ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৮

স্পোর্টস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২০:৫৩, ২১ অক্টোবর ২০২১
আপডেট: ২০:৫৩, ২১ অক্টোবর ২০২১

ভরসার সাকিব আল হাসান গড়লেন বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের রেকর্ড

সাকিব আল হাসান- বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের এক ভরসার নাম। একের পর এক বিজয় উপহার দিচ্ছেন তিনি দলকে। টাইগারবাহিনীর অন্যতম প্রধান খেলোয়াড় সারাবিশ্বে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন মাঠে তার দৌরাত্ম দেখিয়ে। এবার তিনি গড়লেন আরও একটি রেকর্ড, বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেটের রেকর্ড।

সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের তালিকায় পাকিস্তানি সাবেক অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদির সঙ্গে যৌথভাবে শীর্ষে অবস্থান করছেন এই টাইগার ক্রিকেটার। বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে তালিকায় ছয় নম্বরে ছিলেন সাকিব।

ওমানে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামার আগে আফ্রিদি-মালিঙ্গাদের চেয়ে ৮টি উইকেট পিছিয়ে ছিলেন সাকিব। কিন্তু প্রথমপর্বের তিন ম্যাচ খেলেই বাজিমাত করলেন তিনি। মাত্র তিন ম্যাচে তুলে নিয়েছেন নয়টি উইকেট। তাতেই হয়েছে রেকর্ড।

বিশ্বকাপে সাকিব এবং আফ্রিদির উইকেট সংখ্যা সমান। ৩৯টি উইকেট রয়েছে পাকিস্তানের সাবেক তারকা অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদিরও। তবে এই পরিমাণ উইকেট নিতে ৩৪ ইনিংস বোলিং করেছেন আফ্রিদি। সেখানে সাকিব খেলেছেন মাত্র ২৭ ইনিংস। এছাড়া ইকোনমি এবং গড়েও আফ্রিদির চেয়ে এগিয়ে সাকিব।

বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ২ উইকেট নেন সাকিব, স্বাগতিক ওমানের বিপক্ষে পরের ম্যাচে তার ৩ উইকেট। ক্রমাগত উন্নতির ধারা বজায় রেখে পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে আজ নিয়েছেন ৪টি উইকেট।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে উইকেট শিকারের তালিকায় তিন নম্বরে রয়েছেন লঙ্কান কিংবদন্তি পেসার লাসিথ মালিঙ্গা। তার ঝুঁলিতে রয়েছে ৩৮টি উইকেট। এছাড়া ৩৬টি এবং ৩৫টি উইকেট নিয়ে এই তালিকায় যথাক্রমে চতুর্থ এবং টঞ্চম অবস্থানে রয়েছেন পাকিস্তানের সায়েদ আজমল এবং শ্রীলঙ্কার আজান্তা মেন্ডিস।

এদিকে সাকিবের ব্যাটে ভর করে আজ পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে বাংলাদেশ বিজয় অর্জন করেছে রেকর্ড গড়ে। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও সাকিব আল হাসানের ব্যাটে ভর করে বাংলাদেশ টার্গেট দিয়েছিলো ১৮২ রানের। কিন্তু টার্গেটের আশেপাশে যাওয়ার আগেই সব উইকেট হারিয়ে ফিরতে হয়েছে পাপুয়া নিউ গিনিকে। বোলাররা রীতিমতো ছেলেখেলাই করলেন পাপুয়া নিউ গিনির সঙ্গে। তাতে অনায়াস জয়টা দিলো ধরা। এর মধ্য দিয়ে সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত হলো বাংলাদেশের। বিস্তারিত...

১৮২ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে সাকিবদের বোলিং তোপে দাঁড়াতেই পারছিলো না পাপুয়া নিউ গিনি।  মাত্র ২৮ রান তুলতেই ৭ উইকেট হারিয়ে বসে তারা।  পিএনজিকে ৯৭ রানে অলআউট করে ৮৪ রানের রেকর্ড ব্যবধানে জয় টাইগারদের। নিজেদের টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে এর আগে বাংলাদেশ দলের সর্বোচ্চ রানের জয়ের রেকর্ড ছিল আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে, ৭১ রানে। ২০১২ সালে।

আইনিউজ/এসডি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়