহ সকল পর্যটন কেন্দ্রের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মায়াবিনী লেক

তিনি আরও জানান, পাহাড়ি জেলা খাগড়াছড়িতে পর্যটনকেন্দ্র থাকার কারণে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে লোকজন এখানে ঘুরতে আসে। যার ফলে জেলায় করোনা রোগী বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে অনেক বেশি। 

আইনিউজ/এসডি

সংশ্লিষ্ট নিউজঃ  ১৫ দিনের জন্য কুয়াকাটা পর্যটন এলাকা বন্ধ

মৌলভীবাজারের সকল পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ রাখার নির্দেশ

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়