ঢাকা, রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১,   চৈত্র ২৮ ১৪২৭

প্রবাস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:৩৮, ২ এপ্রিল ২০২১
আপডেট: ১৪:০৭, ২ এপ্রিল ২০২১

সি‌লে‌টের গোয়ালাবাজারের রু‌ফিয়া ব্রিটেনের নর্থামটনের মেয়র নির্বাচিত

সিলেটের গোয়ালাবাজারে বাড়ি। নাম রুফিয়া আশরাফ। বর্তমানে থাকেন ব্রিটেনে। শুধু ব্রিটিনে থাকেন এমন না, তিনি ব্রিটেনের নর্থামটন সি‌টি কাউন্সিলের মেয়রও। রুফিয়াই প্রথম নির্বাচিত ব্রিটিশ বাংলাদেশি মেয়র।

লেবার পা‌র্টির কাউন্সিলর রু‌ফিয়া ব্যক্তিগত জীব‌নে তিন সন্তা‌নের জননী। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) বিকালে তি‌নি আনুষ্ঠানিকভাবে এ দায়িত্ব নেন। এর আগে তি‌নি গত বছর ডেপু‌টি মেয়র নির্বা‌চিত হন।

তার জন্ম ও বে‌ড়ে উঠা ব্রিটে‌নে। তিনি পেশায় একজন সমাজকর্মী। রুফিয়ার গ্রা‌মের বাড়ি সি‌লে‌টের গোয়ালাবাজার।

উল্লেখ্য, নর্থাম্পটনের ডালিংটন এলাকার ওয়ারেন রোডের বাসিন্দা মেয়র রুফিয়া আশরাফ। এক ছেলে ও দুই মেয়ে সন্তানের জননী রুফিয়া আশরাফের স্বামী আবু তাহের মোহাম্মদ আশরাফ। রুফিয়া আশরাফের বাংলাদেশের বাড়ী সিলেট নগরীর ছাড়াদিঘীর পার।

উল্লেখ্য, রুফিয়া আশরাফের ভাশুর হলেন সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম এডভোকেট আ ফ ম কামাল।

রুফিয়া বলেন, আমি এ কাউন্সিলের প্রথম ব্রিটিশ বাংলাদেশি মেয়র হিসেবে গর্বিত। তিনি সবার দোয়া ও সহযোগিতা চেয়েছেন।

রুফিয়া আশরাফ দুইবার ইংল্যান্ডের নর্থাম্পটন সেইন্ট জেমস ওয়ার্ড থেকে লেবার পার্টির প্রার্থী হয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে প্রথম বারের মতো কাউন্সিলার বিজয়ী হওয়ার পর থেকেই নর্থাম্পটন বারাহ কাউন্সিলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন রুফিয়া আশরাফ।

[আরও পড়ুন: ইউরোপসহ ১২ দেশ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ নিষিদ্ধ]

এর আগে ডেপুটি মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি গত বছর ২১ মে ভার্চুয়াল এক সভায় শপথ গ্রহণ করেন। তখন রুফিয়া জানান, আমি যখন বাংলাদেশী কমিউনিটির জন্য কাজ করতাম তখন তাদের ইংরেজি ভাষা ততটা ভালো ছিলো না। এখানকার বাংলাদেশীরা সব সময় ইংরেজী বুঝতে পারতো না। তাদের জন্য আমি বিভিন্ন স্থানে ফোন করতাম। অফিস আদালতে যোগাযোগ করতাম। অতীতে বাংলাদেশী কমিউনিটির জন্য কাজ করেছি ভবিষ্যতেও এই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে, ইনশাল্লাহ।

ব্রিটেনের মূলধারার রাজনীতিতে তরুনদের আসার আহবান জানিয়ে রুফিয়া আশরাফ বলেন, নর্থাম্পটন বারা কাউন্সিলে মাত্র তিনজন বাংলাদেশী কাউন্সিলার আছেন। আমি মতে তরুণদের রাজনীতিতে আসা দরকার। তারা যদি এলে ভালো করতে পারবে বলে আমার বিশ্বাস। আমাদের কমিউনিটিতে আরো বেশি কাউন্সিলার দেখতে চাই। যা কিছু সহযোগিতা লাগে আমি করব।

আইনিউজ/এসডি

সংশ্লিষ্ট নিউজ: শ্রীমঙ্গলে স্ত্রীর বুকে স্বামীর ছুরি

 মৌলভীবাজারের সকল পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ রাখার নির্দেশ

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়