ঢাকা, শুক্রবার   ২২ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৬ ১৪২৮

স্বাস্থ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৩:২২, ১৯ আগস্ট ২০২১
আপডেট: ২৩:৪৮, ১৯ আগস্ট ২০২১

ঘুমের ওষুধে ক্ষতি

সুস্থ থাকার জন্য পর্যাপ্ত ঘুম হওয়া জরুরি। তবে আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যাদের রাতে ঠিকভাবে ঘুম হয় না। সারা দিনের ক্লান্তি আর চিন্তার কারণেই অনেক সময় তাদের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে।

এমন সমস্যায় যারা আছেন, তারা অনেকেই ঘুমানোর জন্য ঘুমের ওষুধের সাহায্য নিয়ে থাকেন।  যা প্রথমে প্রয়োজনে খাওয়া হলেও, পরবর্তীতে আসক্তির জায়গায় পৌঁছে যায়। তখন আর ওষুধ না খেলে ঘুম আসে না।

কিন্তু ঘুমের ওষুধের প্রতি অতিরিক্ত নির্ভরশীলতাও আমাদের শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। শুধু তাই নয়, নিয়মিত ঘুমের ওষুধ খাওয়ার অভ্যাস ডেকে আনতে পারে মৃত্যুও!

 ঘুমের ওষুধ খেলে যেসব ক্ষতি হয়:

• সারা দিন গলা শুকিয়ে থাকে অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেলে। সময়মত ওষুধ খাওয়া বন্ধ না করলে দেখা দিতে মারাত্মক সব শারীরিক সমস্যা।

• কোষ্ঠকাঠিন্য, পেটে ব্যথা, শরীর দূর্বল, গ্যাস্টিক খুব সাধারণ সমস্যা মনে হলেও এগুলো মারাত্মক হতে পারে। দীর্ঘদিন এমন অবস্থা চললে অন্ত্রের ক্যান্সারের আশঙ্কা বেড়ে যায়। পেটের এ ধরনের সমস্যা দেখা দিলে চিকিৎসকের পারমর্শ নিন।

• ‘এভরিডে হেল্থ’ নামক স্বাস্থ্যসংক্রান্ত পত্রিকার একটি সমীক্ষাপত্র বলা হয়েছে, ঘুমের ওষুধে থাকা যে রাসায়নিকের কারণে ঘুম আসে, তা সকালে ঘুম ভাঙার পরেও শরীরে অনেকক্ষণ থেকে যায়। তার প্রভাব পড়ে স্মৃতিশক্তির উপর। অনেকের ক্ষেত্রে ঘুমের ওষুধের কারণে স্মৃতিশক্তি কমতে থাকে। তেমন হলে এই ধরনের ওষুধ খাওয়া বন্ধ করতে হবে।

• ঘুমের ওষুধ খেয়ে অনেকেই ঘুমের মধ্যে কথা বলেন। এমন হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ঘুমের ওষুধ ছাড়তে হবে। এ ধরনের ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় অনেকেই ঘুমের মধ্যে হাঁটেন। এমন লক্ষণ দেখলে ছাড়তে হবে ঘুমের ওষুধ।

যেভাবে ছাড়বেন ঘুমের ওষুধ

চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। ওষুধ ছাড়া ঘুমোনোর চেষ্টা করুন। রোজ একই সময়ে শুতে যাওয়া, ঘুমের আগে ফোন না দেখা, চা কিংবা কফি থেকে দূরে থাকা। এমন কয়েকটি সাধারণ অভ্যাসই কাটিয়ে দিতে পারে ঘুমের সমস্যা।

আইনিউজ/এসডিপি 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়