ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৯ ১৪২৭

আইনিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৭, ৪ অক্টোবর ২০২০

সৌদিতে প্রথম কুকুর ক্যাফে

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব যে ইদানিংকালে অনেক পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে তার জলজ্যান্ত উদাহরণ দেশটির প্রথম কুকুর ক্যাফে। দেশটিতে যারা কুকুর পোষেন তারা চাইলে কুকুর নিয়ে এখন থেকে একটি ক্যাফেতে বসে কফি খেতে পারবেন। আগে রাজতান্ত্রিক দেশটিতে এমন কেউ করলে শাস্তি পেতে হতো।

সৌদি আরবের উপকূলীয় শহর খোবারে দ্য বার্কিং লট নামের একটি ক্যাফে খোলা হয়েছে। দেশটির পশুপ্রেমীদের আহ্বান জানানো হয়েছে ওই ক্যাফেতে যাওয়ার জন্য। ক্যাফেটির মালিক দালির আহমেদ নামে এক কুয়েতি। তিনি এএফপিকে বলেন, ‘আমি সৌদি আরবে এসেছিলাম নিজের পোষা কুকুর নিয়ে। কিন্তু কুকুরটিকে নিয়ে আমি সমুদ্রসৈকতে ঘুরতে পারিনি নিষেধাজ্ঞার কারণে। ওই অভিজ্ঞতা আমার জন্য বেশ কষ্টকর ছিল। আর ওই ঘটনা থেকেই আমি সিদ্ধান্ত নেই এমন একটি কফিশপ খোলার যেখানে মানুষ তাদের কুকুর নিয়ে আসতে পারবে।’

সৌদি আরবে জনসমক্ষে কুকুর নিয়ে ঘোরা নিষিদ্ধ ছিল। তবে দিনকে দিন এসব আইন শিথিল হয়ে আসছে। নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও দেশটিতে অনেক মানুষকে কুকুর-বিড়াল পুষতে দেখা যায়। বিশেষ করে মোহাম্মদ বিন সালমান যুবরাজ হওয়ার পর যে পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে সৌদি আরব, সেই পরিবর্তনের অংশ হিসেবেই অধিকসংখ্যক মানুষ কুকুর পুষছে বলে জানিয়েছে জাকার্তা পোস্ট। কিছু কিছু শহরে তো পশুদের জন্য আশ্রয়স্থলও খোলা হয়েছে।

তবে পশু পোষার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়েছে রাস্তার কুকুরদের ধরে ব্যক্তি আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা। বার্কিং লট ক্যাফেতে মানুষ কুকুর নিয়ে আসার পাশাপাশি কুকুরের পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করার সুবিধাও পাচ্ছে। সৌদি নাগরিক জোহরা জানান, ‘কুকুর ক্যাফের ধারণাটি সত্যিই নতুন। এটা এমন একটি জায়গা যেখানে কুকুরদের নিয়ে আসা যায় এবং অনেকে আসতে পারেন।’ ক্রেতারা চাইলে কুকুর কিনতেও সেখানে যেতে পারেন।

Green Tea
সর্বশেষ
জনপ্রিয়