ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৭ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ৩ ১৪২৯

তানভীর আজিজ

প্রকাশিত: ০২:১৬, ৬ মে ২০২২
আপডেট: ২০:০৩, ৯ মে ২০২২

গাছে গাছে ‘পাখির জন্য ভালোবাসার নীড়’

পাখির জন্য ভালোবাসার নীড় বেঁধে দিচ্ছেন উদ্যোক্তারা। আই নিউজ

পাখির জন্য ভালোবাসার নীড় বেঁধে দিচ্ছেন উদ্যোক্তারা। আই নিউজ

গাছে গাছে ‘পাখির জন্য ভালোবাসার নীড়’। শালিক, বুলবুলি, ঘুঘু ইত্যাদি বনের পাখি গাছে গাছে খুঁজে পাবে নিরপাদ নীড়। পাখির অভয়াশ্রম গড়তে এ উদ্যোগ। যেখানে পাখির নিরাপদ প্রজনন নিশ্চিত হবে বলে আশা করছেন উদ্যোক্তারা।

কয়েকদিন আগের কালবৈশাখীর ঝড় ভয় জাগিয়েছে। আমরাতো তুফান শুরু হলে নিরাপদ আশ্রয়ে যাই। পাখিদের সেই সুযোগ নেই। যতো ঝড় তুফানই হোক তারা নিজেদের বাসা ছেড়ে কোথাও যায় না।

নিজ বাসভবনের পুরোটা প্রাঙ্গণজুড়ে গাছে গাছে মাটির হাঁড়ি দিয়ে পাখির বাসা বেঁধে দিয়েছেন মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জিয়াউর রহমান। এ আয়োজনের অন্যতম উদ্যোক্তা বাংলাদেশ টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি ও আই নিউজের সম্পাদক হাসানাত কামাল। এতে সহযোগিতা করেছেন আই নিউজের প্রকাশক জাহেদ আহমদ চৌধুরী। এছাড়া পাখির প্রতি ভালোবাসায় এ আয়োজনে যুক্ত হয়েছে শিশু তানভীর আজিজ এবং সাফওয়ান আরহাম। 

এ উদ্যোগে সার্বিক সহযোগিতা করেছে নিউজ পোর্টাল আই নিউজ।  

মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জিয়াউর রহমান বলেন, ‘আমার সার্কেল ক্যাম্পাসে গাছপালা আছে বেশ। প্রতিদিনই পাখিদের কিচিরমিচিরে ঘুম ভাঙে। কতো ধরণের মিস্টি সুর যে প্রাণে আনন্দের দোল জাগায়। কিন্তু কয়েকদিন আগের কালবৈশাখীর ঝড় ভয় জাগিয়েছে। আমরাতো তুফান শুরু হলে নিরাপদ আশ্রয়ে যাই। পাখিদের সেই সুযোগ নেই। যতো ঝড় তুফানই হোক তারা নিজেদের বাসা ছেড়ে কোথাও যায় না। ঝড় বাদলের দিনে পাখিদের জন্য নিরাপদ আবাস তৈরি করে দেয়ার ভাবনা থেকেই ছোট্ট একটা উদ্যোগ নিই- যদি পাখিদের কিছু  ঈদ উপহার দেয়া যায়। সেই ভাবনা থেকেই আমার সদর সার্কেল ক্যাম্পাসের গাছে গাছে পাখিদের জন্য হাঁড়ির বাড়ি বানিয়ে দিয়েছি ঈদের আগের দিন। নাম দিয়েছি ভালোবাসার নীড়। আসুন সবাই পাখিদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ গড়ে তুলি।’

গাছে হাঁড়ি বেঁধে দেয়ার কাজ চলছে। ছবি : আই নিউজ

জিয়াউর রহমান জানান, হাঁড়িগুলোর নিচের দিকে ছোট ছোট ছিদ্র করা আছে এবং মুখগুলো নির্দিষ্ট দিকে ঘুরানো যেন পানি না জমে, পর্যাপ্ত আলো পায়, পাখির অসুবিধা না হয়।

এ আয়োজনের অন্যতম উদ্যোক্তা হাসানাত কামাল বলেন, পাখিদের আবাস অনেকটা সংকটাপন্ন। আছে পাখির খাদ্য সংকট। নিরাপদ আবাসের অভাবে পাখির প্রজনন বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছে। যে কারণে হারিয়ে যাচ্ছে আমাদের চেনাজানা অতিপরিচিত অনেক পাখি। তাছাড়া ঝড়ের সময় অনেক পাখি আহত হয়, মারাও যায়। অতি পরিচিত দোয়েল, টুনটুনি, শ্যামা এখন খুব একটা দেখা যায়না। বিষয়টা ভাবাচ্ছিলো। এই অবস্থায় পাখিদের নিরাপদ অভয়াশ্রম তৈরি করতে দীর্ঘদিন ধরে চিন্তা করছিলাম। একদিন এ বিষয়টা মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিয়াউর রহমানের সাথে শেয়ার করেছিলাম। মনে হলো তিনিও আমার মতো এ বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন। 

গাছে হাঁড়ি বেঁধে দেয়ার প্রস্তুতি চলছে। ছবি : আই নিউজ

হাসানাত কামাল বলেন, দুই বছর আগে দুইজন মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম গাছে গাছে পাখির বাসা দেবো। প্রথমে মৌলভীবাজার শহর, পরে পুরো জেলায় চলবে গাছে গাছে পাখির বাসা দেয়ার কাজ। যেখানে শালিক, বুলবুলি, ঘুঘু, চড়ুই, ফিঙে ইত্যাদি পাখি বাসা বাঁধবে। তৈরি হবে পাখিদের অভয়াশ্রম। পাখি সংরক্ষণে কাজ করেন এরকম অনেকের সাথে আমরা কথা বলেছি। কিভাবে কোন পাত্র দিলে পাখির জন্য উপযোগী হবে, সে বিষয়ে কথা বলেছি। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে বিষয়টি পিছিয়ে যায়। তাছাড়া উপযুক্ত হাঁড়িও পাওয়া যাচ্ছিলো না।

গাছে হাঁড়ি বেঁধে দেয়ার কাজ চলছে। ছবি : আই নিউজ

হাসানাত কামাল বলেন, অবশেষে এই ঈদের আগের দিন সোমবার (২ মে) আমরা কাজটা শুরু করতে পেরেছি। প্রথম ধাপে বিভিন্ন গাছে ২০টা হাঁড়ি দিয়েছি। এরইমধ্যে পাখি আসতে শুরু করেছে। বাসা দেখে পাখি পায়চারি করছে। এখানে আম, মেহগনি, নিম, অর্জুন ইত্যাদি বেশকিছু গাছ আছে। যেখানে পাখিদের বিচরণ আছে। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জিয়াউর রহমান বলেন, আরো হাঁড়ি প্রস্তুত করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে পুরো জেলাজুড়ে এ কার্যক্রম চলবে। আমরা চাই জীববৈচিত্র্য সমৃদ্ধ মৌলভীবাজার পাখির অভয়ারণ্যে পরিণত হোক। মানুষের মধ্যে পাখির প্রতি ভালোবাসা জন্মাক, সচেতনতা বাড়ুক।’

পাখিপ্রেমী বারো বছরের শিশু তানভির আজিজ বলে, আমাদের বাসার বাথরুমের পাইপলাইনে একটি শালিক দম্পতি গত কয়েক বছর ধরে নিয়মিত বাসা করে, ডিম ফুটায়, ছানা দেয়। কিন্তু ওই বাসা থেকে মাঝেমাঝে ডিম ও বাচ্চা পড়ে যায়। এটা আমার খুব কষ্ট লাগে। আমি চাই সব জায়গায় বেশি করে পাখির বাসা দিতে।

আরেক পাখিপ্রেমী সাত বছরের শিশু সাফওয়ার আরহাম বলে, আমাদের শহরে পাখির জন্য বাসা তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। এতে আমি খুব খুশি।

আরো পড়ুন : ইউরোপের পথে পথে মানবদেহের কংকালের পিরামিড

আরো পড়ুন : ভাইরাল অজগর সাপটি ছেড়ে দেওয়া হয়েছে লাউয়াছড়া বনে

আরো পড়ুন : মারবেল ক্যাট: শ্রীমঙ্গলে দেশের একমাত্র এবং সবচেয়ে বিরল বিড়াল

 

আইনিউজ ভিডিও 

কৃষক ও ফিঙে পাখির বন্ধুত্ব (ভিডিও)

পোষ মানাতে হাতির বাচ্চাকে নির্মম প্রশিক্ষণ 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়