ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৬ ১৪২৮

স্বাস্থ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ২২:১৯, ২৭ জুলাই ২০২১
আপডেট: ২২:২৭, ২৭ জুলাই ২০২১

মুহূর্তেই আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমাবেন যেভাবে

দাঁতের ব্যথা সবসময়ই কষ্টকর। এর মধ্যে অন্যতম জটিল সমস্যা হচ্ছে আক্কেল দাঁতের অসহ্যকর যন্ত্রণা। আক্কেল দাঁতে ব্যথা হলে জ্বর, গলা, কানে ব্যথাসহ গিলতে অসুবিধা হয়। কম-বেশি আমরা সবাই আক্কেল দাঁতের সমস্যায় ভুগে থাকি।

পূর্ণ বয়সে আক্কেল দাঁত অনেক সময় উঠতে গিয়ে পর্যাপ্ত স্থান না পেয়ে চোয়ালের ভেতরে বা নিচের দিকে গজাতে পারে। এটা স্বাভাবিকভাবে বেরোতে না পারলে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেমন ব্যথা, প্রদাহ, অন্য দাঁতের ক্ষতি ইত্যাদি। মূলত আক্কেল দাঁত অনেক সময় পাশের দাঁতে ধাক্কা বা চাপ সৃষ্টি করতে পারে। আর এই সময় মাড়ির প্রদাহের কারণে ব্যথা হতে পারে।

যখন আক্কেল দাঁত সম্পূর্ণ উঠতে পারে না, তখন দাঁতের মুকুট অংশটি উপরিভাগের মাংস বা মাড়ির নিচে থাকে। তখন মাঝখানে খাবারের কণাগুলো জমে থাকে এবং সেখানে ধীরে ধীরে অসংখ্য রোগ জীবাণু জন্ম নেয়। এতে মাড়িতে প্রদাহ হয়। ফলে মাড়ি ফুলে যায়, তীব্র ব্যথা হয় এবং ওপরের দাঁতের সঙ্গে মাড়ির ক্রমাগত ঘর্ষণ বা কামড়ে ঘা, ক্ষত তৈরি হয়। চোয়ালের ভেতরে অবস্থানকারী একটি আক্কেল দাঁত অন্য সবকটি দাঁত পড়ে যাওয়ার পর বেরিয়ে আসতে পারে। ফলে নিচের পাটির দাঁতের নিচে ব্যথা বা প্রদাহের আশঙ্কা থাকে।

মাড়ির দ্বিতীয় দাঁতটি ক্রমাগত ধাক্কা খেতে খেতে একদিকে হেলে পড়তে পারে। তাছাড়া দুই দাঁতের সংযোগস্থলে খাদ্যকণা জমা থাকায় প্রদাহ হতে পারে। এতে চোয়ালের সামনের দিকের দাঁতগুলো বিচ্ছিন্ন বা আঁকাবাঁকা হয়ে যেতে পারে। পরবর্তী সময়ে যেসব উপসর্গ দেখা দিতে পারে, সেগুলো হচ্ছে-

 • মাড়ির প্রদাহ বা সংক্রমণ

 • হাড়ের প্রদাহ

 • দাঁতের ক্ষয়

 • স্নায়ুর ওপর চাপ

আক্কেল দাঁতের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে যা করবেন-

 • কচি পেয়ারা পাতা পানিতে সিদ্ধ করে নিন। এবার এই সিদ্ধ পাতা কিছুক্ষণ চিবিয়ে ফেলে দিন। ব্যথা গায়েব!

 • পিপারমিন্টে এক টুকরো তুলো ডুবিয়ে মাড়িতে লাগান। পিপারমিন্ট চা-ও খেতে পারেন, এটাও খুব ভালো।

 • হালকা গরম পানিতে লবণ দিয়ে কুলি করে ফেলুন। এটি ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলে এবং মাড়িকে সুস্থ রাখে।

 • ভিনেগারে তুলা ভিজিয়ে ব্যথার জায়গায় চেপে রাখুন। কিছুক্ষণ পর ব্যথা কমে আসবে।

 • ঠাণ্ডা-গরম সেঁক দেয়া যেতে পারে বাইরে থেকে। আইস ব্যাগে বা কাপড়ে এক টুকরো বরফ পেচিয়ে সেঁক দিন।

 • পেঁয়াজ অর্ধেক করে কেটে ব্যথার জায়গায় রেখে, দাঁত দিয়ে চাপ দিন, যাতে পেঁয়াজ থেকে রস বের হয়। পেঁয়াজের রস ব্যথা কমায়।

 • তুলার বল পানিতে ভিজিয়ে বেকিং সোডা মাখিয়ে নিন। এবার বলটা ব্যথার জায়গায় চেপে ধরে থাকুন। খানিক্ষণের মধ্যেই ব্যথা কমে যাবে।

 • আক্কেল দাঁতের উপর একটা লবঙ্গ রেখে দিন। চিবানোর দরকার নেই। যতক্ষণ না ব্যথা কমছে লবঙ্গটা ফেলবেন না। লবঙ্গ তেলও ব্যবহার করতে পারেন। শুধু আক্কেল দাঁত নয়, এমনি দাঁতের ব্যথাতেও কাজ দেয় লবঙ্গ!

আইনিউজ/এসডিপি 

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়