ঢাকা, শুক্রবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ২ ১৪২৮

সাজু মারছিয়াং

প্রকাশিত: ১২:২৮, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১
আপডেট: ১৩:২০, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১

ছবিতে লাউয়াছড়ার বিরল উল্টোলেজি বানর

এরা কুলু বান্দর, ছোটলেজি বানর, উলু বান্দর, উল্টোলেজি বানর বিভিন্ন নামে পরিচিত। ছবি- সাজু মারছিয়াং।

এরা কুলু বান্দর, ছোটলেজি বানর, উলু বান্দর, উল্টোলেজি বানর বিভিন্ন নামে পরিচিত। ছবি- সাজু মারছিয়াং।

মৌলভীবাজারের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান নানা জীববৈচিত্র্যে সমৃদ্ধ। এ উদ্যানের নানা প্রজাতির জীবজন্তুর মধ্যে একটি হলো কেশরওয়ালা ‘সিংহ বানর’ বা উল্টোলেজি বানর বা ছোট লেজি বানর। আন্তর্জাতিক প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ সংঘের (আইইউসিএন) লাল তালিকায় এ প্রজাতিকে ‘সঙ্কটাপন্ন’ বিবেচনা করা হয়েছে।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) লাউয়াছড়া উদ্যানে দেখা মিলল কেশরওয়ালা ‘সিংহ বানর’ বা উল্টোলেজি বানরের একটি দলের। এ বানর হচ্ছে ম্যাকাকগণের একটি বানর প্রজাতি। এরা কুলু বান্দর, ছোটলেজি বানর, উলু বান্দর প্রভৃতি নামেও পরিচিত। উল্টোলেজি বানরের সোনালি রঙের লেজটি মেরুদণ্ড বরাবর নিচের দিকে একটু উঁচু হয়ে ঝুলে থাকে।

এ বানর কিন্তু সচরাচর দেখা যায় না। এটি সংকটাপন্ন। এদের গায়ের রং হালকা সোনালি থেকে বাদামি। তবে ওপরের অংশ জলপাই ধূসর আর নিচের দিক ধূসর সাদা। মাথার মাঝখানটা চ্যাপ্টা ও কালচে রঙের। বয়স্ক বানরের মাথায় কখনো কখনো কেশর দেখা যায়। ১৬২-১৮৬ দিন পর একটি বাচ্চা দেয় এরা। এরা ১০-১২ বছর বাঁচে। বাংলাদেশের ২০১২ সালের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে এ প্রজাতিটি সংরক্ষিত।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ছোট লেজি বানর উল্টোলেজি বানর। ইংরেজী নাম: Pig-tailed Macaque। বৈজ্ঞানিক নাম- Macaca leonina। এটি ম্যাকাক গণের একটি বানর প্রজাতি।

এরা কুলু বান্দর, শুকরলেজি বানর, ছোট লেজি বানর, উলু বান্দর, সিংহ বানর, প্রভৃতি নামেও পরিচিত। আন্তর্জাতিক প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ সংঘের (আইইউসিএন) তালিকায় এই বানরকে ‘সংকটাপন্ন বলা হয়েছে। বাংলাদেশের ২০১২ সালের বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে এরা সংরক্ষিত প্রাণী।

ছবি- সাজু মারছিয়াং

ছোটলেজি বানর এরই মধ্যে চিরসবুজ বন ও খাদ্য সংকটে বিলুপ্তির দিকে অগ্রসর হচ্ছে। তবুও মাঝে মধ্যে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে এ প্রজাতির বানরের এখনো দেখা পাওয়া যায়। এদের দলেই লাউয়াছড়া বন গবেষনা কেন্দ্রের কাছে ছোট লেজি বানরের দলটিকে দেখা গেছে।

লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান, আদমপুর সংরক্ষিত বনাঞ্চল, হবিগঞ্জের সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান, চট্রগ্রামের কিছু এলাকার কয়েকটি স্থানে বেশকিছু ছোট লেজি বানর এখনও রয়েছে। তবে দেশের বেশীর ভাগ জায়গাতেই এদের সংখ্যা নগণ্য। অনেক বন থেকেই এরা হারিয়ে গেছে। ছোট লেজি বানর দলবদ্ধ ভাবে চলে। এদের দলে একজন নেতা থাকে, নেতাকে অন্যরা অনুসরণ করে। এদের বাস হচ্ছে চির সবুজ বনে। এদের প্রধান খাবার হচ্ছে বুনো ফল ও লতাপাতা।

বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের মৌলভীবাজার রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, অতিসংকটাপন্ন ছোট লেজি বানরের ছোট–বড় মিলিয়ে একটি দল মৌলভীবাজারে বাস করছে। সংকটাপন্ন বলে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ এদের প্রতি সতর্কতার সঙ্গে নজরদারি করছে।

আইনিউজ/সাজু মারছিয়াং/এসডি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়