ঢাকা, শনিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮

তনিমা রশীদ

প্রকাশিত: ১৮:২৪, ২২ অক্টোবর ২০২১
আপডেট: ১৯:০৫, ২২ অক্টোবর ২০২১

ত্বকের যত্নে ছয় ফুলের ব্যবহার

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ফুল পছন্দ করে না এমন ব্যক্তি কমই আছে। ফুল তার সৌন্দর্যের জন্য পরিচিত। ফুল যেমন প্রকৃতিতে সৌন্দর্য ছড়িয়ে দেয় ঠিক তেমনি আমাদের রূপের সৌন্দর্য বাড়ায়। প্রাচীনকাল থেকে ত্বকের যত্নে ফুল ব্যবহৃত হচ্ছে। বিভিন্ন বাজারজাত রূপচর্চার পণ্যে ফুলের ব্যবহার করা হয়। কেননা ফুলে থাকে নিউট্রিয়েন্ট, যা চামড়ার এইজিং প্রক্রিয়াকে ধীর করে দেয়।

আজ আপনাদের ছয়টি ফুলের কথা বলব, যা ত্বকের যত্নে ব্যবহৃত হয়। এসব ফুল আমরা সহজে আমাদের আশেপাশে পাওয়া যায়। ঘরে বসে সেসব ফুল দিয়ে প্যাক তৈরি করতে পারি আমরা। এই প্যাক বাজারজাত পণ্যের চেয়ে খুবই ভালো কার্যকরী হবে।

গাঁদা 

গাঁদা ফুল 

ত্বকের যত্নে গাঁদা ফুলের ব্যবহার অপরিহার্য। যেমন- 

ব্রণ দূরীকরণ: গাঁদা ফুল খুবই কার্যকরী একটি অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল যা ব্রণের সমস্যা দূর করে পরিমাণমতো গাঁদাফুল থেতলিয়ে ব্রণের উপর দিয়ে রাখুন এটি ব্রণে সমস্যা দূর করতে সাহায্য করবে।

রোদে পোড়া দাগ দূরীকরণ: কয়েকটি গাঁদা ফুলের পাপড়ি বেটে এতে ২ চা চামচ কমলার রস মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি রোদে পোড়া অংশে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন।এতে দাগ ও ত্বকের রঙের অসামঞ্জস্যতা দূর হবে।

ত্বকের কালো দাগ দূরীকরণ: ত্বকের কালো দাগ দূর করতে গাঁদাফুলের পাপড়ি বাটা, চন্দন পাউডার ও গোলাপজল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখে লাগান। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এতে দাগ দূর হবে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতাও বাড়বে।

জবা 

জবা ফুল

ত্বকের যত্নে জবা ফুলেরও ব্যবহার হয়ে থাকে। মুখে জমে থাকা ময়লা ও অতিরিক্ত তেল দূর করতে জবা ফুলের প্যাক অনেক কার্যকরী। পরিমাণমতো জবা ফুলের পাপড়ি পেস্ট করুন তাতে ১ চামচ চালের গুঁড়া, Essential oil আর অল্প পানি দিয়ে প্যাক তৈরি করুন। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করুন তারপর ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি আপনার মুখের ময়লা ও অতিরিক্ত তেল দূর করবে।

গোলাপ 

গোলাপ ফুল

ত্বকের যত্নে গোলাপের অনেক বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে। বিভিন্ন বাজারজাত রূপচর্চার পণ্যে গোলাপের ব্যবহার বেশি থাকে। গোলাপ ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়, ত্বকে কোমল ও মসৃণ করে। 

কোমল ও মসৃণ করতে: গোলাপের কয়েকটি পাপড়ি কাঁচা দুধে আাধা ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। পরে এই পাপড়িগুলো বেটে নিন ও এক চা চামচ মধুর সাথে মিশিয়ে পুরো মুখে লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন, এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকে কোমল, মসৃণ ও উজ্জ্বল করে তুলবে। 

আবার, রাতে ঘুমানোর আগে দুই কাপ পানিতে একটি তাজা গোলাপের পাপড়ি ভিজিয়ে রাখুন। সকালে উঠে এই পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের উজ্জ্বলতা ও কোমলতা বাড়বে।

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে: চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে গোলাম ফুলের পাপড়ির ভূমিকা অনেক। একটি পাত্রে কিছু সময় ধরে গোলাপ ভিজিয়ে রাখুন তারপর তুলা দিয়ে সেই পানি চোখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট চোখ বন্ধ করে রাখুন। এটি নিয়মিত করলে চোখের নিচের কালো দাগ দূর হবে।

সানস্ক্রিন ও ময়েশ্চারাইজার: গোলাপ সানস্ক্রিন ও ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করা যায়। সানস্ক্রিনের জন্য, রোদে বের হবার আগে গোলাপের রস, আমন্ড অয়েল ও শসার রস মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। এতে ত্বক রোদে পুড়ে যাওয়া থেকে অনেকটা বাঁচবে।

ময়েশ্চারাইজার এর জন্য- ২ টেবিল চামচ অলিভ ও ১ চামচ গোলাপের রস মিশিয়ে মুখে লাগান। এটি ত্বকের ময়েশ্চারাইজারের কাজ করবে।

রজনীগন্ধা 

রজনীগন্ধা ফুল

শুষ্ক রুক্ষ ত্বকের জন্য রজনীগন্ধা অনেক ভালো ফলাফল দেয়। এর জন্য একটা রজনীগন্ধা পাপড়ি পেস্ট করে মাখন ও মধুর সাথে মিশিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করুন৷ ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

বেলী 

বেলী ফুল

বেলী ফুল পোস্ট করে নিয়ে সাথে অ্যালোভেরার জেল ও মধু মিশিয়ে ত্বকে লাগান। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। ত্বক টানটান ও মসৃণ হয়ে উঠবে। নিয়মিত ব্যবহারের ফলে বলিরেখা দূর হবে।

নয়নতারা 

নয়নতারা 

ত্বকের যত্নে নয়নতারা ফুলের ব্যবহার হয়ে থাকে। ব্রণ, বয়সের ছাপ, চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে।

৬-৭টা নয়নতারা ফুল ও পাতা নিয়ে ভালো করে ধুয়ে রস বের করতে হবে।১ চামচ রসের সাথে ১ চামচ এ্যালোভেরা মিশিয়ে পুরো মুখে লাগান।১০ মিনিট লাগিয়ে পরে আরো একবার লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। তারপর ভালো ময়েশ্চারাইজার লাগাতে হবে।

নয়নতারার পাতা বেটে তার রস দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করলে চুলকানি এবং ফাঙ্গাসজনিত সমস্যা মুক্তি পাওয়া যায়। এর পাতা সেদ্ধ করা জল ব্যবহারে ত্বক হয় উজ্জ্বল ও তরতাজা।

ঘরে তৈরি ফুলের প্যাক ব্যবহারে সতর্কতা

• ফুলে পাপড়ি ব্যবহারের আগে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।

• শুধু ফুলের পাপড়ি বা রস সরাসরি মুখে লাগাবেন না। কারণ ফুলের pH যদি আমাদের সহনীয়তার বেশী হয় তহলে তা আমাদের ত্বকে ক্ষতি হবে। তাই অন্য কোনো উপকরণের সাথে মিশিয়ে ব্যবহার করতে হবে।

• ঘরে তৈরি ফুলের প্যাক ঘরে বেশি দিন রাখে ব্যবহার করা উচিত নয়। বেশি দিন ঘরে থাকলে তাতে ব্যাকটেরিয়ার জন্ম নিতে পারে যা ত্বকের জন্য খুবই ক্ষতিকর। তাই ফুলের তৈরি প্যাক সবসময় টাটকা অবস্থায় ব্যবহার করুন।

• অনেকের অনেক ফুলে এলার্জির সমস্যা থাকে। এ সমস্যা অনেকের কাছে লুকাইত থাকে। তাই তৈরি ফুলের প্যাক ব্যবহার করার আগে হাতের কোনো অংশে লাগিয়ে পরীক্ষা করে নিবেন আপনার এলার্জির সমস্যা হচ্ছে কি-না। 

কিছু সতর্কতা অবলম্বন করলেই ফুলের তৈরি প্যাক দিয়ে পেয়ে যেতে পারেন খুবই মসৃণ ও উজ্জ্বল ত্বক।

আইনিউজ ভিডিও 

হাইল হাওরের বাইক্কাবিলে পর্যটক আর পদ্মটুনার ভিডিও ভাইরাল

জলময়ূরের সাথে একদিন | বাইক্কা বিল | ওয়াইল্ডলাইফ ফটোগ্রাফি

চিনির কারণে প্রতিবছর সাড়ে তিন কোটি মানুষের মৃত্যু ঘটে

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়