ঢাকা, সোমবার   ১৬ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৩:৫৪, ১০ জানুয়ারি ২০২২
আপডেট: ১৩:৫৬, ১০ জানুয়ারি ২০২২

গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকতকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা ঘোষণা

গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত

গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় নদী মোহনায় অবস্থিত গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকতকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা ঘোষণা করেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) মন্ত্রণালয়ের পর্যটন-২ অধিশাখার উপ-সচিব শ্যামলী নবী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকতকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত এলাকার ১ নম্বর খাস খতিয়ানের মোট জমির পরিমাণ ২৫৯ দশমিক ১০ একর। এই খাস জমিকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হলো।

আরও পড়ুন- ভ্রমণ কেনো গুরুত্বপূর্ণ?

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, ‘সরকার এই মর্মে সন্তুষ্ট হয়েছে যে, অপরিকল্পিত স্থাপনা নির্মাণ বা অন্য কোনোরূপ কার্যক্রম গ্রহণের কারণে গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত এলাকায় পর্যটন-শিল্পের উন্নয়ন ও বিকাশ ব্যাহত হচ্ছে বা ভবিষ্যতে আরও ব্যাহত হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।’

‘এ অবস্থায় বাংলাদেশের পর্যটন শিল্প ও সেবা খাতের পরিকল্পনা, উন্নয়ন ও বিকাশের লক্ষ্যে এবং পর্যটন সম্ভাবনাময় এলাকায় অপরিকল্পিত স্থাপনা নির্মাণ বা অন্য কোনোরূপ কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণের জন্য বাংলাদেশ পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা ও বিশেষ পর্যটন অঞ্চল আইন, ২০১০ এর (৪) ধারার ক্ষমতাবলে গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত এলাকা পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হলো’ বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

আরও পড়ুন- শীতকালে সিলেটের দর্শনীয় স্থান ভ্রমণ

গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত

মনভরে প্রকৃতি উপভোগের এক অনন্য লীলাভূমি গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত। ক্ষুদ্র চাকা চাকা মাটিগুলো যেন একেকটি সবুজ দ্বীপ। স্থানীয়দের কাছে এ সৈকতটি মুরাদপুর সি বিচ নামে পরিচিত।  

ব্যস্তজীবনের ক্লান্তি দূর করতে ঘুরে আসতে পারেন এ সৈকতে। বিশাল মাঠ আর কিছুদূর পর পর সারিহীন গাছের বাগান দেখতে পাবেন। এক পাশে সাগর আর অন্য পাশে কেওড়াবন এই সি বিচকে করেছে অতুলনীয়।

গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত

কেওড়াবনের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া খালের চারপাশে কেওড়াগাছের শ্বাসমূল দেখা যায়। এখানে সবুজ ঘাসের বুকে শুয়ে সাগরের ঢেউয়ের গর্জন শোনা ও দেখা যায়। আর বাতাসের শীতলতা আপনাকে অন্য রকম প্রশান্তি দেবে।

ভাটার সময় গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকতকে অনেকটাই কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের মতোই মনে হয়। বিচের পাড়ে বসে ছবি তোলা যায় কিংবা সূর্যাস্ত দেখা যায়। 

আইনিউজ/এসডিপি 

আইনিউজ ভিডিও 

মৌলভীবাজারে ট্যুরিস্ট বাস চালু

যেসব দেশে যেতে বাংলাদেশিদের লাগবে না ভিসা

সাজেক: কখন-কীভাবে যাবেন, কী করবেন? জেনে নিন বিস্তারিত

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়