ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২,   আষাঢ় ২৩ ১৪২৯

মো. ফাহাদ আহমদ, মৌলভীবাজার

প্রকাশিত: ২০:২৯, ২২ জুন ২০২২
আপডেট: ২০:৩৮, ২২ জুন ২০২২

মৌলভীবাজারে কুশিয়ারার বাঁধ ভেঙে ঢুকছে পানি; প্লাবিত হচ্ছে নতুন এলাকা

মৌলভীবাজারে শেরপুরে কুশিয়ারা নদীর বাঁধ ভেঙ্গে ঢুকছে পানি

মৌলভীবাজারে শেরপুরে কুশিয়ারা নদীর বাঁধ ভেঙ্গে ঢুকছে পানি

সিলেট বিভাগের চারটি জেলার মিলনস্থল মৌলভীবাজার সদর উপজেলার খলিপুর ইউনিয়নের হামরকোনা এলাকায় কুশিয়ারা নদীর একটি বাঁধের অংশ ভেঙে গেছে। এতে প্রবল বেগে পানি হু-হু করে প্রবেশ করছে লোকালয়ে। উপজেলার বিস্তীর্ণ বহু নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। আশঙ্কা রয়েছে পার্শ্ববর্তী হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকাও প্লাবিত হওয়ার। 

বুধবার (২২ জুন) বিকাল ৩টার দিকে বাঁধের ভাঙন দেখা যায়। এতে ঐ এলাকার বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। এদিকে বন্যায় প্লাবিত হয়ে পানিবন্দি বহু পরিবার শেরপুর আজাদ বখত উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, শামসুন্নাহার বিদ্যাপীঠ সহ বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে নিরাপদে অবস্থান করছেন।

ইতোমধ্যে সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের  ব্রাহ্মণগ্রাম, শেরপুর মুক্তিনগর (নতুনবস্তি), হামরকোণা গ্রামের কুশিয়ারা নদী তীররক্ষা বাঁধের ওপর দিয়ে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করেছে। এতে স্থানীয় শেরপুর বাজারসহ ঐ এলাকার ৪টি গ্রামের অন্তত হাজার খানেক পরিবার পানিবন্দি রয়েছেন। বাদ যায়নি মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ঐ এলাকার বিভিন্ন স্থানে নির্মাণাধীন ঘরবাড়ি। 

প্রসঙ্গত, গত ক’দিনের টানা বর্ষণে ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সিলেট-সুনামগঞ্জ সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বাঁধ ভেঙে বহু গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। দেখা দিয়েছে ভয়ানক বন্যা পরিস্থিতি। দুর্ভোগে পড়েছেন হাজারো মানুষ। এতে অন্যান্য জেলার ন্যায় মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন এলাকার নিম্নাঞ্চলও পানিতে তলিয়ে গেছে। প্লাবিত হয়েছে সড়ক। অনেক জাগায় আবার যান চলাচলও ব্যাহত রয়েছে। এমনকি অনেক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। বন্যার পানি বাড়ায় গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন বহু মানুষ। ফলে নদীর পাড়ের ও নিম্নাঞ্চলের সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষজনের দিন কাটছে আতঙ্কে।

আইনিউজ/ফাহাদ আহমদ/এসকেএস

আইনিউজ ভিডিও

নিরাপদ আশ্রয়ের খুঁজে ছুটছেন সিলেটবাসী 

মৌলভীবাজারে বন্যা, জলমগ্ন টিবি হাসপাতাল রোড

 ঘরে থৈ-থৈ পানি, নেই খাবার পানি, বিদ্যুৎ নেই, নেটওয়ার্ক নেই 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়