ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ মে ২০২১,   বৈশাখ ৩০ ১৪২৮

নিজস্ব প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৯:৫৪, ১৬ এপ্রিল ২০২১
আপডেট: ১০:৫৩, ১৬ এপ্রিল ২০২১

মন্দিরে তরুণীকে বৈষ্ণবের ধর্ষণচেষ্টা

সিলেটের গোলাপগঞ্জের মন্দিরে বৈষ্ণবের (পুরোহিত) বিরুদ্ধে এক তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া যায় । এ ঘটনায় বৈষ্ণবকে গ্রেফতার করেছে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) গোলাপগঞ্জের বাঘা কালাকোনা থেকে প্রাণগোবিন্দ দাস ওরফে ফরেস্ট চৌহান (৪৬) নামের বৈষ্ণবকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি টাংগাইল জেলার দেলদোহার থানার সিলিমপুর গ্রামের কালু চৌহানের ছেলে। এছাড়ও এ ঘটনায় অভিযুক্ত বৈষ্ণবের সহযোগী কালাকোনা গ্রামের দিপংকর দেব তপন (৩৮) পলাতক রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোলাপগঞ্জ উপজেলার বাঘা ইউনিয়নের কালাকোনা গ্রামে শ্রী শ্রী গিরিধারী জিউর মন্দিরের বৈষ্ণব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন প্রাণগোবিন্দ দাস। ধর্মীয় শিক্ষা লাভের জন্য তার কাছে প্রায়ই যাওয়া আসা করতেন এলাকার তরুণ-তরুণী সহ বিভিন্ন বয়সের হিন্দু ধর্মের অনুসারীরা।

মন্দিরের পাশ্ববর্তী বাড়ির এক তরুণী গত মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭ টায় ধর্মীয় শিক্ষা লাভের জন্য প্রাণগোবিন্দ দাসের কাছে যান। এসময় ওই তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান প্রাণগোবিন্দ।

স্থানীয়রা জানান, পুরোহিত ও তার অপর সহযোগি কালাকোনা গ্রামের দিপংকর দেব তপন (৩৮) তরুণীকে জরুরী কাজের কথা বলে মন্দিরের পাশে নিয়ে যান। সেখানে তারা মেয়েটির মুখে চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করলে তরুণী চিৎকার শুরু করেন। এ সময় আশপাশ এলাকার লোকজন ও তরুণীর আত্মীয়-স্বজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করেন।

 প্রাণগোবিন্দ দাসকে এলাকাবাসী আটক করে গণধোলাই দেন। এ সময় তার সহযোগী দিপংকর দেব তপন পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ঐ তরুণী বাদী হয়ে প্রাণগোবিন্দ দাস ও দিপংকর দেব তপনকে অভিযুক্ত করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আইনিউজ/এসডি

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়