ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৭ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ৩ ১৪২৯

আইনিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪:৩৩, ২৬ জানুয়ারি ২০২২
আপডেট: ১৫:০৫, ২৬ জানুয়ারি ২০২২

৩৪ ভিসির পদত্যাগ দেখার খুবই শখ ড. জাফর ইকবালের

 অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল

 অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল

দেশের ৩৪ ভিসির পদত্যাগ দেখার খুবই শখ বলে ব্যক্ত করেছেন অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। বুধবার (২৬ জানুয়ারি) শাবি শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙানোর পর এক প্রেস ব্রিফিং এই কথা বলেন তিনি। 

অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, ‘বাংলাদেশের ৩৪টা ইউনিভার্সিটির ভাইস-চ্যান্সেলর বলেছেন যে, এই ইউনিভার্সিটির ভাইস-চ্যান্সেলর যদি পদত্যাগ করেন তাহলে তারা সবাই পদত্যাগ করবেন। এই জিনিসটা দেখার খুবই শখ আমার। যে আমাদের এরকম ভাইস-চ্যান্সেলর আছেন যাদের আদর্শ এত বেশি যে উনারা অন্যর সহমর্মিতায় নিজেরা পদত্যাগ করবেন। কিন্তু আমার ধারণা আমার এ আশা সহজে মিটবে না। কি জন্য তারা এটা বলেছেন। কারণ ঐ ৩৪ জন ভাইস-চ্যান্সেলরের ঘুম নষ্ট হয়ে গিয়েছে।’ 

আরও পড়ুন- ১৬২ ঘন্টা পর অবশেষে অনশন ভাঙলেন শাবি শিক্ষার্থীরা

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন- ‘তোমরা যেটা করেছো, আমি আশা করি বাংলাদেশের ইউনিভার্সিটিগুলোর একটা মোডিফিকেশন হয়েছে। সবাই যেন এখন নতুন করে এ্যানালাইসিস করে যে, আমি যে মানুষটাকে ভাইস-চ্যান্সেলর হিসেবে পাঠিয়েছি সে কি আসলেই ভাইস-চ্যান্সেলর হওয়ার যোগ্য? ’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি অনেক কিছু জানি। কিন্তু পাবলিকলি বলতে চাই না। কারণ নিজেদের দুর্বলতার কথা বলতে ভালো লাগে না। তোমাদেরকে শুধু এটুকু বলতে চাই,  তোমরা যেটা করেছো এটার কোন তুলনা নেই। যে আন্দোলনটা তৈরি করেছো বাংলাদেশের প্রত্যেকটা যুবক ছেলেমেয়ে তোমাদের সাথে আছে।’ 

আরও পড়ুন- আমার প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়টি ভালো নেই

প্রসঙ্গত, উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলনরত শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ১৬২ ঘণ্টা পর অনশন ভেঙেছেন।

অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হকের প্রচেষ্টায় বুধবার ভোর ৫টার দিকে তারা অনশন ভাঙতে রাজি হয়। পরে সকাল ১০টা ২১ মিনিটের দিকে  অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল অনশনকারী শিক্ষার্থী হামিদা আব্বাসিকে পানের মাধ্যমে অনশন ভাঙান।

আইনিউজ/এসডিপি 

আইনিউজ ভিডিও 

শাবিপ্রবি শিক্ষককে ফেনসিডিল সাপ্লাই দিতে গিয়ে গার্ড আটক!

`প্রাণ দেবো, তবু ভিসির পদত্যাগ চাই` | কাফন মিছিলে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা | Eye News

শিক্ষার্থীরা লড়ছে মৃত্যুর সাথে, অসুস্থদের অ্যাম্বুলেন্সে নেওয়া হচ্ছে হাসপাতালে

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়